শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ টাই’য়ে সমাপ্তি

bangladesh under 19
Vinkmag ad

যুব বিশ্বকাপের মূল পর্ব শুরুর আগে গা গরমের ম্যাচে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের গা গরম ঠিকই হলো, কিন্তু টাইগারদের জয়ের আক্ষেপ থেকেই যাবে। শেষ ওভারের শেষ বল পর্যন্ত উত্তেজনা চলল। রানআউটে শেষতক বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটি হলো টাই!

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ শুরুর আগে ২ টি আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথমটিতে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৪৩ ওভারে স্কোরবোর্ডে ২৫০ রান জমা করে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। জবাবে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দলের রানও ২৫০। ম্যাচ টাইয়ে সমাপ্তি বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ।

২৫১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ওপেনিং জুটিতে ৬৬ রান আসে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। ৪৬ রান করা ওপেনার স্যাম ফ্যানিং রান আউটের শিকার হন।  পরবর্তী উইকেটের দেখা পায় বাংলাদেশ ২০ ওভারের পর। তানজিদ হাসানের বলে বোল্ড হন ৩৪ রান করা আরেক ওপেনার লিয়াম স্কট।

তানজিদ হাসান এখানেই থামেননি; পরের ওভারে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইন-আপে আবার আঘাত করেন। অজি স্কটের পর অধিনায়ক ম্যাকেঞ্জি হারভেকেও তানজিদ দেখিয়েছেন প্যাভিলিয়নের পথ। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ নেন তানজিদ। ৩১ বলে ১৯ রানে ম্যাকেঞ্জি ফেরার সময় অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দলের রান ১০৬।

বাংলাদেশ পরবর্তী উইকেটের দেখা পায় তৌহিদ হৃদয়ের দুর্দান্ত বোলিংয়ে।  কপার কনোলিকে মাত্র ৩ রানে রাকিবুল হাসানের হাতে ক্যাচ বানিয়ে ফেরান তৌহিদ হৃদয়। এরপর উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান প্যাট ব্রাউনের কফিনে পেরেক মারেন মোহাম্মদ শহিদ।

ব্যাটসম্যানদের এমন আসা-যাওয়ার পর ঝড়ো ইনিংস খেলেন কোরি কেলি। ২২ বলে ৩ ছয় ও ৩ চারে কেলি খেলেন ৪৪ রানের ইনিংস। তাঁকে ফিরিয়ে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি এনে দেন পেসার শরিফুল ইসলাম।

৪৩ ওভারের খেলায় ৪২ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দলের স্কোর এসে দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ২৪০ রানে। শেষ ওভারে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ১১ রান। অস্ট্রেলিয়া করেছে ১০ রান; বাংলাদেশ পেয়েছে ২ উইকেট। ম্যাচ টাই। শেষ দুই বলে ২ ব্যাটসম্যান রান-আউটে কাটা পড়েন। কিন্তু শেষ ব্যাটসম্যান দৌড়ে ১ রান নিয়ে ২ রানের জন্য প্রান্ত পরিবর্তন করতেই রান আউট হন। বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দুই দলের স্কোরই ২৫০। ম্যাচ ড্র করেই হাসিমুখে প্যাভিলিয়নে ফেরে অস্ট্রেলিয়া দল। বাংলাদেশের জয়ের আক্ষেপ।

এর আগে প্রিটোরিয়ায় এলসি ডি ভিলিয়ার্স ওভালে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক আকবর আলি।

টাইগার যুবাদের হয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন তানজিদ হাসান তামিম ও পারভেজ হোসেন ইমন। ১৫ ওভার স্থায়ী জুটিতে আসে ৭০ রান। ৩৮ বলে ৫ চারে ৩২ রান করে আউট হন তামিম। তবে ফিফটি তুলে নেন পারভেজ হোসেন ইমন। ৮২ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ে ৫২ রান করে স্বেচ্ছা অবসরে যান ইমন। এর আগে অবশ্য তিনে নেমে ১৫ রান করে আউট হন মাহমুদুল হাসান জয়।

৫ নম্বরে নেমে সুবিধা করে উঠতে পারেননি অধিনায়ক আকবর আলি। ১৬ বলে ১ চারে ১২ রান করে আউট হন আকবর। ৫ম উইকেট জুটিতে তৌহিদ হৃদয় ও শামীম হোসেন যোগ করেন ৮১ রান, তাও মাত্র ৪১ বলে। ৫৭ বলে ১ টি করে চার ও ছক্কায় ৫৩ রান করে ৫ম ব্যাটসম্যান হিসাবে আউট হন হৃদয়। ৭ এ নেমে ১১ রান করে আউট হন অভিষেক দাস।

৪৩ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৫০ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে টাইগার যুবারা। ৩৩ বলে ৩ টি করে চার ও ছক্কায় ৫৯ রান করে অপরাজিত থাকেন শামীম হোসেন। এর আগে পচেফস্ট্রুমে নর্থ ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি একাদশের বিপক্ষে অনানুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচে ৪১ বলে অপরাজিত ১০১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন শামীম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ২৫০/৬ (৪৩ ওভার), তানজিদ ৩২, ইমন ৫২ (স্বেচ্ছা অবসর), জয় ১৫, হৃদয় ৫৩, আকবর ১২, শামীম ৫৯*, অভিষেক ১১, তানজিম ০*।

অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ ২৫০/১০ (৪৩ ওভার) লিয়াম স্কট ৩৪, ফ্যানিং ৪৬, ম্যাকেঞ্জি ১৯, হারনে ৪১, কপার ৩, ব্রাউন ২১, কোরি ৪৪, তানভীর ২৩, টড ৬; শরিফুল ৪/৩৯, তানজিদ ২/২৭, শহীদ ১/১৪, তৌহিদ ১/১৫

ফলাফলঃ ম্যাচ টাই

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিসিবির সিদ্ধান্তে মাশরাফি-রিয়াদের সাধুবাদ

Read Next

আমিরের রেকর্ড গড়া বোলিংয়ে ফাইনালে খুলনা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
11
Share