বিসিএল দিয়েই টেস্টের প্রস্তুতি নিবেন মুমিনুলরা

মুমিনুল হক নাজমুল হোসেন শান্ত বিসিএল ট্রফি

সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞায় পড়ায় ভারত সফরের আগে হুট করে টেস্ট দলের অধিনায়কত্বের ভার ওঠে মুমিনুল হকের কাঁধে। দুই টেস্টেই ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে টিম বাংলাদেশ। কাগজে কলমে এখনো চূড়ান্ত না হলেও পাকিস্তান সফরেও টেস্ট দলের দায়িত্ব পালন করার কথা তারই। আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাওয়া বিসিএলকে পাকিস্তান সফরের প্রস্তুতি হিসেবেই নিচ্ছেন মুমিনুল হক।

তড়িগড়ির বিসিএলের ট্রফি উন্মোচন হয় আজ (৩০ জানুয়ারি)।  ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের অধিনায়ক মুমিনুল হক ও ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত দুপুর ১ টা নাগাদ ট্রফি উন্মোচন করেন। এরপর সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মুমিনুল জানান পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের আগে এমন একটি প্রস্তুতির প্রয়োজন ছিল।

দ্বিতীয় দফার পাকিস্তান সফরে ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে রাওয়ালপিন্ডিতে একটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া বিসিএল প্রথম রাউন্ড খেলে ৪ ফেব্রুয়ারি দেশ ছাড়ার কথা টাইগারদের। সম্ভাব্য অধিনায়ক মুমিনুল বিসিএল সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান, ‘সবার টেস্টের আগে একটা ভালো প্রস্তুতি দরকার ছিল। আমার কাছে মনে হয়, বিসিএলে খেললে ভালো একটা প্রস্তুতি হবে।’

স্বল্প সময়ের নোটিশে আয়োজন হতে যাওয়া বিসিএল ভালো কাজে দিবে পাকিস্তান সফরের আগে এমনটাই মনে করেন ভারত সফরের ভারপ্রাপ্ত কাপ্তান। ‘অবশ্যই কাজে দেবে। আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার আগে যেকোনো একটা টুর্নামেন্ট খেললে এটা অনেক কাজে দেয়।’

ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের হয়ে খেলবেন রুবেল হোসেন, নাইম হাসান, আবু জায়েদ রাহি, তামিম ইকবাল, তাইজুল ইসলামরা। ফলে পাকিস্তান সফরে নেতৃত্ব দিলেও মাঠের অনুশীলনটাও হয়ে যাবে মুমিনুল হকের। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় দুই দিকই শক্তিশালী। কারণ আমার কাছে ৩-৪ টা টেস্ট বোলার আছে। ৩-৪ টা টেস্ট ব্যাটসম্যানও আছে। ওভারঅল দেখতে গেলে আমার দল যথেষ্ট ব্যালান্সড।’

‘আমার মনে হয়। আমি অধিনায়ক হিসেবে জিনিসটা ভালোভাবে দেখতে পারব।  কে কীভাবে খেলে, কে কীভাবে থাকে, অ্যাটিটিউড। এটা ভালো একটা সুযোগ আমার মনে হয়।’

পাকিস্তানে টেস্টের আগে নেই কোন প্রস্তুতি ম্যাচ সে হিসেবে কেবল অনুশীলন নয় বিসিএলের বদলৌতে পাওয়া ম্যাচ অনুশীলন নিয়েও উচ্ছ্বসিত মুমিনুল। ইস্ট জোন কাপ্তান জানান, ‘আমার কাছে মনে হয় ম্যাচ অনুশীলন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এমনি অনুশীলনের চেয়ে যে ম্যাচটি হয় সেটা আমার মনে হয় হান্ড্রেডের বেশি। আপনি সারা বছর অনুশীলন করলেন, কিন্তু ম্যাচ না খেললে কোনো লাভ নেই। অনুশীলন করার চাইতে যদি ম্যাচ খেলেন সেটা অনেক কাজে দেয়।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

বিশ্বকাপে স্মার্ট ক্রিকেট খেলার লক্ষ্য সালমাদের

Read Next

স্বাগতিকদের হারিয়ে সেমিফাইনালে টাইগার যুবারা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
8
Share