মুমিনুল চান সাকিবও দলে আসুক!

সাকিব - মুমিনুল

নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফর থেকে নিজের নাম সরিয়ে নেন মুশফিকুর রহিম। তিন দফার পাকিস্তান সফরের দুই দফা ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে নিরাপদেই। আর এই দুই দফা নিরাপদে পার হওয়াতেই শেষ দফায় পাকিস্তান সফরের দলে মুশফিককে চায় বিসিবি। সরাসরি মুশফিকের সাথে কথা নাহলেও বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন দেশের স্বার্থে শুধু মুশফিক নয় যাকেই নির্বাচকরা অন্তর্ভূক্ত করবে তাকেই যেতে হবে। বিশেষ করে মুশফিকেরই পরিবারের আরেক সদস্য (ভায়রা ভাই) মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ দুইবার সফর করে আসাতেই চাপটা বাড়ছে অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যানের উপর।

৬ টেস্ট পর জিম্বাবুয়েকে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে জয়ের ধারায় ফিরলো বাংলাদেশ। অধিনায়ক হিসেবে মুমিনুল হকেরও প্রথম জয়। ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং প্রদর্শন করে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান মুশফিকুর রহিম। দলের অভিজ্ঞ ও অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে অধিনায়ক হিসেবে পাকিস্তানেও চান মুমিনুল হক। তবে মুশফিকের পাকিস্তানে যাওয়ার যে গুঞ্জন উঠেছে সে সম্পর্কে জানেন না মুমিনুল।

অধিনায়ক হিসেবে শুধু মুশফিক নয় বাস্তবতা জেনেই সাকিব আল হাসানকেও পাকিস্তান সফরে চান বলে জানান মুমিনুল হক, ‘একজন অধিনায়ক হিসেবে আমিতো সবসময় চাই সাকিব ভাই পর্যন্ত আসুক। যদিও সেটা সম্ভব নয়। অবশ্যই আমি মুশফিক ভাইকে চাই পাকিস্তান সিরিজে।’

গণমাধ্যমে গুঞ্জন মুশফিক যেতে পারেন পাকিস্তানে, বিসিবি সভাপতিও অনেকটা আকারে ঈঙ্গিতে বোঝাতে চাইলেন মুশফিক যেন যায়। তবে অধিনায়ক মুমিনুলের সাথে এ বিষয়ে কোন কথা হয়নি মুশফিকের, ‘আমার সাথে তো ঐ ব্যাপারে কথা হয়নি। আপনারা শুনছেন হয়তো।’

মুমিনুল হক অধিনায়ক হলেও দলে আছেন তামিম, মুশফিকের মত সিনিয়র ক্রিকেটার। অধিনায়কত্বে মাঠে তাদের পুরো সমর্থন, সাহায্য পান বলেও জানান টাইগার টেস্ট কাপ্তান, ‘আপনি কীভাবে দেখেন জানিনা, আমি ভারত সিরিজ থেকে যখন দায়িত্ব নিয়েছি তখন থেকে আমি সিনিয়রদের কাছ থেকে শতভাগ এফোর্ট পাচ্ছি। মানে আজ পর্যন্ত, সো ফার আমি সিনিয়র ক্রিকেটারদের নিয়ে খুব খুশি। এমনকি আপনি যদি মাঠে ফিল্ডিং দেখেন- অফ দ্যা ফিল্ড, অন দ্যা ফিল্ড আমি শতভাগ পাচ্ছি। ১০০ এর বেশিও বলা যায়।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

বিশ্ব একাদশের অধিনায়ক ফাফ, কোচ টম মুডি

Read Next

‘শুধু মুশফিকের বেলায় বাড়ির লোক কান্নাকাটি করবে?’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
12
Share