প্রস্তুতি ম্যাচের শেষ দিনে দুই সেঞ্চুরি

আল আমিন জুনিয়র তানজিদ হাসান তামিম বিসিবি একাদশ

বিকেএসপিতে (বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান) বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নেমেছে সফরকারী জিম্বাবুয়ে। দুই দিনের ম্যাচের ২য় দিনের খুটিনাটি আপডেট এই লাইভ রিপোর্টে।

আল আমিন জুনিয়রের সেঞ্চুরিঃ

১৪৫ বলে ১৬ চারে ১০০ রান পূর্ণ করেন আল আমিন জুনিয়র। আল আমিনের সেঞ্চুরি পূর্ণ হবার সাথে সাথে শেষ হয় খেলা। ৯৯ বলে ১৪ চার ও ৫ ছক্কায় ১২৫ রান করে অপরাজিত থাকেন তানজিদ হাসান তামিম। ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে (অবিচ্ছেদ্য) আল আমিন জুনিয়র ও তানজিদ হাসান তামিম যোগ করেন ২১৯ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

বিসিবি একাদশ ২৮৮/৫ (৫৯.৩), নাইম ১১, ইমন ৩৪, জয় ১, শাহাদাত ২, আল আমিন ১০০*, আকবর ১, তামিম ১২৫*; মুম্বা ৯-১-৩৭-১, শুমা ৭-৩-২৩-১, লোভু ১১-২-৫১-২, মুতোম্বোজি ১০-০-৪৫-১।

জিম্বাবুয়ে ২৯১/৭ (৯০ ওভারে ইনিংস ঘোষণা), মাসভাউর ৪৫, কাসুজা ৭০, মুজিঙ্গানিয়ামা ১৭, আরভিন ১০, মারুমা ৩৪, চাকাভা ১৩, মুতোম্বোজি ০, মুম্বা ৫৪*, লোভু ২৫*; মুগ্ধ ১১-৩-৩৯-০, শরিফুল ১৫-৫-৪৫-১, সুমন ১৩-৪-২৯-০, বিপ্লব ১৯-১-৭৭-০, আল আমিন ১২-০-৪০-২, রিশাদ ১২-৩-২৬-০, শাহাদাত ৮-২-১৬-৩।

ফলাফলঃ ম্যাচ ড্র।

তামিমের সেঞ্চুরিঃ

৮৭ বলে ১০ চার ও ৫ ছক্কায় সেঞ্চুরি পূর্ন করলেন তানজিদ হাসান তামিম। দলের বিপদের সময় উইকেটে আসা তামিম স্বভাবসুলভ ব্যাটিং করে তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। চার মেরে ১০০ রানের গন্ডি পার করেন তিনি।

২য় দিন ২য় সেশন শেষে,

বিসিবি একাদশ ২২৭/৫ (৫২), নাইম ১১, ইমন ৩৪, জয় ১, শাহাদাত ২, আল আমিন ৭৫*, আকবর ১, তামিম ৮৯*; মুম্বা ৯-১-৩৭-১, শুমা ৬-৩-১৪-১, লোভু ১১-২-৫১-২, মুতোম্বোজি ১০-০-৪৫-১।

জিম্বাবুয়ে ২৯১/৭ (৯০ ওভারে ইনিংস ঘোষণা), মাসভাউর ৪৫, কাসুজা ৭০, মুজিঙ্গানিয়ামা ১৭, আরভিন ১০, মারুমা ৩৪, চাকাভা ১৩, মুতোম্বোজি ০, মুম্বা ৫৪*, লোভু ২৫*; মুগ্ধ ১১-৩-৩৯-০, শরিফুল ১৫-৫-৪৫-১, সুমন ১৩-৪-২৯-০, বিপ্লব ১৯-১-৭৭-০, আল আমিন ১২-০-৪০-২, রিশাদ ১২-৩-২৬-০, শাহাদাত ৮-২-১৬-৩।

