বাংলাদেশ দলে বিকল্প হতে এক ঘন্টাও লাগে না!

মুশফিকুর রহিম
Vinkmag ad

নিষেধাজ্ঞায় থাকা সাকিব আলা হাসান নেই পাকিস্তান সফরে, নিরাপত্তা ইস্যুতে নিজেকে সরিয়ে নিলেন অভিজ্ঞ উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। ফলে পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ যে পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে যেতে পারছেনা নিশ্চিতই। তবে মুশফিকুর রহিম নিজে বলছেন এটা খুব একটা ভোগাবেনা দলকে, তাদের ছাড়াও বাংলাদেশ অনেক ম্যাচ জিতেছে আবার তারা দলে থাকার পরও অনেক ম্যাচ বাংলাদেশ হেরেছে। পাকিস্তান সফরে যাওয়া দলকে শুভকামনা জানানোর পাশাপাশি, তার পরিবর্তে জায়গা পাওয়া ক্রিকেটার নিজেকে মেলে ধরতে পারবে বলেও রাখছেন বিশ্বাস।

নিজের বিশ্রামের জন্য জাতীয় দলের খেলা মিস দেওয়ার পাত্র নন মুশফিকুর রহিম প্রমাণ দিয়েছেন বার বার। তবে আসন্ন পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন না সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সিরিজ চূড়ান্ত হওয়ার আগেই। ফলে সাকিব বিহীন বাংলাদেশ যে আরও দুর্বল হয়ে পড়েছে তা বলা বাহুল্য। কিন্তু মুশফিকুর রহিম নিজে মানতে নারাজ সেটা, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে দ্রুতই বিকল্প তৈরি হওয়া অসম্ভব কিছু নয় বলে জানান তিনি।

রাজশাহী রয়্যালসের কাছে হেরে বিপিএল শিরোপা অধরাই থেকে গেলো মুশফিকুর রহিমের। পর্দা নামা বিপিএল রানার আপ খুলনা টাইগার্স অধিনায়ক মুশফিককে সংবাদ সম্মেলনে বেশিরভাগ প্রশ্নের উত্তরই দিতে হয়েছে বিপিএলের বাইরের প্রসঙ্গ নিয়ে। বিশেষ করে তার পাকিস্তান সফরে না যাওয়া এবং দলের অবস্থা নিয়ে ছিল অনেক প্রশ্ন। মুশফিকের বিকল্প এই মুহূর্তে বাংলাদেশে নেই, পাকিস্তান সফরে দল তাকে মিস করবো এমন ইস্যু আসতেই মুশফিক জানান বাংলাদেশে বিকল্প তৈরিতে সময় লাগেনা, তার না খেলা খুব একটা প্রভাব ফেলবেনা দলে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ দলে রিপ্লেসমেন্ট হতে এক ঘণ্টা লাগে সময়। ব্যক্তিগত ভাবে আমার কাছে এটাই মনে হয়। সবসময় চেষ্টা করি পরবর্তী সিরিজে আমি কিভাবে থাকতে পারি, এটাই লক্ষ্য থাকে আমার। আমার কখনোই লক্ষ্য থাকে না সামনে বিশ্বকাপ, এশিয়া কাপ বা এসব। আমার পরবর্তী লক্ষ্য পাকিস্তান সিরিজের পর জিম্বাবুয়ের সাথে সিরিজ আছে, আমি সেটার জন্য প্রস্তুতি নেব।’

তার পরিবর্তে যেই সুযোগ পাবে কাজে লাগাবে এমনটাই প্রত্যাশা দেশের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানের, ‘বললাম তো বাংলাদেশে রিপ্লেসমেন্ট হতে এক ঘন্টা সময় লাগে না। অনেক প্লেয়ার আছে। অনেকেই ভালো খেলেছে। যদি বিপিএল বলেন, ভারত সফরেও অনেকে ভালো খেলেছে আমার মনে হয় সবার জন্যই একটা সুযোগ। যেই সুযোগ পাক তারা যেন সুযোগটা কাজে লাগায়। আমি যদি পরবর্তীতে দলে আসি, চেষ্টা করবো জায়গাটা ধরে রাখার।’

মাশরাফি বিন মর্তুজা খেলেন কেবল ওয়ানডে ফরম্যাট, তাও পড়ন্ত বেলায় অবসর ইস্যুতে চলছে জলঘোলা। অন্যদিকে সাকিব নেই নিষেধাজ্ঞায় পড়ে, নিরাপত্তা ইস্যুতে মুশফিকও পাকিস্তান যাচ্ছেন না। আপাত দৃষ্টিতে খর্বশক্তির বাংলাদেশ দল পাকিস্তান যাচ্ছে মনে হলেও মুশফিক দেখছেন ভিন্নভাবে, ‘ভাই ইন্ডিয়া তে তো আমি খেলেছি ভাই। কী লাভ হয়েছে? আড়াই দিনে তো দুইটা ম্যাচ হেরেছি। তিন দিন আর আড়াই দিন। আমরা পাঁচজন একইসাথে খেলা অবস্থায় কিন্তু একসাথে অনেক ম্যাচ হেরেছি। দুইদিন, আড়াই দিনে ম্যাচ হেরেছি। ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি সবই হেরেছি। আবার না থাকা অবস্থায় অনেক ম্যাচ জিতেছি। এটার মানে এই না যে কেউ থাকলে বা কেউ না থাকলে এমনটা না।’

‘এমন হতে পারে যে ভালো করার সুযোগ থাকতো। সবকিছু মিলিয়ে মনে হয় যে এটা আরেকটা সুযোগ। আমাদের দলে অনেকে নতুন ক্রিকেটার খুঁজছেন, টিম ম্যানেজমেন্টও খুঁজছেন, বাংলাদেশ ক্রিকেটও খুঁজছে অনেক নতুন ক্রিকেটার। তো আমার কাছে মনে হয় যে আমার জায়গায় যারা আসবে তাদের জন্য এটা একটা সুযোগ যে নতুন ক্রিকেটার দেখার। পাকিস্তানে পাকিস্তানের মতো দলের সাথে খেলা, আমার মনে হয় অনেক বড় চ্যালেঞ্জিং হবে। আমি সবাইকে গুড লাক জানাই সেটার জন্য। আশা করছি বাংলাদেশ দল ভালো খেলবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে শীর্ষ ‘১০’ উইকেট সংগ্রাহক

Read Next

পরিবর্তনে মত নেই মুশফিকের

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share