সাকিব-মুশফিকদের সাথে আকবরদের পার্থক্য তাহলে এই?

জয় শাহাদাত আকবর

বিকেএসপির প্রধান ক্রিকেট কোচ মাসুদ হাসান ২২ বছর ধরে দিয়ে আসছেন দীক্ষা। মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, নাসির হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, এনামুল হক বিজয়, আফিফ হোসেনদের মত প্রতিভাবান বিকেএসপির ছাত্ররা এনে দিতে পারেননি যুব বিশ্বকাপের শিরোপা। সাকিব-মুশফিকরা না পারলেও শিরোপা এসেছে আকবর আলি, মাহমুদুল হাসান জয়দের হাত ধরে।

বিশ্বকাপ জয়ী দলের ৬ ক্রিকেটারের সুযোগ হয়েছে বিসিবি একাদশের হয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে। আকবররা বিকেএসপিতে ফিরেছেন নতুন রূপে, ম্যাচ শুরুর পর বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেছেন তাদের কোচ মাসুদ হাসান। ২০১২ সাল থেকে যার অধীনে ক্রিকেট কোচিং করেছেন আকবর-জয়-মাহমুদুলরা।

সাকিব-মুশফিক-নাসিররা না পারার কারণ জানাতে গিয়ে মাসুদ হাসান তুলে ধরেন মানসিকতার পার্থক্য। তার অধীনে কোচিং করা অনেক ব্যাচের ছাত্ররা খেলেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে পরবর্তী ক্যারিয়ারে যারা আলো ছড়িয়েছে দারুণভাবে। কিন্তু যুব বিশ্বকাপে এনে দিতে পারেননি উল্লেখযোগ্য কোন ফল।

মাসুদ হাসান বিকেএসপি

মূলত মানসিকতার পার্থক্য প্রভাব ফেলেছে উল্লেখ করে বিকেএসপির প্রধান কোচ জানান, ‘আসলে ওরকম কিছুনা। পার্থক্যটা হল ‘আমরা জিততে পারি’ যে মানসিকতা টা, এই মানসিক উন্নতিটা হয়তো ঘাটতি ছিল তখন। তারাও পারতো কিন্তু আসলে আমরাও পারি বা আমরাও জিততে পারবো, ওই লেভেল অ্যাচিভ করতে পারবো এই ধরনের মানসিকতার কাজটা হয়তো কম করেছে।’

‘এখন যারা আছে মানে আকবর আলী এদের কথাই যদি বলি, এরাতো বয়স ভিত্তিক থেকেই…ভারত আছে, পাকিস্তান আছে, শ্রীলঙ্কা আছে অসুবিধা কি? তারাও জেতার জন্য খেলে আমরাও জেতার জন্য খেলি, এই যে ভেতর থেকে কাজ করা এই যে বিষয়টা কাজ করেছে। বলা চলে টেকনিক্যাল যে বিষয়টা, প্রয়োগটা কীভাবে হবে বুঝে গেছে নিজেরাই অনেকটা।’

বিকেএসপির ইতিহাসে অন্যতম সেরা ব্যাচ হয়ে থাকবে আকবর-শামীমরা। আকবরদের লড়াকু মানসিকতার সাথে কোচদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফলই যুব বিশ্বকাপের শিরোপা। এ প্রসঙ্গে মাসুদ হাসান বলেন, ‘অন্য ব্যাচের তুলনায় এই ব্যাচের যারা ছিল এগুলোর মধ্যে লড়াকু মানসিকতা আমরা নিজেরা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।’

‘তাদের মধ্য থেকেও এসেছে, আমাদের যে কোচ ছিল তারা কাজ করেছে। বিভিন্ন দিক থেকে সম্মিলিত একটা প্রচেষ্টা কাজ করেছে তাদের পেছনে। মানে সে নিজেই বুঝে গেছে এটা আমার কাজ। যে কারণে আজকে আমরা দেখতেছি যে হ্যা এদের পারফরম্যান্সটা এভাবেই রচিত হয়েছে আরকি।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

সেমিফাইনালে সেঞ্চুরির জন্য জয় পেলেন ‘১০০ টাকা’ পুরষ্কার!

Read Next

বল হাতে দেশের মাঠে ‘এনজয়’ করতে পারছেন না শরিফুল

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
8
Share