পেস আক্রমণের দায়িত্ব নেওয়া প্রসঙ্গে সাইফউদ্দিনের ভাষ্য

মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন
Vinkmag ad

বাংলাদেশ জাতীয় দলের তরুন পেস বোলিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন পিঠের চোটে লম্বা সময় ধরে মাঠের বাইরে। পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে দীর্ঘদিন ছিলেন বিশ্রামে। সবশেষ গত সেপ্টেম্বরে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে মাঠে নেমেছিলেন। এরপর চোটের তীব্রতা বাড়ায় ইংল্যান্ডে পাঠানোর প্রস্তুতিও নিয়ে রেখেছিল বিসিবি। শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ড যেতে না হলেও সাইফউদ্দিনকে মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে প্রায় চার মাসের বেশি সময়, খেলতে পারেননি বিপিএলও।

বিসিবির ফিজিও, চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে বেশ মাঠে ফেরার অপেক্ষায় তরুণ এই পেসার। মিরপুর একাডেমি মাঠে আজ (৪ ফেব্রুয়ারি) বল হাতে ঘাম ঝরিয়েছেন লম্বা সময়। পুরদমে বোলিংয়ে ফিরতে পারা সাইফউদ্দিন জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়েই ফিরতে প্রস্তুত। নিজেকে ঝালিয়ে নিতে চলতি বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডে খেলার অনুমতিও পেয়েছেন ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতোর কাছ থেকে। ভবিষ্যত বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং আক্রমণ সামলাতেও প্রস্তুত সাইফ, দিয়েছেন তার আভাস।

বল হাতে ফিরে আসা প্রসঙ্গে ডানহাতি এই পেসার বলেন, ‘প্রায় দীর্ঘসময় পর আজকে পুরোদমে বোলিং করলাম। তো আলহামদুলিল্লাহ বেশ ভালোই। তো যেটা নিয়ে আমি চিন্তিত ছিলাম- লাইন-লেন্থ, অ্যাকুরিসি কেমন থাকবে। তো যেমন চাচ্ছিলাম সেভাবেই হচ্ছে। যেহেতু আমার হাতে এখনো এক সপ্তাহের মত সময় আছে। বিসিবির ফিজিও আমাকে বলেছে বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচটা খেলতে। শরীরের সাথে মানিয়ে নেওয়া। তো এই এক সপ্তাহে ফিটনেস আর স্কিল আরও বাড়াতে পারবো।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজ দিয়ে প্রত্যাবর্তন হওয়ার জোর সম্ভাবনা ২৩ বছর বয়সী এই পেস বোলিং অলরাউন্ডারের। ইতোমধ্যে বিসিবির মেডিকেল টিম দিয়ে দিয়েছে সবুজ সংকেতও, অপেক্ষা নির্বাচকদের সুনজরের, ‘আশা তো আছে (জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে ফেরা)। বাকিটা নির্বাচক বা টিম ম্যানেজমেন্টের উপর। আমি যতটুকু জানি, মেডিকেল টিম থেকে ছাড়পত্র দেওয়াই আছে। এখন পরবর্তী সিরিজের জন্য নির্বাচকরা আমাকে যদি বিবেচিত করে, ইন শা আল্লাহ আমি প্রস্তুত।’

হবেন পেস আক্রমণের কাণ্ডারি?

একজন পেস বলিং অলরাউন্ডারের আক্ষেপ বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের। বয়সভিত্তিক থেকে নজর কাড়া সাইফউদ্দিনে স্বপ্ন দেখা, দলে সুযোগ দিয়ে তা বাস্তবায়নের প্রচেষ্টাও। সুযোগ পেয়ে সাইফও দিনে দিনে দলের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হচ্ছেন। ভবিষ্যত বাংলাদেশ দলের পেস অ্যাটাকের হাল ধরা প্রসঙ্গে দিলেন কৌশলী উত্তর । চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চান নিজেকে মেলে ধরতে।

অনিশ্চিত ভবিষ্যত নিয়ে আগাম বলতে নারাজ সাইফউদ্দিন, ‘ভবিষ্যতের কথা বলা আসলে কষ্টকর। আগামীকাল কি হবে সেটা আমিও জানি না। তো আপতত সামনে আমাদের যে সিরিজগুলা আছে, সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে তো এটাকে সামনে রেখে আমি লম্বা সময়ের বিরতি নিয়েছি। বিপিএলে মত বড় ইভেন্টে আমি খেলিনি।’

‘তো আমার মূল টার্গেটই ছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, যেখানে নিজেকে মেলে ধরা। তো আপাতত লক্ষ্য ওটাই তারপর দিন হিসেব করে চিন্তা করবো যে আমার কি করা উচিৎ। এখন থেকে ছয় মাস মাস পর কি হবে না হবে, আমিতো বলতে পারবো না বা কেউই বলতে পারবে না। তো আমি এই জিনিসটা নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

সাইফউদ্দিনের ব্যাপারে সুখবর দিলেন রামানায়েক

Read Next

মিরাজের ইনজুরি নিয়ে তথ্য নেই

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
22
Share