রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে শেষ হাসি হেসেছে শ্রীলঙ্কা

sl wi

হোম গ্রাউন্ডে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। শাই হোপের সেঞ্চুরিতেও রক্ষা হয়নি ক্যারিবিয়ানদের। চাপের মুখোমুখি হয়ে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার হার না মানা ৪২ রানের ইনিংসেই শেষ হাসি হাসে লঙ্কানরা। এই জয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল দিমুথ করুণারত্নের দল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেয়া ২৯০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত হয় স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার। ১৮ ওভারে আসে ১১১ রান। এরপর শুরু উইকেট উইকেট পতনের মিছিল। আভিস্কা ফার্নান্দো ও দিমুথ করুনারত্নে ফিফটি ছুঁয়ে আউট হন। তিনে নামা কুশল পেরেরা করেন ৪২ রান।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে লঙ্কানরা। ম্যাথিউস মাত্র ৫ রানেই ফিরেন প্যাভিলিয়নে। কুশল মেন্ডিস ২০, ধনঞ্জয়া সিলভা ১৮, থিসারা পেরেরা ৩২ রানের ইনিংস খেলেন। তবে চাপের মুখে দারুণ ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার ব্যাটেই জয় পায় শ্রীলঙ্কা। ম্যাচ শেষে তিনি অপরাজিত থাকেন ৪৩ রানে।

শেষ ওভারে লংকানদের প্রয়োজন ছিল ১ রান। প্রথম বলেই রান নিতে গিয়ে আউট সান্দাকান। দ্বিতীয় বলে দৌড়ে ১ রান নিয়ে দলকে জয় এনে দেন হাসারাঙ্গা। রোমাঞ্চকর এই লড়াইয়ে ম্লান হয়ে গেছে শাই হোপের সেঞ্চুরি।

এর আগে কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন লংকান অধিনায়ক করুণারত্নে। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা খারাপ করে দেন থিসারা পেরেরা। দলীয় ১০ রানেই ওপেনার সুনীল অ্যামব্রিসের বিদায়। পেরেরার বলে বোল্ড হন মাত্র ৩ রানে।

এরপর শাই হোপ আর ড্যারেন ব্রাভোর ব্যাট স্বস্তিতে ফেরে ক্যারিবিয়ানরা। এই দুইয়ের ব্যাটে আসে ৭৭ রান। ব্যক্তিগত ৩৯ রানে রান আউটের ফাঁদে পড়েন ব্রাভো। এরপর রোস্ট চেজ আসেন শাই হোপকে সঙ্গ দিতে। হোপের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দুর্দান্ত খেলেন চেজও। হোপ-চেজ জুটি গড়েন ৮৫ রানের। ৪৫ বলে ৪১ করা চেজকে বোল্ড করে ফেরান প্রদীপ।

বড় ইনিংসের কাছে যেতে পারেননি নিকোলাস পুরান (১১)। পরের ওভারে উদানার আবার আঘাত! অধিনায়ক পোলার্ডকেও দ্রুত ফিরিয়ে দেন ইসুরু উদানা। ৭৭ বলে ফিফটি করা হোপ সেঞ্চুরিতে পৌঁছান ১২৮ বলে। ইসুরু উদানার শিকার হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১১৫ রান। জেসন হোল্ডার ১২ রানে রান আউট।

শেষদিকে কেমো পল আর ওয়ালশ জুনিয়রের ব্যাটে আসে ঝড়ো ইনিংস। ১৭ বলে ৩২ কেমো পলের, ৮ বলে ২০ রানে অপরাজিত থাকেন ওয়ালশ। তাঁদের ২০ বলে ৪৯ রানের জুটির কল্যাণে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৮৯ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

লংকানদের হয়ে ৩টি উইকেট নেন ইসুরু উদানা।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ ২৮৯/৭ (৫০ ওভার) হোপ ১১৫, আমব্রিস ৩, ব্রাভো ৩৯, চেইস ৪১, পুরান ১১, পোলার্ড ৯, হোল্ডার ১২, পল ৩২*, ওয়ালশ ২০*; প্রদিপ ১০-০৪২-১, থিসারা ৭-১-৪০-১, উদানা ১০-০-৮২-৩

শ্রীলঙ্কাঃ ২৯০/৯ (৪৯.১ ওভার) আভিশকা ৫০, করুনারত্নে ৫২, পেরেরা ৪২, মেন্ডিস ২০, ম্যাথিউস ৫, ধনাঞ্জয়া ১৮, থিসারা ৩২, হাসারাঙ্গা ৪২*; হোল্ডার ১০-০-৪৪-১, পল ৮.১-০-৪৮-২, জোসেপ ১০-০-৪২-৩, ওয়ালশ ৫-০-৩৮-২

ফলাফলঃ শ্রীলঙ্কা ১ উইকেটে জয়ী

সিরিজঃ ৩ ম্যাচ সিরিজে শ্রীলঙ্কা ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে

ম্যাচ সেরাঃ ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সুবিধাজনক অবস্থানে সাউথ জোন, বিজয়-রাব্বির আক্ষেপ

Read Next

বড় জয়ে শুরু এমসিজে বুলেট ব্রাদার্সের মিশন

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
10
Share