মুস্তাফিজ ইস্যুতে মাশরাফির কড়া জবাব

মাশরাফি মুস্তাফিজ
Vinkmag ad

সবশেষ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে ছিলেন বাংলাদেশের কাটার মাস্টার খ্যাত বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু রান দেওয়ায় উদারতা দেখানোর সাথে বেশিরভাগ উইকেটই এসেছে পুরোনো বলে, ততক্ষণে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা নিজেদের অবস্থান করে ফেলেছিল শক্ত। তারও আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে মুস্তাফিজ ৩ ম্যাচে উইকেট নিয়েছিলেন ৬ টি। বিশ্বকাপের থেকেও সেখানে ওভারপ্রতি রান দিয়েছেন বেশি।

এরপর লঙ্কা সফর হয়ে ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি, মুস্তাফিজ ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টিতে তো ছিলেন উইকেট শূন্যই। ফলে মুস্তাফিজের হয়ে কথা বলার লোকই যেন কমতে শুরু করেছিল। চলতি বিপিএলের শুরুর দিকেও ছন্দে ছিলেন না।

জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার তো বিরক্তি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেই ফেলেন, ‘আমার মনে হচ্ছে ওকে চিন্তা করতে হবে। আমরা ব্যাটসম্যানরা, বোলাররা চিন্তা করি ম্যাচ শেষে যে কী হচ্ছে। ইটস হাই টাইম ফর হিম ভালো করছি বা এসব চিন্তা না করে ব্যাটসম্যান আমাকে পড়ে ফেলছে বা আমাকে দ্বিতীয় পরিকল্পনায় যেতে হবে। কোচ হয়তো তাকে বলবে। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ক্রিকেটারদেরও বোঝা উচিত আমার কীভাবে বোলিং করা উচিত।’

 

View this post on Instagram

 

আপনি কি হাবিবুল বাশারের সঙ্গে একমত?

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

‘প্রব্লেম ফর এভ্রিওয়ান। শেষ এক বছরে সে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। কিন্তু সে খরুচে বোলার হয়ে যাচ্ছে। শেষের দিকে অনেক খরুচে হয়ে যাচ্ছে। আমাদের ডেথ বোলার কিন্তু মুস্তাফিজ। সে যদি খরুচে বোলিং করে তাহলে কিন্তু পুরো দলের ওপরেই চাপ চলে আসে। ও যদি খরুচে হয় তাহলে বাকিদের দিয়ে কভার করা মুশকিল।’

কিন্তু বিপিএল যত সামনে এগিয়েছে মুস্তাফিজ ফিরেছেন নিজের ছন্দে। ১২ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়ে আছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় সবার উপরে। যদিও দল প্লে-অফে না যাওয়ায় তাঁকে টপকে যেতে পারেন বন্ধু চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স পেসার মেহেদী হাসান রানা, রুবেল হোসেন, রবি ফ্রাইলিঙ্করা। আজ (১০ জানুয়ারী) রংপুরের শেষ ম্যাচে ঢাকা প্লাটুনকে ১১ রানে হারানো দিনে মুস্তাফিজ নেন এক উইকেট।

সংবাদ সম্মেলনে মুস্তাফিজ প্রসঙ্গ সামনে এনে নিজেই মুস্তাফিজকে নিয়ে হওয়া সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন প্লাটুন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। মুস্তাফিজের ঢাল হয়ে সামনে এসে বেশ কড়া সুরেই জবাব দিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে কাপ্তান।

সাংবাদিক কিংবা দর্শক নয় মুস্তাফিজকে নিয়ে কাজ করাদের সমালোচনাই নিতে পারেননি দেশসেরা এই পেসার, ‘যে কথাটা আমি মুস্তাফিজের ক্ষেত্রে বলেছি তাকে যত্ন করাটা খুব জরুরী। এ কথাটা সংক্ষেপে বলেছি। তাকে নিয়ে যদি সমালোচনা আমরাই করতে থাকি, আপনাদের কথা, দর্শকদের কথা আলাদা।’

