বিশ্বকাপে অলরাউন্ড পারফরম্যান্স শো করতে চান রুমানা

1553441569122
Vinkmag ad

গতবছর নভেম্বরে পাকিস্তান সফরের পরই মাঠের বাইরে বাংলাদেশ নারী দলের অলরাউন্ডার রুমানা আহমেদ। হাঁটুর চোটে মিস করেছেন এসএ গেমসের মত গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টও। পুরোপুরি ফিট হয়ে ফিরলেন বিশ্বকাপের স্কোয়াডে। লম্বা সময় পর বিশ্বকাপ দিয়ে ফিরতে পারাটা সৌভাগ্যের বলছেন এই অলরাউন্ডার, বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপে দ্যুতি ছড়াতে চান ব্যাটে-বলে।

ফেব্রুয়ারির ২১ তারিখ থেকে পর্দা উঠতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। ২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে সালমা-রুমানারা। তবে কন্ডিশন ও পর্যাপ্ত প্রস্তুতির লক্ষ্যে সপ্তাহ দুয়েক আগেই অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী দল। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যার ফ্লাইটে দেশ ছাড়বে শামীমা-রুমানারা। ব্রিসবেনে নেমে সোজা গোলকোস্ট হবে নারী দলের গন্তব্য, মূলত সেখানেই অনুশীলন ক্যাম্প করবে তারা।

গতকাল (৩০ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় নারী দলের আনুষ্ঠানিক ফটো সেশন। ফটো সেশন শেষে সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপকালে নিজের ফিরে আসা সম্পর্কে রুমানা বলেন, ‘আসলে অনেক ভালো লাগছে কারণ অনেক টাফ সিচুয়েশন থেকে ব্যাক করছি এবং বিশ্বকাপের মত বড় আসরে যাচ্ছি নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে হচ্ছে।’

সাফল্যের খাতা খুললে বাংলাদেশ নারী দলের প্রাপ্তিটা যে খুব কম তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। সবশেষ সেরা অর্জন এসএ গেমসে সোনাজয় ও এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়া। তবে বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের মত বেশ শক্ত দলগুলো। ফলে ভালো কিছু করতে পারা বেশ কঠিনই হবে। বাংলাদেশের গ্রুপে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ছাড়াও আছে ভারত, শ্রীলঙ্কা।

প্রতিপক্ষ নিয়ে বলতে গিয়ে রুমানা জানান, ‘অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের সাথে আমরা এর আগে খেলিনি। ভারতের বিপক্ষে পরপর জিতলেও শ্রীলঙ্কার সাথেও আমরা আশা করি ভালো কিছু করতে পারবো। সো গোল বলের খেলা, আমরা চাইবো যে আমাদের সেরাটা দিতে ও ভালো খেলতে।’

‘আমরা যদি ইতিবাচকভাবে ধরি এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ তো অনেক আগে চলে গেছে। বিগত দিনে আমাদের মেয়েরা ভালো করছে এটা আশার বিষয়। আমরা জানি যে বিশ্বকাপে সব বড় বড় দল। আমরা আশা করবো যে আমাদের সবটুকু দিয়ে ভালো করার।’

টুর্নামেন্টে নিজের লক্ষ্যের কথা জানাতে গিয়ে বাংলাদেশ নারী দলের হয়ে প্রথম হ্যাটট্রিক করা লেগ স্পিনার রুমানা বলেন, ‘আসলে আমি নিজেকে অলরাউন্ডার মনে করি এবং আমি চাই আমার অলরাউন্ড পারফরম্যান্স শো করতে। ব্যাটে-বলে ভালো করাটাই আমার লক্ষ্য।’

আইসিসির বিশেষ এক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সবশেষ নারী বিগ ব্যাশে হোবার্ট হারিকেনস দলের অংশ হওয়ার সুযোগ হয় রুমানা আহমেদের। ফলে অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশন সম্পর্কে তার ধারণাটা দলের অন্যদের চাইতে মসৃণ হওয়াটাই স্বাভাবিক। রুমানাও মানছেন বিগ ব্যাশের অংশ হওয়া তার জন্য সৌভাগ্যের, দিয়েছেন উইকেট সম্পর্কে ধারণাও, ‘হ্যা কিছুদিন আগেই আমি অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েছি এবং মেলবোর্নেই গিয়েছিলাম যা আমার জন্য গুড লাক, ভালো জিনিস।’

‘আর ওখানে উইকেটগুলো ব্যাটসম্যানদের ফেভারেই। আমাদের ব্যাটসম্যানরা যেহেতু এখন কিছুটা ভালো করছে সেহেতু আমরা যদি ভালো কিছু করি বা একটা সংগ্রহ দাঁড় করাতে পারি তাহলে আমাদের বোলারদের জন্য সুবিধা হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অধিনায়কত্ব উপভোগ করেন নাজমুল হোসেন শান্ত

Read Next

দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্বলতা আগেই জানতো রাকিবুলরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share