আল আমিন জুনিয়রের ফিফটিঃ

তানজিদ হাসান তামিমের পর ফিফটি তুলে নিলেন প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের নেতৃত্ব দিতে থাকা আল আমিন জুনিয়র। ৮৪ বলে ৮ চারে ৫০ পূর্ণ করেন তিনি। ইতোমধ্যে তামিম ও আল আমিনের জুটিতে এসেছে ১০০ রানের বেশি।

তামিমের ঝড়ো ফিফটিঃ

৬৯ রানেই ৫ উইকেট হারানো বিসিবি একাদশ ৮৪ রান নিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে যায়। লাঞ্চ বিরতি শেষে দ্রুত রান তোলাতে মন দিয়েছেন তানজিদ হাসান তামিম। চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে ফিফটি তুলে নিয়েছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ৪০ বলে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ৫০ রান পূর্ণ করেন তিনি।

ফিরে গেলেন ইমন, আকবরঃ

২৪ তম ওভারে এসে ধৈর্যচ্যুতি হলো পারভেজ হোসেন ইমনের। ৬৬ বলে ৪ চার ও ১ ছয়ে ৩৪ রান করে আউট হলেন তিনি। অ্যাইন্সলে লোভুর বলে ক্যাচ তুলে দেন ভিক্টর নিয়াউচির হাতে। ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে বেশিক্ষণ টেকেননি আকবর আলি। ৩ বলে ১ রান করা আকবর বোল্ড হন টিনোটেন্ডা মুতোম্বোজির বলে। ৬৯ রানেই নেই বিসিবি একাদশের ৫ উইকেট। নতুন ব্যাটসম্যান হিসাবে উইকেটে এসেছেন তানজিদ হাসান তামিম।

২য় দিন প্রথম সেশন শেষে,

বিসিবি একাদশ ৮৪/৫ (২৬), নাইম ১১, ইমন ৩৪, জয় ১, শাহাদাত ২, আল আমিন ১৫*, আকবর ১, তামিম ১১*; মুম্বা ৫-১-১২-১, শুমা ৬-৩-১৪-১, লোভু ৭-১-২৫-২, মুতোম্বোজি ৩-০-১১-১।

জিম্বাবুয়ে ২৯১/৭ (৯০ ওভারে ইনিংস ঘোষণা), মাসভাউর ৪৫, কাসুজা ৭০, মুজিঙ্গানিয়ামা ১৭, আরভিন ১০, মারুমা ৩৪, চাকাভা ১৩, মুতোম্বোজি ০, মুম্বা ৫৪*, লোভু ২৫*; মুগ্ধ ১১-৩-৩৯-০, শরিফুল ১৫-৫-৪৫-১, সুমন ১৩-৪-২৯-০, বিপ্লব ১৯-১-৭৭-০, আল আমিন ১২-০-৪০-২, রিশাদ ১২-৩-২৬-০, শাহাদাত ৮-২-১৬-৩।

ব্যাট হাতে হতাশ করলেন শাহাদাতঃ

বল হাতে নিয়েছিলেন ৩ উইকেট। তবে শাহাদাত হোশেনের আসল কাজটা ছিল ব্যাট হাতে। সেই কাজটা ঠিকঠাকভাবে করতে ব্যর্থ হলেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের এই সদস্য। ২২ বল খেলে ২ রান করে শাহাদাত ফিরেছেন অ্যাইন্সলে লোভুর বলে চার্লটন শুমাকে ক্যাচ দিয়ে। ৩৯ রানেই নেই বিসিবি একাদশের ৩ উইকেট। পাঁচ নম্বরে দলের বিপর্যয় কাটাতে নেমেছেন অধিনায়ক আল আমিন জুনিয়র। একপ্রান্তে অবিচল থেকে সতীর্থদের যাওয়া আসা দেখছেন পারভেজ হোসেন ইমন।

