টাইগার শিবিরে একাধিক চোট শঙ্কা

ইমরুল কায়েস খালেদ আহমেদ মেহেদী হাসান মিরাজ
Vinkmag ad

এমনিতেই বাংলাদেশের টেস্ট স্কোয়াড সাজাতে হিমশিম খেতে হয়ে নির্বাচকদের। নিষেধাজ্ঞায় থাকা সাকিব আল হাসান ও নিজেকে সরিয়ে নেওয়া মুশফিকুর রহিমের না থাকাটা পাকিস্তান সফরের টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা করতে বেশ বিপাকে ফেলেছে মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও হাবিবুল বাশারকে। মরার উপর খাড়ার ঘা হয়ে কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলছে চোটে পড়া ক্রিকেটারদের তালিকা। কব্জির চোটে পড়া সাদমান ইসলামের জন্যতো স্কোয়াড ঘোষণার সময়ও বাড়ানো হয়েছে।

গতকাল (২৯ জানুয়ারি) বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরীকে পার করতে হয়েছে ব্যস্ত সময়। সাদমান ছাড়াও ইমরুল কায়েস, মেহেদী হাসান মিরাজ ও পেসার খালেদ আহমেদকে দিতে হয়েছে সুস্থ হওয়ার টোটকা। যদিও আশঙ্কাজনক অবস্থায় নেই কেউই, তবে বিসিএলের প্রথম রাউন্ড মিস করবেন ইমরুল, মিরাজ, খালেদরা।

চোটের কারণে সাদমান ইসলাম ছিলেন না বিসিএলের প্লেয়ার ড্রাফটেও। কব্জির পুরোনো জায়গায় চোট আবারও ফিরে আসায় নিতে হয়েছে ইনজেকশনও। পাকিস্তান সফরে তাঁকে পাওয়া যাবে কিনা এ নিয়ে সিদ্ধান্ত জানা যাবে দুই একদিন পরই যদিও শোনা যাচ্ছে দল ঘোষণা হতে পারে ৩১ জানুয়ারি। সাদমান ছাড়াও ইমরুল কায়েস পড়েছেন হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে। বাঁহাতি এই ওপেনারকে নিয়ে অবশ্য শঙ্কার কিছু দেখছেন না বিসিবি প্রধান চিকিৎসক।

ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের রিটেইন করা ক্রিকেটার ইমরুল কায়েসের চোট নিয়ে জানাতে গিয়ে দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘একটা হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি আছে, ওটার জন্য প্রথম ম্যাচটা (বিসিএল) অসুবিধা হতে পারে। কিন্তু ও ঠিক আছে, মাচ বেটার। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতো আমরা বলছিলাম প্রথম ম্যাচটা না খেলতে। সর্বোচ্চ একটা ম্যাচ খেলতে পারবে না। ওসব যদি চিন্তা হয় আমরা অবশ্যই ফিটনেস টেস্ট নেব ওদের। আমাকে যদি বলে ওইরকম তাহলে ফিটনেস টেস্ট নেব।’

এদিকে সময় গড়াতেই জানা যায় চোটে পড়াদের তালিকায় আছে মেহেদী হাসান মিরাজ ও খালেদ আহমেদের নামও। এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ নিজেই নিশ্চিত করেন বিসিএলে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলছেন না। পরে বিসিবি চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরীও জানান তার না খেলার সম্ভাবনাই বেশি। মূলত ডান হাতের বোলিং ফিঙ্গারে চোট মিরাজের, পুরোনো এই চোট নতুন করে ফিরে আসে বিপিএল চলাকালীনই।

এদিকে লম্বা সময় পর চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরার অপেক্ষার প্রহর গুনতে থাকা পেসার খালেদ আহমেদ পড়েছেন আবারও চোটে। সাইড স্ট্রেইন ইনজুরিতে পড়ে বিসিএল দিয়ে ফিরতে যাওয়া খালেদকে আবারও থাকতে হচ্ছে অপেক্ষায়। ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া বিসিএলে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের হয়ে খেলার কথা ডনহাতি এই পেসারের। তিনিও আছেন দেবাশীষ চৌধুরীর ৪৮ ঘন্টার পর্যবেক্ষণে।

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

মুশফিক-তামিমদের জন্য সংগ্রাম করতে হচ্ছে বিসিবিকে

Read Next

পাকিস্তান ম্যাচের পর যেখানে বেশি মনযোগ টাইগার যুবাদের

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share