বিশ্বকাপে স্মার্ট ক্রিকেট খেলার লক্ষ্য সালমাদের

সালমা খাতুন
Vinkmag ad

নারী বিশ্বকাপে এর আগে তিনবার অংশ নিয়েও কোন জয়ের মুখ দেখেনি বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন আসরে অন্তত দুই একটা ম্যাচ জিততে চায় অধিনায়ক সালমা খাতুন। কিন্তু প্রতিপক্ষ হিসেবে এবার রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ভারত ও শ্রীলঙ্কা তবুও জয়ের স্বপ্ন বাংলাদেশ কাপ্তানের।

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে সালমা খাতুনের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। আইসিসির তত্বাবধানে বিশ্বকাপের অংশ হবে ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে, ২৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে রুমানা-জাহানারাদের।

কিন্তু নিজস্ব অর্থায়নে ১৩ দিন আগেই অস্ট্রেলিয়ায় উড়াল দিচ্ছে বাঘিনীরা। মূলত কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নেওয়া ও পর্যাপ্ত প্রস্তুতির লক্ষ্যেই আগে চলে যাওয়া। আজ (৩০ জানুয়ারি) মিরপুরে হয়ে যায় স্কোয়াডে জায়গা পাওয়াদের নিয়ে আনুষ্ঠানিক ফটো সেশনও। ফটো সেশন শেষে অধিনায়ক সালমা খাতুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা তো সবাই আশা করে যাই যে ভালো ক্রিকটে খেলবো। একটা দুইটা ম্যাচ জিতবো সেটা সবার মধ্যেই থাকে । এবারও আশা করছি যে আমরা একটা দুটো ম্যাচ জিতবো এই আশা নিয়েই আমরা যাচ্ছি বিশ্বকাপে।’

প্রতিপক্ষ হিসেবে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার পাশাপাশি আছে নিউজিল্যান্ড, ভারত ও শ্রীলঙ্কা। ভারত, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা থাকলেও অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এর আগে কখনোই খেলেনি বাংলাদেশের নারীরা। ফলে লড়াইটা কতটা কঠিন হতে যাচ্ছে জানতে চাইলে সালমা বলেন, ‘অবশ্যই একটু কঠিন হবে কারণ আমি বললাম যে কোনো ম্যাচই খেলিনি ওদের সঙ্গে, ওরাও আমাদের সঙ্গে খেলেনি।’

‘তারপরও যেহেতু আমাদের গ্রুপে আছে আমরা চেষ্টা করবো আমাদের সেরাটা দেওয়ার জন্য। ওরা কি করবে সেটা ওদের ব্যাপার, আমরা এখানে থেকে যতটুকু শিখে যাচ্ছি সেটাই ওখানে গিয়ে প্রয়োগ করবো যারা ভালো খেলবে ওরাই জিতবে।’

এর আগে মুখোমুখি না হওয়ায় অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের মত একই সুবিধা পাবে বাংলাদেশও মনে করেন সালমা, ‘অবশ্য ওরাও জানে না যে আমরা কি ক্রিকেট খেলি, আমরাও ওদের সম্পর্কে জানি না। ভিডিওতে ওরা আমাদের দেখছে আমরা দেখছি এমনটা। আমার যতদূর মনে হয় মাঠেই যখন খেলবো তখন বুঝতে পারবো যে আসলে কে কার থেকে ভালো।’

নিজেদের মিশন সম্পর্কে জানাতে গিয়ে সালমা যোগ করেন, ‘অবশ্যই আমি বলবো যে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড আমাদের থেকে ভালো কিন্তু আমরা চেষ্টা করবো সেরা ক্রিকেটটা খেলার জন্য,স্মার্ট ক্রিকেট খেলার জন্য। মিশনতো অবশ্যই স্মার্ট ক্রিকেট খেলবো তবে চেষ্টা থাকবে যেন পরের বিশ্বকাপে কোয়লিফাই না খেলতে হয়। সেই মিশন নিয়েই যাচ্ছি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

তিন ফিফটিতে টাইগার যুবাদের লড়াকু সংগ্রহ

Read Next

বিসিএল দিয়েই টেস্টের প্রস্তুতি নিবেন মুমিনুলরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share