তামিম-সাকিবের মতো বড় ক্রিকেটার নন বলে বিব্রত হননি মুশফিক

মুশফিকুর রহিম
Vinkmag ad

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডই বহাল থাকবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠের একমাত্র টেস্ট ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেও। অন্যদিকে কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো জানিয়েছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের পর দেশে ফিরে স্কোয়াড পুনর্বিবেচনা করবেন তারা।

মূলত পাকিস্তান সফর থেকে মুশফিকুর রহিমের নাম সরিয়ে নেওয়াটাই ঝামেলা পাকিয়ে বসেছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে ও পরে দুটি টেস্ট পাকিস্তানের বিপক্ষে। ফলে মুশফিকুর রহিমকে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে না রাখা হলেও রাখতে হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অন্যদিকে পরের টেস্টেই পাকিস্তানের বিপক্ষে তাঁকে আবার বাদ দিতে হবে স্কোয়াড থেকে।

সবমিলিয়ে কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোও চান না দল নির্বাচনে এমন অধারাবাহিকতা হোক, প্রধান নির্বাচকের ভাষ্যমতেও তার চাওয়া অনেকটা এমনই। এদিকে গুঞ্জন আছে পাকিস্তান সফর থেকে মুশফিকুর রহিমের নাম সরিয়ে নেওয়া ভালোভাবে নিতে পারেনি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও।

জিম্বাবুয়ে সিরিজে ফিরতে হলে মুশফিককে দিতে হবে প্রমাণ দেশের শীর্ষস্থানীয় এক দৈনিকে এমন মন্তব্য করে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বিতর্কে যেন ঢেলে দিলেন ঘি। অন্যদিকে হ্যামস্ট্রিং চোটে পড়ে বিসিএলের প্রথম রাউন্ড মিস করা মুশফিক বলছেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে ফিরতেই প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি, না খেলার নেই কোন কারণ।

জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ক্রিকবাজকে’ মুশফিক বলেন, ‘মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) অথবা বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ফিটনেস পরীক্ষা দেব যদি সব ঠিক থাকে। বিসিএলের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবো। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে না খেলার কোনো কারণ আমি দেখছি না। নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করছি। দলে সুযোগ পাওয়া না পাওয়া আমার হাতে নেই। তবে আমার চেষ্টা থাকবে ওদের বিপক্ষে খেলার। শুধু টেস্ট না তিন ফরম্যাটই খেলতে চাই। সুযোগ পেলে সেরাটা দিয়েই খেলবো।’

ধারাবাহিক একটি ব্যাটিং লাইআপ ধরে রাখতে মুশফিককে জিম্বাবুয়ে সিরিজে বাদ দেওয়া হতে পারে এমন আভাস কোচ, নির্বাচকদের বক্তব্যে। তবে মুশফিক নিজে বলছেন তার সাথে এখনো এমন কোন আলোচনা হয়নি। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসার পরই জানতে চাইবেন কারণ, নিবেন পরের সিরিজে ফেরার প্রস্তুতি।

দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হয়েও দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে এমন পরিস্থিতি মুশফিকুর রহিমের জন্য সত্যিই হতাশার হওয়ার কথা। তবে ‘ক্রিকবাজকে’ মি. ডিপেন্ডেবল খ্যাত এই ব্যাটসম্যান জানিয়েছেন নিজেকে সাকিব-তামিমের মত বড় ক্রিকেটার মনে করেন না বলে এমন পরিস্থিতিতে বিব্রত হচ্ছেন না, ‘আমি তামিম ও সাকিবের মত বড় ক্রিকেটার নই। আর আমি সবসময় নিজেকে ছোট ক্রিকেটার হিসেবেই ভাবি।’

‘দেখেন আমি সবসময় বলি পরবর্তী সিরিজে কীভাবে দলে সুযোগ পাবো এই নিয়েই পরিকল্পনা করি। তাই এটি আমার জন্য খুব বিব্রতকর কিছু না। এটা স্বাভাবিকভাবেই নিচ্ছি তারা যা ভাবছে তাই বলছে। আমার ফিট হওয়াটা এখানে জরুরী, বিসিএলে একটি ম্যাচ আছে (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াড চূড়ান্ত হওয়ার আগে)। আর আমি চেষ্টা করবো যেন নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যদের খুশি করতে পারি। যদি তারা মনে করে আমি দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ তাহলে তারা আমাকে পরের সিরিজে দলে নিবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ডোমিঙ্গোকে ‘১০’ জন পেসারের তালিকা দিয়েছেন গিবসন

Read Next

অজিদের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে ফিরলেন ম্যাক্সওয়েল

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
141
Share