‘আগে ওয়ানডে, এরপর টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট’

ccdm

বরাবরই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে নাজুক পারফরম্যান্স বাংলাদেশ দলের। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ছাড়া প্রস্তুতির জন্য থাকেনা অন্য কোন টুর্নামেন্টও। বিপিএলে বিদেশি ক্রিকেটারদের ভিড়ে স্থানীয় ক্রিকেটারদের সুযোগ হয়না খুব বেশি। তারকা ক্রিকেটাররা দল, একাদশ পেলেও বেশিরভাগ স্থানীয় ক্রিকেটারই বঞ্চিত হন নিজেদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অভ্যস্ত করতে।ক্রিকেটারদের এমন অভিযোগ আমলে নিয়ে গতবছর প্রথম বারের মত আয়োজন করা হয় ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি বছরও হবে টুর্নামেন্টটির দ্বিতীয় আসর।

মার্চের ১৫ তারিখ থেকে শুরু হবে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ, দলবদল অনুষ্ঠিত ৩-৫ মার্চ সময়কালে। ৫০ ওভারের প্রিমিয়ার লিগ শেষেই অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের লিগ। গতবার অবশ্য টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের পরই ৫০ ওভারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস- সিসিডিএম চেয়ারম্যান কাজী ইনাম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,

‘আজকে আমাদের সিসিডিএম মিটিং ছিল ক্লাব কর্মকর্তাদের সাথে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে। এ বছরের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) শুরু হবে ১৫ মার্চ থেকে। তার আগে আমরা দল বদলের তারিখ রেখেছি ৩, ৪ ও ৫ মার্চ। যেহেতু ঐ সময়ে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা সিলেটে খেলবে (বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে সিরিজ) সেহেতু ওখানেও একটা ডেস্ক রাখা হবে সিসিডিএমের পক্ষ থেকে যাতে প্লেয়াররা রেজিস্ট্রেশন করতে পারে।’

এবারের মৌসুম দেরি করে শুরু হচ্ছে বলে ৫০ ওভারের লিগ আগের মত থাকলেও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে কমবে দল সংখ্যা। প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ ৬ দল সুযোগ পাবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে খেলার,

‘গত বছর আমাদের এই ঐতিহ্যবাহী ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টটির আগে প্রস্তুতির জন্য একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু এবার যেহেতু মৌসুমটা দেরি করে শুরু হচ্ছে, গরম ও রোজা এসে যাবে তাই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটা সুপার লিগের পর আয়োজন করা হবে। ক্লাব ও বোর্ডের সাথে আলাপ আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ সংখ্যা আগের মতোই থাকবে তবে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটা হবে সুপার লিগের ৬ দল নিয়ে যেখানে তারা ৫ টি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে।’

a0685d8f7f46fa1d5c61d6eb6fa43f1a new thumb

সাধারণত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ভেন্যু হিসেবে বিকেএসপি ও মিরপুরকেই দেখা যায়। তবে এবার শুরুর কয়েকটি রাউন্ড ঢাকার বাইরে হবে বলে জানান সিসিডিএম চেয়ারম্যান। মূলত মিরপুরে আন্তর্জাতিক ম্যাচ ও বিকেএসপিতে সাম্প্রতিক সময়ে প্রচুর খেলা হয়েছে বলেই ভালো মানের উইকেট পেতে শুরুর কয়েক রাউন্ডে দেওয়া হচ্ছে সময়। সেক্ষেত্রে বিকল্প ভেন্যু হিসেবে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার স্টেডিয়ামকে বেছে নিয়েছে সিসিডিএম।

এদিকে গতবছর ক্রিকেটারদের আন্দোলনে একটি দাবি ছিল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের চুক্তি যেন উন্মুক্ত করা হয় আগের মত যাতে সরাসরি ক্রিকেটাররা যুক্ত হতে পারেন দলগুলোর সাথে। বিসিবি সভাপতি আগেই জানিয়েছেন মেনে নেওয়া হচ্ছে ক্রিকেটারদের এই দাবি, আজ সিসিডিএম প্রধান সেটাই নিশ্চিত করলেন। কাজী ইনাম বিকেলে সাংবাদিকদের বলেন,

‘গত দুই বছর প্লেয়ার বাই চয়েজের মাধ্যমে ক্রিকেটার অন্তর্ভূক্ত করেছে দলগুলো। এবার যেটা হচ্ছে প্লেয়ারদের যে দাবি ছিল অনেকদিন ধরে সরাসরি চুক্তিতে দলগুলোর সাথে যুক্ত হওয়রা সেটা আমাদের বোর্ড সভাপতিও কয়েকদিন আগে জানিয়ে দিয়েছেন। এবার সরাসরি চুক্তিতে ক্রিকেটাররা ক্লাবগুলোর সাথে যুক্ত হতে পারবেন।’

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বিদেশি খেলোয়াড়দের অন্তর্ভূক্তির রেওয়াজ বেশ পুরোনো। তবে ক্রিকেটারদের চাওয়া ও ক্লাব-সিসিডিএমের আলোচনার পর আসন্ন আসরে বাদ দেওয়া হচ্ছে এই নিয়ম,

‘আরেকটা বিষয় যেটা প্লেয়ারদের পক্ষ থেকে এসেছে আবার আমাদের দিক থেকেও বলা হয়েছে। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ছিল কিন্তু এনসিএল ও বিসিএলে ছিলনা সেটা হল একজন বিদেশি ক্রিকেটার চুক্তিবদ্ধ করানো, এটা একটা সংস্কৃতি হয়ে গিয়েছে। এ বছর সব স্থানীয় ক্রিকেটার নিয়ে এবারের প্রিমিয়ার লিগ অনুষ্ঠিত হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রথম দুই ওয়ানডের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা

Read Next

বিসিএল ফাইনালে এগিয়ে বিসিবি সাউথ জোন

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
16
Share