মাশরাফির জায়গায় থাকলে চিন্তাও করতে পারতেন না রিয়াদ

মাশরাফি বিন মর্তুজা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ঢাকা প্লাটুন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স
Vinkmag ad

বাংলাদেশের ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার অবসর নিয়ে কম জলঘোলা হচ্ছেনা। বিশ্বকাপের পর থেকেই দফায় দফায় এসেছে ভিন্ন ভিন্ন আভাস। সবশেষ ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে বিসিবি চেয়েছে জিম্বাবুয়ের সাথে ওয়ানডে ম্যাচ আয়োজন করে মাশরাফিকে মাঠ থেকে বিদায় দিতে তবে মাশরাফি চেয়েছে আরোও সময় নিতে। বোর্ড এখনো বলছে মাশরাফি রাজি থাকলে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা বিদায়ী আয়োজন করবে। কিন্তু মাশরাফির এক কথা মাঠ থেকেই বিদায় নিতে হবে এমনটা ভাবেননা নিজে।

ক্রিকেট ভালোবাসেন, যতদিন সম্ভব খেলবেন ক্রিকেট। জাতীয় দলে সুযোগ না মিললেও ঘরোয়া লিগে থাকছেন নিয়মিতই দিয়েছেন এমন ইঙ্গিত। নির্বাচকরা তাঁকে জাতীয় দলের জন্য বিবেচনায় না নিলেও সমস্যা নেই তার। তার কাছে ক্রিকেটার মানেই জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপানো নয়। আজ (১৩ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে এলিমিনেটর হেরে চলতি বিপিএল শেষ মাশরাফির ঢাক প্লাটুনের। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনেও জানিয়েছেন কোন দল প্লেয়ার ড্রাফটে কিনলে খেলবেন পরবর্তী বিপিএলও।

একদিন আগেই খুলনার বিপক্ষে রাইলি রুশর দ্রুত গতির শট ফেরাতে গিয়ে বাঁ হাতের তালুতে চোট পেয়ে সেলাই লেগেছে ১৪ টি। অথচ এই সেলাই করা হাত নিয়েই খেলতে নেমে যান আজকের এলিমিনেটর খেলতে, ব্যাট হাতে দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করা শাদাব খানকে দিয়েছেন সঙ্গ। বল হাতে ৪ ওভারে দিয়েছেন ৩৩ রান যদিও শেষ ওভারে মার না খেলে ফিগারটা হত আরও ভালো। এক হাত দিয়ে নিয়েছেন ক্রিস গেইলের ক্যাচও। সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন তিনি নিজে হয়তো ১৪ সেলাই নিয়ে মাঠে নামার কথা ভাবতেন না।

মাশরাফির অবসর প্রসঙ্গে রিয়াদের ভাবনা জানতে চাইলে রিয়াদ বলেন, ‘আমি যেটা চিন্তা করি যে এটা সম্পূর্ণ মাশরাফি ভাইয়ের সিদ্ধান্ত, হয়তো দুই একবার উনার সাথে আমার কথা হয়েছে। কিন্তু এসব শেয়ার করার মত না কারণ এটা ব্যক্তিগত বিশ্বাসেরও একটা বিষয় আছে। তো এটা উনাকে না বলে শেয়ার করাটা ঠিক হবেনা। দিনশেষে এটা উনারই সিদ্ধান্ত।’

একজন ক্রিকেটার হিসেবে রিয়াদ অবশ্য বলছেন অবসরের সিদ্ধান্তটা সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারেরই নেওয়া উচিৎ, ‘আমরা ক্রিকেটটা শুরু করি ভালোবেসে, ক্রিকেটকে উপভোগ করি। এখন হয়তো এটা আমার পেশা হয়েছে। আমি শুরু থেকে কখনোই চিন্তা করিনি শুরু থেকে যে আমি ক্রিকেটারই হবে। আমি ভালোবাসছি, পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা করতাম আর এখন এটা আমার পেশায় পরিণত হয়েছে। তো ভালোলাগা, ভালোবাসা এরপর এটা পেশা। তো যখন আমি কারও কথায় খেলা শুরু করিনি কারও কথায় ছাড়ার পক্ষপাতিত্বও আমি করিনা।’

‘আমি যদি চিন্তা করি যে এখন আমার পক্ষে আর ক্রিকেট খেলা সম্ভব না তো আমি খেলবনা। কিন্তু আমি কারও…যেহেতু এটা আমার একান্ত নিজস্ব বিষয়, এটার দায়ভারটা আমকেই দেওয়া উচিত। আমি জিনিসটাকে এভাবেই দেখি। আমার মনেহয় উনিও জানে এতবছর ক্রিকেট খেলছে।’

এদিকে ১৪ সেলাই নিয়ে মাশরাফির মাঠে নেমে পড়ার প্রসঙ্গ টেনে রিয়াদ জানান তিনি নিজে হয়তো এমনটা নাও করতেন, ‘হ্যাটস অফ উনাকে কারণ আজকে ১৪ টা সেলাই নিয়ে উনি খেলছে যা আউটস্ট্যান্ডিং। হয়তোবা উনার জায়গা থাকলে আমি এটা চিন্তাও করতে পারতাম না। উনি খেলেছে, ভালো বোলিং করেছে, ভালো একটা ক্যাচ ধরেছে। বলটা অনেক স্পিন করছিল, গেইলের উইকেটটাও গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তো ওভারঅল উনার অবসরের বিষয়টা মাশরাফি ভাই ভালো বলতে পারবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শামীমের ঝড়ো ব্যাটিং

Read Next

বিসিবি চাইলে এখনই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিবেন মাশরাফি

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
5
Share