সাজঘরে ফিরলেন নাইম, জয়ঃ

বাউন্ডারি দিয়ে শুরু করা মোহাম্মদ নাইম শেখ উইকেটে বেশি সময় কাটাতে পারলেন না। ৭ম ওভারে ১৭ বলে ২ চারে ১১ রান করে চার্ল মুম্বার বলে ক্রিস্টোফার পোফুকে ক্যাচ দেন নাইম। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামেন মাহমুদুল হাসান জয়। পরের ওভারে ব্যক্তিগত ১ রানের মাথায় সাজঘরের পথ ধরেন তিনিও। চার্লটন শুমার বলে রেজিস চাকাভাকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৫ বলে ১ রান করা জয়। চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছেন শাহাদাত হোসেন দিপু।

ওপেনিংয়ে ইমন ও নাইমঃ

মোহাম্মদ নাইম শেখ ও পারভেজ হোসেন ইমন বিসিবি একাদশের হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন। চার্ল মুম্বার করা প্রথম বলেই চার মেরে শুরু করেন নাইম শেখ। ১ম ওভার থেকে আসে ৬ রান। সিঙ্গেল নিয়ে রানের খাতা খোলেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালের অন্যতম নায়ক পারভেজ হোসেন ইমন।

আজ আর ব্যাটিংয়ে নামেনি জিম্বাবুয়েঃ

৭ উইকেটে ২৯১ রান করে ১ম দিনের খেলা শেষ করা জিম্বাবুয়ে আজ আর ব্যাট করতে নামেনি। ইনিংস ঘোষণা করে বোলিং প্রস্তুতিটা সেরে নেবার জন্য ব্যাটিং করতে পাঠিয়েছে বিসিবি একাদশকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ ১ম দিন শেষে-

জিম্বাবুয়ে ২৯১/৭ (৯০), মাসভাউর ৪৫, কাসুজা ৭০, মুজিঙ্গানিয়ামা ১৭, আরভিন ১০, মারুমা ৩৪, চাকাভা ১৩, মুতোম্বোজি ০, মুম্বা ৫৪*, লোভু ২৫*; মুগ্ধ ১১-৩-৩৯-০, শরিফুল ১৫-৫-৪৫-১, সুমন ১৩-৪-২৯-০, বিপ্লব ১৯-১-৭৭-০, আল আমিন ১২-০-৪০-২, রিশাদ ১২-৩-২৬-০, শাহাদাত ৮-২-১৬-৩।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিসিবি দুশ্চিন্তা করছে না পাকিস্তানের বোমা হামলা নিয়ে

Read Next

ভেট্টোরি ইস্যুতে টনক নড়লো বিসিবির

৩ Comments

  • রিপোর্ট এর সিস্টেম টা একদম ই বিরক্তিকর। স্কোর আপডেট এর ক্ষেত্রে এক দলের টা দেয়া এটা আরো বেশি বিরক্তিকর। একটু স্টাইলিশ করতে গিয়ে পাঠকের মন মেজাজ খারাপ করাটা নিশ্চয়ই শোভনীয় না????

    বিঃদ্রঃ আমি নিয়মিত পাঠক এবং আপনাদের পেইজের ফলোয়ার।

  • আপনার মতামতের জন্য ধন্যবাদ। এটা আসলে লাইভ রিপোর্ট। যেখানে দিনের খেলার সমস্ত আপডেটের খুটিনাটি থাকে। সর্বশেষ আপডেট টা থাকে সবার উপরে। আপনি যদি শুরু থেকে দেখতে চান তাহলে নিচ থেকে পড়া শুরু করুন।

  • এই যেমন ১ম প্যারায় শুধু তামিমের ১০০ কথা বললেন, সাথে যদি দলের রান কত হইছে সাথে তার পার্টনার এর রান কত সেটা থাকত অনেক ভাল হত, কারন ক্রিকবাজ আর ইস্পিএন আপডেট দেয় না। আপনারা আছেন বলেই স্কোর জানতে পারি।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share