দলে ‘৩’ জনকে মিস করেছেন ডোমিঙ্গো

রাসেল ডোমিঙ্গো মিনহাজুল আবেদিন নান্নু

বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরে যাবার আগে থেকে পাকিস্তানে পৌঁছানো পর্যন্ত আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল নিরাপত্তা। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়াবার আগ পর্যন্ত নিরাপত্তা ইস্যুই ছিলো সবার মুখে মুখে।

তবে টানা দুই ম্যাচে স্বাগতিকদের কাছে পরাজিত হয়ে নিরাপত্তা ইস্যুকে গৌণ করে ফেলেছে টাইগাররা। আলোচনায় এখন টাইগারদের হতশ্রী ব্যাটিং, কোন কোন ক্ষেত্রে বোলিং ও।

নিষেধাজ্ঞায় থাকা সাকিব আল হাসান থাকবেন না আগে থেকেই জানা ছিল। ইনজুরিতে পড়ে এখনো মাঠের ক্রিকেট খেলার অবস্থায় আসেননি পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। আর নিরাপত্তা শঙ্কায় পাকিস্তান সফরকে না বলে দিয়েছেন মুশফিকুর  রহিম। এই তিনজনকেই দারুণভাবে মিস করেছেন টাইগার কোচ।

লাহোরে দ্বিতীয় ম্যাচে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে যেয়ে টাইগার কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আমরা তিনজন ফার্স্ট চয়েজ প্লেয়ারকে দলে মিস করেছি। সাইফউদ্দিন, মুশফিকুর ও সাকিব। তবে এর সাথে সাথে এয়াট তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য নিজেদের চেনানোর সুযোগ।’

পাকিস্তানের ফাস্ট বোলারদের জন্য প্রশংসা ঝরেছে টাইগারদের হেডমাস্টারের কণ্ঠে। ফাস্ট বোলারদের ভেরিয়েশন দেখে মুগ্ধ তিনি।

‘পাকিস্তানে সবসময়ই ভালো মানের ফাস্ট বোলার থাকে, বিশেষ করে টি-টোয়েন্টিতে তাদের ভ্যারিয়েশন দেখার মতো।’

পাকিস্তানে এবারই প্রথম এসেছেন রাসেল ডোমিঙ্গো। আশে পাশে অস্ত্র সহ নিরাপত্তা কর্মী ছাড়া সবকিছুই ভালো লেগেছে রাসেল ডোমিঙ্গোর। তবে লাহোরের উইকেটকে ভালো বলতে নারাজ তিনি। এই উইকেট দেখে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের বেশ কিছু সাবেকরা। ১ম ম্যাচ শেষে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেছিলেন এরূপ উইকেট দেখে অবাক হয়েছেন তিনি।

রাসেল ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আমরা এর চেয়ে বেশি সুবিধা আশা করতে পারতাম না। আশেপাশে অনেক অস্ত্রসহ মানুষ দেখা ভালো কিছু নয়। হয়তো সামনে এটা ঠিক হবে। কিন্তু আমরা ভালোই আছি। আমি বেশ উপভোগ করেছি। এটাই আমার পাকিস্তানে প্রথমবার এবং অসাধারণ অভিজ্ঞতা। দর্শকরা খুবই ভালো কিন্তু উইকেট ভালো না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মন খারাপ হয়নি বাবর আজমের

Read Next

সৌম্য’র সাতে নামার ব্যাখ্যা দিলেন ডোমিঙ্গো

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
14
Share