ধোনি-মাশরাফির পরিস্থিতিতে মিল; করণীয় জানালেন ভিমানি

মাশরাফি বিন মর্তুজা মাহেন্দ্র সিং ধোনি গৌতম ভিমানি

বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে একমাত্র টেস্টের দ্বিতীয় দিন, লাঞ্চের পর ব্যাট হাতে ক্রিজের দিকে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেন শান্ত। মিরপুরের ফাঁকা গ্যালারিতে কিছুটা পূর্ণতা এনেছে সাদা পোশাকের স্কুল ইউনিফর্ম পরিহিত ছাত্র-ছাত্রীরা। বাংলাদেশের বোলাররা উইকেট নিলে কিংবা তামিম-শান্তের ব্যাটে রান আসলেই চিৎকার দিয়ে নিজেদের অবস্থান জানান দিচ্ছিলো স্কুলপড়ুয়া কিশোররা। কিন্তু তামিম-শান্ত ক্রিজে যাওয়ার আগেই চিৎকারের মাত্রাটা যেন স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা তীব্র হল।

২৫ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সহজেই অনুসরণ করা যাচ্ছিলো আওয়াজটা কোন পাশ থেকে আসছিল। নর্দার্ন গ্যালারি হয়ে ইস্টার্ন গ্যালারির আওয়াজটা মিশে আছে এক জায়গায়, ইউনিফর্ম পরিহিত বালকদের সবার দৃষ্টিই একজনের দিকে। ইনডোরে অনুশীলন করতে যাওয়া মাশরাফিতেই বুঁদ হয়ে আছে সদ্য কৈশোরে পা দেওয়া ক্ষুদে দর্শকরা। ততক্ষণে নিশ্চিত হওয়া গেল কোন বাউন্ডারি, উইকেট ছাড়াই মিরপুরে হঠাত স্লোগান ওঠার কারণ।

দেশের ক্রিকেটে এই মুহূর্তে সবচেয়ে আলোচিত ইস্যুগুলোর একটি নিশ্চিতভাবেই ওয়ানডে দলের কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা ও তার অবসর। মাশরাফি চান এখনই অবসর নয়, বোর্ড চায় মাশরাফি নিজে অবসরের ঘোষণা দিয়ে দিক। অবসরে রাজি হলেই বোর্ড আয়োজন করবে দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা বিদায়ী অনুষ্ঠান। এমন কিছু নিতে আবার ঘোর আপত্তি দেশের অন্যতম সফলতম অধিনায়কের। খেলা উপভোগ করছেন, খেলে যাবেন। জাতীয় দলে বিবেচিত হচ্ছেন কি হচ্ছেন না তা নিয়েও নেই মাথা ব্যথা।

এরই মধ্যে বোর্ড সভাপতি দিন কয়েক আগে জানিয়ে দিলেন জিম্বাবুয়ে সিরিজই হতে যাচ্ছে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ ওয়ানডে সিরিজ। এরপর তাকে খেলতে হবে অন্য ক্রিকেটারদের মত ফিটনেস, পারফরম্যান্সের প্রমাণ দিয়ে। বিসিবি সভাপতির এমন মন্তব্যের পরও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানাননি মাশরাফি। বরং জিম্বাবুয়ে সিরিজকে পাখির চোখ করে নেমে পড়েছেন অনুশীলনে। গতকাল ওয়ানডে সিরিজের দল ঘোষণার আগেই দুপুর ১২ টা থেকে ইনডোরে অনুশীলন করেন মাশরাফি। তার সঙ্গী ছিলেন তাসকিন আহমেদ, পাশে থেকে দেখভাল করেন নতুন বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।

আর সেই অনুশীলনে যাওয়ার পথেই ক্ষুদে দর্শকদের কিংবদন্তি দর্শন, যাদের কাছে মাশরাফি মানেই ভালোবাসা, অনুপ্রেরণা। তারা ঠিক জানেনা মাশরাফির মনে কেমন অস্থিরতা চলছে, বোর্ড-মাশরাফি দু পক্ষের টানাপোড়নও নিশ্চয়ই জানা নেই স্কুল পড়ুয়া এসব শিক্ষার্থীদের। প্রায় দুই ঘন্টার অনুশীলন শেষে আবার একই পথে ফেরেন মাশরাফি, আনমনা মাশরাফি এবার ভিন্ন কারণে দৃষ্টি কাড়েন। মাঠের ঘাসের দিকে তাকিয়ে হেঁটে আসতে আসতে খেয়ালই করেননি মাঠে চলছে খেলা।

