মুশফিক-তামিমদের জন্য সংগ্রাম করতে হচ্ছে বিসিবিকে

সাকিব তামিম মুশফিক

নিরাপত্তা শঙ্কায় পরিবারের অনুমতি না মেলায় পাকিস্তান সফরের দল থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। প্রথম দফায় টি-টোয়েন্টি সিরিজেই তার অভাব হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে দল। আগামী মাসের শুরুতেই দ্বিতীয় দফায় একটি টেস্ট খেলতে যাবে বাংলাদেশ।

টেস্টে মুশফিককে যে আরও বেশি মিস করবে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। বিশ্বকাপের পর টানা দুই সিরিজ নিজেকে মাঠের বাইরে রাখেন তামিম ইকবাল, বিশেষ করে ভারত সফরের না থাকাটা দলকে ভুগিয়েছে মনে করেন বিসিবি সভাপতি।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ঘরের মাঠে একমাত্র টেস্ট ও ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে আগে থেকেই ছুটি নিলেও ভারত সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত একদম শেষ মুহূর্তে জানান তামিম ইকবাল। বিসিবি সভাপতি মনে করেন শেষ মুহূর্তে জানানো তামিম-মুশফিকের এমন সিদ্ধান্ত বিকল্প প্রস্তুত করতে সমস্যায় ফেলে বোর্ডকে। তাই কোন সিরিজে না খেলার ঘোষণা অন্তত ৬ মাসে জানিয়ে দিবে ক্রিকেটাররা এমনটা চাওয়া বিসিবি সভাপতির।

পাকিস্তান সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভরাডুবি, ব্যাটিং ব্যর্থতা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে আজ (২৯ জানুয়ারি) বেক্সিমকো কার্যালয়ে নাজমুল হাসান পাপন মুশফিকের পাকিস্তান সফরের না যাওয়ার সিদ্ধান্ত তুলে আনেন। মূলত দল তার সেবা মিস করেছে জানাতে গিয়েই উঠে আসে তেতো সত্য। সিরিজের আগে মুহূর্তে নিজেদের সরিয়ে নেওয়ার রেওয়াজে খুশি নন বিসিবি সভাপতি।

ভারত সফরে আগে নিষেধাজ্ঞায় পড়া সাকিবকে দিয়ে সিনিয়র ক্রিকেটারদের দল থেকে দূরে থাকা শুরু। সেই প্রসঙ্গ টানতে গিয়ে পাওন বলেন, ‘টিম ম্যানেজমেন্ট বলেন বোর্ড বলেন আমরাও কিছু বিষয় নিয়ে এখনো সংগ্রাম করছি। ভারত সফরের ঠিক আগ মুহূর্তে, বিশ্বকাপের পর যদি আপনি আসেন। তিন দিন আগে যখন আমরা জানলাম সাকিব খেলতে পারবেনা এটাতো নিঃসন্দেহে আমাদের জন্য একটি বড় ধাক্কা। বিশেষ করে ভারতের মত সফরের আগে, আমরাতো খেললামই দুটো সিরিজ ভারত, পাকিস্তান বলতে গেলে ত্রিদেশীয় সিরিজ ছাড়া।’

ভারত সফরে তামিমের সরে যাওয়ায় পরপর দুই সিরিজে ওপেনিংয়ে পরিবর্তন করতে হল উল্লেখ করে বিসিবি বস বলেন, ‘তামিম বলল যাবেনা, এটা একটা ধাক্কা। তামিম না যাওয়াটা বড় একটা ধাক্কাই। ফলে ওপেনিংয়ে আমার একজন নতুন কেউ দরকার। তো ভারত সিরিজে আমরা প্রথম নাইমকে নামালাম। তামিম যেহেতু নেই এই কম্বিনেশনটা আমরা সেট করি। কিন্তু এবার যখন আমরা পাকিস্তান যাব তামিম আবার ফেরত আসলো। তো ওপেনিংয়ে আমার আবার পরিবর্তন করতে হল।’

