খারাপ সময় নিয়ে ভাবছেন না শান্ত

নাজমুল হোসেন শান্ত
Vinkmag ad

বয়সভিত্তিক থেকেই তার ব্যাটিং সামর্থ্য আলাদাভাবে নজর কাড়ে, জাতীয় দলে তিন ফরম্যাটেই দেওয়া হয় সুযোগ। নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি কখনোই। আন্তর্জাতিক আঙিনায় এখনো নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে না পারা নাজমুল হোসেন শান্ত আবারও পাকিস্তান সফর দিয়ে ডাক পেলেন টেস্ট স্কোয়াডে। কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর দেওয়া গতকালকের ব্যাটিং অর্ডার মেলালে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে শান্ত’র খেলা একপ্রকার নিশ্চিতই। সামলাতে হবে তিন নম্বর পজিশনের মত গুরুত্বপূর্ণ জায়গার দায়িত্ব।

দ্বিতীয় দফায় পাকিস্তান সফরে একমাত্র টেস্ট খেলতে আজ সন্ধ্যায় দেশ ছেড়েছে মুমিনুল হকের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। বিমানবন্দরে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে কথা বলেন নাজমুল হোসেন শান্ত, নাইম হাসান, আবু জায়েদ রাহি, সৌম্য সরকার।

অতীত পরিসংখ্যান নিয়ে অবশ্য ভাবতে নারাজ নাজমুল হোসেন শান্ত, নাইম হাসান বলছেন কাজে দিয়েছে বিসিএল খেলা। ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকে থাকার মন্ত্র জপছেন সৌম্য সরকার। রুবেল, এবাদত, আল আমিনদের নিয়ে গড়া পেস বোলিং অ্যাটাক নিয়ে আশাবাদী আবু জায়েদ রাহি।

২০১৭ সালে টেস্ট অভিষেক নাজমুল হোসেন শান্ত’র। খেলেছেন দুটি টেস্ট, গড় মাত্র ১২! ৩ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে গড় ৬.৬৬, ২ ম্যাচের টি-টোয়েন্টিতে ৮! আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেকে খাপ খাওয়াতে না পারা শান্ত ঘরোয়া ও বিসিবির অধীনস্থ বিভিন্ন দলে রান করেই আবার সুযোগ পেয়েছেন জাতীয় দলে। অতীত পেছনে ফেলে সামনের দিকেই নজর শান্ত’র।

সন্ধ্যায় বিমানবন্দরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘কোচ এবং আমি আত্মবিশ্বাসী। ইন শা আল্লাহ ভালো কিছু হবে। এগুলো (অতীত পরিসংখ্যান) নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করছি না এখন। সামনে যে ম্যাচটি আছে সেটা নিয়ে চিন্তা করছি।’

সদ্য সমাপ্ত বিসিএলের প্রথম রাউন্ডে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের বিপক্ষে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের হয়ে অফ স্পিনার নাইম হাসান ইনিংসে ৬ উইকেটসহ ম্যাচে নিয়েছেন ৮ উইকেট। পাকিস্তান সফরের আগে যা বেশ কাজে দিয়েছে বলে মত তরুণ এই অফ স্পিনারের, ‘আমার লক্ষ্য থাকবে ভালো জায়গায় বোলিং করা। প্রস্তুতি আল্লাহ্‌র রহমতে অনেক ভালো। বিসিএল খেলাতে আমাদের বেশ উপকার হয়েছে।’

বিসিএলে সৌম্য সরকার ছাড়া রানের দেখা পেয়েছে স্কোয়াডে থাকা সব ব্যাটসম্যানই। তামিমের ট্রিপল সেঞ্চুরির সাথে, মুমিনুল, লিটন, মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরি। ফিফটি আছে মোহাম্মদ মিঠুন, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্তদের। নিজে খুব একটা ভালো না করলেও বাকিদের বিসিএল ফর্ম আশাবাদী করছে সৌম্যকে, ‘সবাই বিসিএলে যেভাবে খেলেছে। সবাই যদি সবার পটেনশিয়াল অনুযায়ী খেলে এবং শতভাগ মনোযোগ দিয়ে খেলে তাহলে ওখানে ভালো খেলা সম্ভব।আমার কাছে মনে হয় ব্যাটিংয়ের দিক যদি বলি, যত বেশি সময় উইকেটে থাকা যায় আমাদের সাফল্যের সম্ভাবনা তত বেশি।’

১৭ বছর পর টেস্ট খেলতে পাকিস্তান যাচ্ছে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডির উইকেট সম্পর্কে আগে থেকে ধারনা না থাকাটাই স্বাভাবিক। পাকিস্তান পৌঁছে উইকেট দেখে পরিকল্পনা সাজাবেন আবু জায়েদ রাহি। নিজেদের পেস বোলিং অ্যাটাক নিয়েও শুনিয়েছেন আশার বানী, ‘উইকেট দেখিনি। আগে যাই, পাঁচ তারিখ আর ছয় তারিখে উইকেট দেখবো তখন বুঝতে পারবো কিরকম বোলিং করতে হবে।

‘আবশ্যই চেষ্টা করবো ভালো কিছু করার জন্য। যারা পেস বোলার যাচ্ছে, রুবেল যাচ্ছে এবাদত যাচ্ছে। সবাই ভালো ছন্দে আছে। তো আমরা আশাবাদী পেস বোলিং বিভাগে ভাল কিছু হবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

টেস্ট স্কোয়াডের সদস্যরা যে যেমন করলেন বিসিএলে

Read Next

পাকিস্তানকে লজ্জায় ডুবিয়ে ফাইনালে ভারত

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
2
Share