সাধারণত বোলিং প্রান্তে ঠিক উইকেট বরাবর বাউন্ডারি দড়ির জায়গাটা ওভার চলাকালীন হাঁটাচলার জন্য নিষিদ্ধ থাকে। প্রায় দুই দশক ক্রিকেট খেলা মাশরাফির নিশ্চয়ই এটা না জানার কথা নয়? অথচ আশেপাশে খেয়াল না করে ঠিকই ধীরগতির হাঁটা চালিয়ে গেছেন দেশের সফল এই অধিনায়ক। পরক্ষণেই অবশ্য মনে পড়ে কি করছেন! নিজেই মাথা নিচু করে অনেকটা বসার ভঙ্গিতে পার হন ওটুক জায়গা। যে দৃশ্যে স্পষ্ট কোন কিছু নিয়ে গভীর ভাবনায় মগ্ন ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিক।

 

View this post on Instagram

 

Mashrafe in practice today. 📷 BCB #BANvZIM

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

এরপর সময় গড়িয়েছে, মুশফিক-মুমিনুল-শান্তরা কেড়ে নিয়েছেন পূর্ণ মনোযোগ। ফাঁকে ধারাভাষ্য কক্ষের সামনে দেখা ভারতীয় ধারাভাষ্যকার গৌতম ভিমানির সাথে। সাম্প্রতিক সময়ে ঘরের মাঠে বাংলাদেশের সিরিজ, বিপিএলে নিয়মিত মুখ ভিমানি। বাংলাদেশে মাশরাফি যেমন অবসর ইস্যুতে আলোচনায় তেমনি ভারতেও ধোনি। ভারতীয় বলেই ভিমানিকে সামনে পেয়ে মাশরাফি ও ধোনির অবসর ইস্যুতে প্রশ্ন ছোঁড়ার উপলক্ষ্য পাওয়া যায়।

তার মতামতে কিছুই পরিবর্তন হবেনা, কোন কিছুতে প্রভাবও পড়বেনা। তবে ক্রিকেট বিশ্লেষক ও ধারাভাষ্যকার বলে একান্তই ব্যক্তিগত মত জানার কৌতুহলই প্রশ্ন করার মূল কারণ। আড্ডার ছলেই জানালেন মাশরাফি, ধোনির অবসর দোটানার সমাধান করতে পারে সংশ্লিষ্ট বোর্ডই।

মাশরাফিকে বিশ্ব ক্রিকেটেরই আইকন হিসেবে উল্লেখ করে ভারতীয় এই ধারাভাষ্যকার বলেন, ‘এটা একটা কঠিন প্রশ্ন। ভারতেও ধোনিকে নিয়ে এই প্রশ্ন লম্বা সময় ধরে উঠে আসছে কিন্তু কেউ এর উত্তর জানেনা। এটা আসলে ক্রিকেটারের ফিটনেসের উপর নির্ভর করে। মাশরাফি বাংলাদেশ ও বিশ্ব ক্রিকেটেরই আইকন হিসেবে খেলছে লম্বা সময় ধরে। আমি মনে করি সীমিত ওভারের খেলায় দলে তার উপস্থিতি দলকে অনুপ্রাণিত করে।’

বোর্ড-মাশরাফির সমঝোতা বৈঠকই হতে পারে অবসর ইস্যুতে সেরা সমাধান মনে করেন ভিমানি, ‘আমি মনে করি এটা পারষ্পরিক যোগাযোগের বিষয়। বোর্ডের উচিৎ তার সাথে বসা এবং বলা যে আমরা চাই তোমার অধিনায়ক হিসেবে এটিই শেষ সিরিজ হোক। আর আমরা তোমাকে বিদায়ী সংবর্ধনাও দিতে চাই।’

‘এরপর পুরোটা নির্ভর করবে মাশরাফির উপর। সে বলতে পারে যে হ্যা অধিনায়ক হিসেবে আমি শেষ সিরিজ খেলবো তবে খেলা ছাড়বো পরে। ধোনির সাথে বিসিসিআইয়ের কোন যোগাযোগই নেই। রবি শাস্ত্রী অবশ্য বলেছে আইপিএলে ভালো খেললে বিশ্বকাপে সুযোগ থাকছে ধোনির। এখন সে আইপিএলে ভালো করলে খেলবে, ভালো খেলতে না পারলে থাকবেনা।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

ভারতকে নাস্তানাবুদ করে হারাল নিউজিল্যান্ড

Read Next

অভিষেকেই আলো ছড়ালেন তামিম, রাজ্জাকের ‘৭’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
22
Share