রহস্য জাগানিয়া বিশ্রামে মাহমুদউল্লাহ!

মিনহাজুল আবেদিন নান্নু

গত কয়েকদিনে বাংলাদেশে ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় আলোচনার বিষয় টেস্ট ক্রিকেটে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আর বিবেচনায় রাখতে চায়না বিসিবি। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টেও বাদ পড়ছেন অনুমেয় ছিল আগেই। গুঞ্জন উঠেছিল কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোকে দিয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মনোযোগী হতে মাহমুদউল্লাহকে পরামর্শও দিয়েছিল বিসিবি।

আজ ঘোষিত ১৬ সদস্যের স্কোয়াডে ছিলনা মাহমুদউল্লাহর নাম। স্কোয়াড ঘোষণার পরই সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মিনহাজুল আবেদিন নান্নু দিয়েছেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের বাদ পড়ার ব্যাখ্যা। কিন্তু গুনাক্ষরেও রিয়াদের বাদ পড়াকে বাদ দেওয়া বলতে রাজি হননি মিনহাজুল আবেদিন।

লাল বলে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করেই স্কোয়াডে রিয়াদের জায়গা না পাওয়ার কারণ দেখিয়েছেন প্রধান নির্বাচক। অথচ পরের কথাতে নিজেই বলেছেন বিসিএল খেলবেন জাতীয় দলের ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। লংগার ভার্সনে বিশ্রাম দেওয়া একজনের বিসিএল খেলা নিয়েও তাই উঠেছে প্রশ্ন। কোন গোছানো ব্যাখ্যা অবশ্য ছিলনা প্রধান নির্বাচকের বক্তব্যে।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় টেস্ট দল থেকে রিয়াদের বাদ পড়াটাই হত স্বাভাবিক ব্যাখ্যা অথচ প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল সরাসরি বিশ্রামই বলছেন, ‘না না এটা (বাদ দেওয়া) না। একজন সিনিয়র প্লেয়ার আমরা চিন্তা করেছি ওকে এই সিরিজ থেকে বিশ্রাম দিয়েছি। হোম সয়েলে খেলা তাই নতুন কিছু প্লেয়ারকে আমরা ট্রাই করি। প্লাস কিছু প্লেয়ারকে আমরা পাকিস্তান ট্যুরের জন্য নিয়েছিলাম। যেটার জন্য একটা বা দুইটা টেস্ট ম্যাচ খেলেছে এমন প্লেয়ার আছে, ৫ টা টেস্ট খেলেছে। এই অভিজ্ঞতাকে আমরা কাজে লাগানোর জন্যই এটা চিন্তা করেছি।’

সবশেষ ১০ ইনিংসে ফিফটি কেবল একটি, গড় ২১! এই ১০ ইনিংসে ৩০ বা তার বেশি রান করতে পেরেছেন মোটে দুই ইনিংসে। সবশেষ পাকিস্তানের বিপক্ষে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে প্রথম ইনিংসে ২৫ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে কোন রান না করে আউট হয়েছেন নাসিম শাহের হ্যাটট্ট্রিক বলে। বিশেষ করে হ্যাটট্রিক বল জেনেও অফ স্টাম্পের বাইরের লাফিয়ে ওঠা বল যেভাবে খেলেছেন আর আউট হয়েছেন তাতে তার শট নির্বাচন নিয়েও ওঠে প্রশ্ন!

এক যুগের বেশি সময় দেশের প্রতিনিধিত্ব করা একজন ব্যাটসম্যানের টেস্ট খেলার মানসিকতা যখন সংশয়ে সাথে বোর্ডও চায় ফরম্যাট বিবেচনায় দল সাজাতে তখন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের টেস্ট ক্যারিয়ার হুমকিতে পড়াই স্বাভাবিক। এ নিয়ে দলের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোকে মাহমুদউল্লাহর সাথে আলোচনা করতেও বলা হয়েছে।

আর ওই আলোচনায় রিয়াদকে সীমিত ওভারের খেলায় মনোযোগী হতে পরামর্শই দেওয়া হয়েছে, এমন জোর গুঞ্জনই উঠেছিল। কিন্তু মিনহাজুল আবেদিন নান্নু অস্বীকার করলেন এমন কিছু, ‘অবশ্যই আমরা বিশ্রাম দিয়েছি। এটা বলে নাই (কোচ-রিয়াদের বৈঠকে অবসর প্রসঙ্গে)। অবসরের কথা বলেনাই আমাদের সাথে। আমরা ছিলাম, কি কথা হয়েছে সেটা আমরা জানি। সুতরাং এখানে এরকম কিছু হয়নি।’

জাতীয় দলের দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেট থেকে বিশ্রাম দেওয়া হলেও বিসিএলের শেষ রাউন্ডে খেলবেন মাহমুদউল্লাহ। ভবিষ্যতে টেস্টে বিবেচনায় হবে কিনা অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার দিয়েছেন তার জবাবও, ‘অবশ্যই এভেইলএবল (বিসিএলে)। এটা তো পরে আমরা চিন্তা করছি (ভবিষ্যতে টেস্ট দলে বিবেচনা)। এখন যেহেতু এই টেস্ট নিয়ে ভাবছি…।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

নান্নু জানালেন কেন ফিরলেন তাসকিন-মুস্তাফিজ, কেন সুযোগ পেলেন হাসান

Read Next

যেকারণে স্বস্তিতে আছেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
10
Share