‘সবাই চাইবে ভালো করুক, দর্শকরাও চাইবে ভালো করুক, ভালো না করলে সমালোচনা করবে এটা ঠিক আছে। কিন্তু আমি যখন মুস্তাফিজের দায়িত্বে আছি তখন আমি কেন মুস্তাফিজকে নিয়ে আপনাদের সামনে সমালোচনা করবো? তখন আমি মুস্তাফিজকে আগলে রাখার চেষ্টা করবো। আমার যদি মুস্তাফিজের অর্ধেকও থাকে বাংলাদেশে ফাইন, আমাকে একটা হাফ অফ মুস্তাফিজ দেখান বাংলাদেশে। থাকলে আপনি দেখেন আমাকে। সেটা নাই, তো আমরা যারা মুস্তাফিজকে তৈরি করতে চাচ্ছি… মুস্তাফিজ বিশ্বকাপে ২১ উইকেট (২০) নিয়ে এসেছে হয়তোবা ইকোনোমি রেট, অনেক কিছু থাকতে পারে। এখন এ জিনিসটা ঠিক করবো কীভাবে? ঠিক করাতো একটা উপায় আছে।’

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অফ ফর্ম কাটিয়ে কোন ক্রিকেটারের ফিরে আসাটা কষ্টকর কেন জানাতে গিয়ে মাশরাফি যোগ করেন, ‘পৃথিবীর অনেক বড় বোলারেরও খারাপ ফর্ম গিয়েছে। আমাদের দেশে কেন হচ্ছেনা? কারণ আমাদের দেশে মুস্তাফিজকে নিয়ে যারা কাজ করছে তারাও আপনাদের ভাষায় কথা বলছে, বাইরের মানুষ যেটা বলছে সেভাবেই কথা বলছে। তো নিজস্ব চিন্তা ভাবনা কই আমি মুস্তাফিজকে ঠিক করবো? মুস্তাফিজকে নিয়ে সমালোচনা করে পরেরদিন তাকে নিয়ে আবার আমি মাঠে কাজ করতে যাচ্ছি। তো মুস্তাফিজ কি মানুষ না? সে তার যে চিন্তা ভাবনা সে আপনার কাছে কীভাবে শেয়ার করবে? কারণ আপনি ২৪ ঘন্টা আগে মুস্তাফিজকে নিয়ে সমালোচনা করে আসছেন। ‘

মুস্তাফিজের সাথে যা হয়েছে মাশরাফির নিজের ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে কিনা জানতে চাইলে উত্তরে বলেন, ‘না আমার ক্ষেত্রে হয়নি। সমস্যাটা এখানেও আছে। আমার কাছে যেটা মনে হচ্ছে আমার সাথে যেটা হয়েছে অগোচরে আর মুস্তাফিজের সাথে যেটা হচ্ছে সেটা সামনে, আপনাদের সাথে এসে যারা কথা বলছে সেটাতো মুস্তাফিজ দেখছে। একটা কথা হল আপনি (সাংবাদিক) এনালাইসিস করছেন এটা ঠিক আছে কারণ আপনাদের কাজই এটা আমি সবসময় যেটা মনে করি।’

‘দর্শকরাও সেভাবে দেখবেন কারণ তারা আমাদের কাছে ভালো পারফরম্যান্স আশা করে, না হলে সমালোচনা করবে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু আমি যখন মুস্তাফিজের সাথে কাজ করছি আমি কিন্তু মুস্তাফিজের একটা অংশ। আমারতো দায়িত্ব আছে মুস্তাফিজকে ঠিক করে আনার। আমি যখন মুস্তাফিজকে নিয়ে সমালোচনা করছি তখনতো আমিও সমালোচিত হতে পারি যে তাহলে তুমি কি কাজ করছো মুস্তাফিজের সাথে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

অবসর ইস্যুতে বিস্তারিত কথা বললেন মাশরাফি

Read Next

প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগার যুবাদের বিশাল জয়

One Comment

  • খালি মুস্তাফিজ রে নিয়া চিন্তা
    বাকি রা কি বাল ফালায়
    তারা ভালো করলেই তো মুস্তাফিজ এভারেজ করলেই চলে।
    বাকিদের নিয়ে চিন্তা করুন।
    মুস্তাফিজুর যা করছে সবার থেকে ভালোই করছে।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
8
Share