চোটজর্জর দলে ঘাটতি পূরণে নজর তানজিম হাসান সাকিবের

তানজিম হাসান সাকিব
Vinkmag ad

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বিবেচনায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ফেভারিট হয়েই দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে অংশ নেয়। ‘সি’ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে আকবর আলির দল। আগামী ৩০ জানুয়ারি স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেমিফাইনালের লড়াইয়ে নামবে বাংলাদেশ যুবারা।

তার আগে দুঃসংবাদ পেসার মৃত্যুঞ্জয়ের চোটে পড়ে দেশে ফিরে আসার সাথে অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার শামীম হোসেনের চোট। এরপরও সেমিফাইনালের টিকিট কাটতে স্বগতিকদের হারানোর ব্যাপারে অবশ্য আত্মবিশ্বাসী যুবা টাইগার তানজিম হাসান সাকিব।

পচেফস্ট্রুমে কোয়ার্টার ফাইনাল সামনে রেখে আজ (২৮ জানুয়ারি) অনুশীলন শেষে বাঁহাতি এই পেসার বলেন, ‘চেষ্টা করি ম্যাচের পরিস্থিতি অনুসারেই নেটে বল করতে। সুতরাং ওই হিসেবে আমি বলবো যে প্রস্তুতি ভালোই। ব্যক্তিগতভাবে যদি বলি প্রস্তুতিটা অনেক ভালো, দল হিসেবেও দেখেছি আজ অনুশীলনে সবাই বেশ ভালো ব্যাট করেছে। সবার বলই ভালো শেপে ছিল। সবাই সবার জায়গা থেকে আশা করি শতভাগ দিবে। সব মিলিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী।’

অনুশীলনে প্রতিপক্ষের দুর্বলতা নিয়ে পর্যালোচনা করা হয় উল্লেখ করে বাঁহাতি এই পেসার আরও যোগ করেন, ‘হ্যা সালাউদ্দিন স্যার প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের দুর্বল জায়গাগুলো দেখায় আমাদের সবসময়। ব্যাটসম্যানের দুর্বলতা, বোলাররা কোন দিকে বেশি বল করে, কোনদিকে সুইং বেশি দেয় এসব নিয়ে আলোচনা হয়। ম্যাচের আগে এটা আমরা করে থাকি।’

গতির ঝড়ের সাথে লাইন লেংথ, দুই মিলে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানের জন্য বেশ ভালো জবাব বাঁহাতি পেসার মৃত্যুঞ্জয়। গ্রুপ পর্বের প্রথম দুই ম্যাচ শেষেই কাঁধের পুরোন চোটে ছিলেন না পাকিস্তানের বিপক্ষে একাদশে। কিন্তু অবস্থার অবনতিতে পরে ফিরে আসতে হয়ে দেশেই। তার পরিবর্তে দেশ ছাড়েন রুয়েল মিয়া। এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে চোটে পড়েছেন স্পিনার শামীম হোসেনও।

দুজনের ঘাটতি পূওরণে বাকিদের দায়িত্ব নেওয়ার তাড়না তানজিম হাসানের। অনুশীলন শেষে এই পেসার বলেন, বাড়তি চাপ (মৃত্যুঞ্জয়, শামীমের চোট) বলতে আমাদের কামব্যাক করতে হবে। টিম হিসেবে নিয়ে নিবো, টিম হিসেবে অনেক শক্ত থাকতে হবে। আমরা জানি যে মৃত্যঞ্জয়ের মত একজন অলরাউন্ডার চোটে পড়ে দেশে চলে গেছে, শামীম ভাইও চোটে পড়েছে। সো এই হিসেবে অন্য প্লেয়ারদের এই ঘাটতিটা পুরণ করতে হবে। আমরা চেষ্টা করবো এই ঘাটতি পূরণের।’

তরুণ পেসার মৃত্যুঞ্জয়কে মিস করবে আকবর আলির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ যুব দল, তবে অভাব পূরণ করতে পারবে বাকিরা বিশ্বাস তানজিম হাসানের, ‘মৃত্যুঞ্জয় নরমালি প্রথম চেঞ্জে আসে, ওর ভালো করার একটা গুণ ছিল। ওর বিকল্প হিসেবে অরন্য খেলতে পারে, শাহীন খেলতে পারে। ওরাও বিকল্প হওয়ার মত বোলার। ওরা ওর সেরাটা দিলে অবশ্যই মৃত্যুঞ্জয়ের ঘাটতিটা পূরণ হবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

তিন ফরম্যাটে বাংলাদেশের উন্নতির পথ বাতলে দিলেন এনামুল

Read Next

কোহলি-রোহিত-ধোনির বিপক্ষে রাসেল-ম্যাক্সওয়েল-কামিন্সদের লড়াই!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
14
Share