পাকিস্তান সিরিজে তামিম ফিরলে নিজেকে এবার সরিয়ে নেন মুশফিক। তিন দফায় পাকিস্তান সফর বলে মাঝে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজে ফিরবে মুশফিক। ফলে টানা দুই সিরিজে তার জায়গায় আসবে পরিবর্তন। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে পাকিস্তানে টেস্ট খেলতে যাওয়া বাংলাদেশে দল থাকবেনা মুশফিক। মাসের মাঝে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজে ফিরবেন এরপর এপ্রিলে আবার তাঁকে ছাড়াই পাকিস্তান উড়াল দিবে দল। ফলে তার ব্যাটিং পজিশনে পরিবর্তন এনে কম্বিনেশন সাজাতে ভুগতে হবে দলকে।

মুশফিকের পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে হ-য-ব-র-ল পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে মনে করছেন নাজমুল হাসান পাপন, ‘এখন মুশফিক বলছে সে যাবেনা। তাহলে আমার চার নম্বর পজিশন নিয়ে আবার ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে। এখন নতুন কাউকে খুঁজতে হচ্ছে। আমরা যদি আগে জানতে পারতাম তাহলে কিন্তু একটা পরিকল্পনা করা যায়। কিন্তু আগ মুহূর্তে যদি জানি তাহলে সুযোগ থাকেনা।

‘আমি একটা উদাহারণ দেই, সামনে একটা টেস্ট আছে। মুশফিকের চাইতে তো আমাদের ডিপেন্ডেবল ব্যাটসম্যান আর নেই। সো চার নম্বরে ধরেন আমরা নতুন একটা ছেলেকে নামালাম, একটা ছেলে নামবে ও কি করবে বলেন? একটা টেস্টের জন্য? একটা টেস্টের জন্য খেলা যায়? যদি সে ভালো করে সে জানে সুযোগ পাবে। আর যদি খারাপ করে তাহলেতো ওর ক্যারিয়ারই শেষ। এভাবেতো খেলা যায় না।অন্তত তিনটা ম্যাচতো তাকে (নতুন) খেলার জন্য দিতে হবে পরপর। কিন্তু তারপর আবার জিম্বাবুয়ের সাথে খেলা তখন আবার মুশফিক খেলবে। আবার তারপর পাকিস্তানে যাবো তারপর আবার চেঞ্জ।’

বারবার এত পরিবর্তন ভালোভাবে নিচ্ছেন না নাজমুল হাসান পাপন, ‘এত চেঞ্জ! এই জিনিসটা নিয়ে আমাদের চিন্তা করার সময় এসেছে। ভালো কথা কেউ যদি না যায়। কিন্তু অবশ্যই আগে থেকে জানাতে হবে। এবং নতুন কাউকে সুযোগ দিলে তাকেতো অন্তত তিন ম্যাচ সুযোগ দিতে হবে পরপর। কারণ প্রতি খেলার আগে চেঞ্জ করাটা আসলে কঠিন।’

পাকিস্তানে টি-টোয়েন্টি সিরিজেই মুশফিকের অভাব টের পেয়েছে দল, সামনে অপেক্ষা টেস্টের। টেস্টের আগে মুশফিকের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার অনুরোধ জানাবে কিনা বোর্ড জানতে চাইলে বিসিবি বস বলেন, ‘ আমি জানিনা। আসলে এটা বলা উচিৎ কিনা সেটাও আমি জানিনা। আমাদের একটা সিদ্ধান্তে আসতে হবে আসলে হঠাত করে এভাবে বললে আমাদের জন্য কঠিন হয়ে যায়। আগে থেকে জানতে হবেতো। আগে জানলে একটা পরিকল্পনা করা যায়। আগে বলতে অন্তত ৬ মাস। দুইটা তিনটা সিরিজ খেলে একতা যদি না খেলেই নতুন একতা ছেলেকেতো হঠাত এক সিরিজে পাঠানো যায়না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বড়দের কষ্ট ভোলাতে রোমাঞ্চকর জয় উপহার দিলো কিউই যুবারা

Read Next

টাইগার শিবিরে একাধিক চোট শঙ্কা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
13
Share