আগের থেকে শক্তিশালী জিম্বাবুয়ে রাজত্ব করতে চায় বাংলাদেশে

সিকান্দার রাজা

সবশেষ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে ব্যাটে বলে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে জিম্বাবুয়ের অলরাউন্ডার সিকান্দার রাজা। ছোট দলের বড় তারকা বলতে যেসব ক্রিকেটারের নাম আসে জিম্বাবুইয়ান এই অলরাউন্ডার তাদেরই একজন। ১৪ টেস্টের ক্যারিয়ারে এমনিতেই ব্যাটে বলে সমান তালে করেছেন পারফর্ম। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারারে টেস্টেতো বল হাতে ক্যারিয়ার সেরা ফিগারের দেখাও পান। এবার তার লক্ষ্য বাংলাদেশ, আর সেক্ষেত্রে ২০১৮ সালে সিলেট টেস্টে পাওয়া জয়কে নিচ্ছেন অনুপ্রেরণা হিসেবে।

সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে আসা দল নিশ্চিতভাবেই জিম্বাবুয়ে। উপমহাদেশের কন্ডিশনে স্পিন মূল শক্তি হিসেবে বিবেচিত হয় সবসময়। আর বাংলাদেশের ক্ষেত্রে ব্যাপারটি যেন আরও ধ্রুব সত্য। এই স্পিন দিয়েই ঘরের মাঠে হারানো গিয়েছে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের মত দলকেও। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে স্পিন শক্তি খুব একটা কাজে আসবেনা ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন সিকান্দার রাজা।

মিরপুরে আজ (২০ ফেব্রুয়ারি) জিম্বাবুয়ের ছিল ঐচ্ছিক অনুশীলন। প্রস্তুতি ম্যাচে না খেলা সিকান্দার রাজা আজ আর নিজেকে হোটেল বন্দী করে রাখেননি। বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজের পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে নিশ্চিতভাবেই মরিয়া এই অলরাউন্ডার। অনুশীলন শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রাজা জানান তাদের কোন স্নায়ু চাপ নেই, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবশেষ টেস্ট সিরিজ দিয়েছে বাড়তি আত্মবিশ্বাস।

বাংলাদেশের স্পিনারদের সামলানো প্রসঙ্গে ৩৩ বছর বয়সী এই জিম্বাবুইয়ান অলরাউন্ডার বলেন, ‘যেভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা, কোন স্নায়ুর চাপ থাকার কথা না। স্পিনাররা আমাদের বিপক্ষে সবসময়ই ভালো করেছে। বাংলাদেশে নিয়মিত আসার কারণে আমরা বাংলাদেশি ক্রিকেটার থেকে শিখছি। আপনি যতই বলেন স্পিনাররা আমাদের বিপক্ষে অনেক উইকেট নিচ্ছে, আমরাও সময়ের সঙ্গে স্পিনের বিপক্ষে রান করা শুরু করেছি। আমরা গতবার যেই ম্যাচটা জিতেছি, সেটাই আদর্শ উদাহরণ।’

লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে হারলেও সম্ভাবনা ছিল ড্র হওয়ার। ৫ম দিনে গড়ানো ম্যাচে দ্বিতীয় ইনিংসে আরেকটু ধৈর্য্যের পরীক্ষা দিতে পারলেই হত জিম্বাবুইয়ানদের। অন্যদিকে দ্বিতীয় টেস্টেও ছিল জয়ের ভালো সম্ভাবনা কিন্তু কুশল মেন্ডিসের দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে ম্যাচ বাঁচায় লঙ্কানরা। লঙ্কানদের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সাফল্য আত্মবিশ্বাসী করছে রাজাকে।

আগের থেকেও এখন নিজেদের শক্তিশালী উল্লেখ করে এই অলরাউন্ডার যোগ করেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজটা ভালো কেটেছে আমাদের। ওরা হয়তো প্রথম টেস্ট জিতেছে। কিন্তু ম্যাচটা সহজেই ড্র হতে পারত। আর দ্বিতীয় টেস্ট কাগজে কলমে ড্র হলেও আমরা জয়ের খুব কাছে ছিলাম। আমরা আত্মবিশ্বাস নিচ্ছি শ্রীলঙ্কা সিরিজ থেকে। খুব দ্রুতই আরেকটি টেস্ট খেলায় আমাদের সুবিধা হবে। মানসিকতার দিক থেকে আমরা উন্নতি করেছি। আমরা এখন আগে থেকে আরও শক্তিশালী।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

তামিমের সাথে ওপেন করে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে সাইফের

Read Next

অনুশীলনের মত মাঠের লড়াইয়েও আসবে কি বসন্ত?

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
12
Share