আশা পূরণ হয়েছে রোমাঞ্চিত আফিফের

আফিফ হোসেন ধ্রুব

বয়সভিত্তিক থেকেই সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়ে জায়গা করে নিয়েছেন জাতীয় দলে। টি-টোয়েন্টি অভিষেকটা মনে রাখার মত ছিলনা, বাদ পড়ে ফের জায়গা পেয়েছেন একবছর পর। গতবছর ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক ইনিংসে খাদের কিনারায় থাকা দলকে টেনে তুলে এনে দেন জয়। এরপর টি-টোয়েন্টি দলে জায়গাটা পাকাই করে ফেলেন। তবে অপেক্ষার প্রহর গুনছিলেন কবে আসবে ওয়ানডে দলের ডাক, ৮ মাস পর ওয়ানডে খেলতে যাওয়া বাংলাদেশের স্কোয়াডে জায়গা পেয়ে অপেক্ষা ফুরালো আফিফ হোসেন ধ্রুবরও।

আগামী ১ মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ডাক পাওয়া আফিফ বলছেন নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাই করা সম্ভব। একাদশে সুযোগ পেলে দলে অবদান রাখতে চান তরুণ এই অলরাউন্ডার।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের সবকটিই অনুষ্ঠিত হবে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। আজ সন্ধ্যার ফ্লাইটে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিবে মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। তার আগে মিরপুরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাই করা সম্ভব কিনা জানাতে গিয়ে বলেন, ‘আমাদের সেরা ক্রিকেট খেললে অবশ্যই ধবল ধোলাই সম্ভব।’

এদিকে বিশ্বকাপের পরপরই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজই বাংলাদেশের সবশেষ ওয়ানডে হয়ে আছে। গত ৮ মাসে টেস্ট, টি-টোয়েন্টি নিয়মিত খেললেও খেলা হয়নি কোন ওয়ানডে। লম্বা বিরতির পর ওয়ানডে ফরম্যাটে খেলতে নামলেও মানিয়ে নিতে সমস্যা হবে বলে মনে করেন না আফিফ, ‘আমার মনে হয় সমস্যা হওয়ার কথা না। কারণ সবাই অনুশীলনের মধ্যে আছে, খেলার মধ্যে আছে। আশা করি ভালো করতে পারবে।’

অভিষেকের পর জাতীয় দলের জার্সিতে খেলে ফেলেছেন ১০ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। প্রথম বার ওয়ানডে দলে ডাক পাওয়া আফিফ বলছেন অপেক্ষায় ছিলেন এমন কিছুর, ‘অনেক দিন থেকেই রোমাঞ্চিত অনুভব করছিলাম, টি-টোয়েন্টি খেলছি, ওয়ানডেতে কবে ডাক পাব। আশাটা পূরণ হয়েছে। চেষ্টা করব দলের জন্য ভালো কিছু করার।’

ঘরোয়া লিগে টপ অর্ডারে ব্যাট করে অভ্যস্ত ২০ বছর বয়সী এই তরুণ টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ পাননি উপরের দিকে ব্যাট করার। ওয়ানডেতে উপরের দিকে সুযোগ পেলে সময় নিয়ে ব্যাট করাতেই মনোযোগ আফিফের, ‘যদি উপরে ব্যাট করি তাহলে অবশ্যই সময় নিয়ে খেলা যাবে। নিচে খেললে দল যখন যেটা চাইবে সেই অনুযায়ী খেলব। সুযোগ পেলে প্রতি ম্যাচ ধরে ধরে মনোযোগ দিয়ে খেলার চেষ্টা করব।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের বড় পরাজয়

Read Next

বড়দের টেক্কা দেওয়ার চ্যালেঞ্জ উপভোগ করেন নাইম

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share