জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জেতার আগেই জিতে যাওয়ার মানসিকতায় বিরক্ত পাপন

নাজমুল হাসান পাপন বিসিবি

বিশ্বকাপের পর থেকে বাংলাদেশ যেন অচেনা হয়ে পড়েছে সবার কাছে। বিশেষ করে টানা ব্যর্থ বাংলাদেশকে কোনভাবেই মেলাতে পারছেন না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিশ্বকাপের পর দলের বাজে পারফরম্যান্সে বিসিবি সভাপতি এতটাই হতাশ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠেও ভালো করার ব্যাপারে আছে তার শঙ্কা।

সবশেষ ৬ টেস্টের ৫ টিতে ইনিংস ব্যবধানে হার, ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২২৪ রানের বড় ব্যবধানে টেস্ট হার যেন আরও বেশি আত্মবিশ্বাস কমিয়েছে নাজমুল হাসান পাপনের। সবশেষ ভারত-পাকিস্তান সফরেও টেস্টে বেশ বাজেভাবে হেরেছে মুমিনুল হকের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ। অন্য ফরম্যাটেও পরিসংখ্যান কথা বলবেনা বাংলাদেশের হয়ে।

এদিকে টানা ব্যর্থতার বৃত্তে থাকা বাংলাদেশ দল আসন্ন জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে ঘুরে দাঁড়াবে এমন আশা ক্রিকেটার, নির্বাচকদের। আর এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও হচ্ছে নানা সমালোচনা, বিদ্রুপ। ক্রিকেটারদের সাথে বৈঠকের পর মিরপুরে বুধবার (১৯ জানুয়ারি) বিসিবি সভাপতি সরাসরি জানিয়েছেন সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় জিম্বাবুয়েকে হাল্কা করে নেওয়ার নেই কোন সুযোগ।

মাঠের নামার আগেই জিম্বাবুয়েকে দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়কে ভালোভাবে নেননি বিসিবি সভাপতি, বরং দেখছেন হারের শঙ্কায়। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমাদের এখন জিম্বাবুয়ে সিরিজ আছে। কদিন ধরে আমি মিডিয়াতে যেরকম কথাবার্তা শুনছি, জানিনা সত্যি মিথ্যা আমি জানিনা। এমন ভাব হচ্ছে জিম্বাবুয়ের সাথে জিতে জানি আবার কি হয়ে যাবে। আরে আগে জিতুক, জিতুক আগে। ভাবটা মনে হচ্ছে জিতেই গেছে। যেই খেলা দেখে আসতেছি তাতে করে জিতে গেছে বলার মত আমার মনের মধ্যে কোন আশা আমি দেখিনা।’

দুই দলের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় টেস্টে জিম্বাবুয়েকেই এগিয়ে রাখছেন পাপন, ‘তো আমি এটাই বলেছি তোমরা যদি হাল্কা করে নাও তবে এটা বেশ বিরক্তির হতে যাচ্ছে। কারণ জিম্বাবুয়ে জিম্বাবুয়ের জায়গায় আছে আমরা কিন্তু আমাদের আগের জায়গায় নাই। সো এদিক দিক দিয়ে চিন্তা করলে জিম্বাবুয়ে আমাদের থেকে বেশ এগিয়ে আছে অন্তত টেস্টে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স আমাদের চেয়ে ভালো।’

‘আর দেশের মাটিতে? দেশের মাটিতে তারা সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স কি করেছে কেউ যদি আমাকে জিজ্ঞেস করে আমি বলবো আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট হার। এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায়না। আফগানিস্তানের সাথে আমরা যদি হারতে পারি তাহলে জিম্বাবুয়ের সাথেও হারতে পারি।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দল হিসেবেই যেন খেলে বাংলাদেশ সেদিকেই নজর বিসিবি বসের। আর সেক্ষেত্রে অধিনায়ক মুমিনুল একা পারবেন না বলে মত তার, ‘জিম্বাবুয়ে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ এবং সেটা চিন্তা করে আমাদেরকে প্ল্যান মোতাবেক কাজ করতে হবে এবং খেলতে হবে ও এটা দল হিসেবেই খেলতে হবে। আমি একা কি করলাম, একটা ফিফটি মারলাম নাকি সেঞ্চুরি করলাম এটাতে কিছু যায় আসেনা। আমাদের দল হিসেবেই খেলতে হবে। আর এই টিম ওয়ার্কটা ক্যাপ্টেন একা করতে পারবেনা।’

‘মুমিনুল একা কিছু করতে পারবেনা, ও তো আবার একটু লাজুক প্রকৃতির, নরম। তো তামিম, মুশফিক ওদের বলেছি তোমাদের পুরোপুরি ইনভলভ হতে হবে টিমে এফোর্টটা আনার জন্য, বাকি যারা আছে তাদের চার্জ আপ করার জন্য, সারাক্ষণ সাহস দিতে হবে। ইন শা আল্লাহ আমরা ভালো করবো।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রয়াত কোচকে সেঞ্চুরি উৎসর্গ করলেন তামিম

Read Next

‘বলেছে শুধু দৌড়াও, আর তেমন কোনো টিপস দেয়নি’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
12
Share