প্রশংসায় ভাসিয়ে সাব্বিরের বাদ পড়ার কারণ জানালেন মালান

ডেভিড মালান সাব্বির রহমান কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স
Vinkmag ad

৯ ম্যাচে ১৫.৭৭ গড়ে রান মাত্র ১৪২, চট্টগ্রামে রংপুর রেঞ্জার্সের বিপক্ষে ৪৯ রানের ইনিংসটি না খেললে নিশ্চিতভাবে পরিসংখ্যানটা হত আরও হতশ্রী। দলের প্রয়োজনে ধুমধাড়াক্কা ইনিংস খেলার যে সুখ্যাতি আছে তার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি খেলা ইনিংসগুলোতে, স্ট্রাইক রেট কেবলই ১০০!

প্লে-অফ স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে জয়ের বিকল্প নেই এমন পরিস্থিতিতে ১০ম ম্যাচে তাই সাব্বিরকে ছাড়াই আজ মাঠে নামে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। মালান-সৌম্যের ব্যাটে চড়ে সিলেট থান্ডারের বিপক্ষে দলও পায় জয়। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে সাব্বির রহমানের প্রশংসা করার পাশাপাশি তাকে বাদ দেওয়ার কারণও জানান অধিনায়ক মালান।

বয়সভিত্তিক আর অতীত বিপিএল রেকর্ডই জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপানোর আগে টি-টোয়েন্টি বিশেষজ্ঞ তকমা সেঁটে দেয় সাবিরের গায়ে। বাংলাদেশের জার্সিতে শুরুটা খারাপও করেনি সাব্বির। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সাব্বির যেন নিজের ছায়া হয়ে আছেন। জাতীয় দল হোক কিংবা ঘরোয়া লিগ, রানের দেখা মিলছেই না সাব্বিরের ব্যাটে। চলতি বিপিএলে দলের প্রয়োজনে নিজেকে মেলে ধরতে না পারা শেষ পর্যন্ত তাকে বাদ দিতেই বাধ্য করে।

সিলেট থান্ডারের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাব্বিরকে একাদশে না দেখা যাওয়ার কারন জানতে চাইলে ইংলিশ ব্যাটসম্যান কুমিল্লা কাপ্তান ডেভিড মালান বলেন, ‘আমি সকালে কোচ ও নান্নুর (মিনহাজুল আবেদিন নান্নু) সাথে কথা বলছিলাম তারা অনুভব করলো যে সে আসলেই ভালো খেলছেনা। ফলে তারা সিদ্ধান্ত নিল তাকে বাইরে রাখার। আপনি জানেন সাব্বিরের মত একজন প্রতিভাবান ক্রিকেটারকে একাদশের বাইরে রাখা চাট্টিখানি কথা না।’

সাব্বিরের প্রতিভা মুগ্ধ করেছে দলটির কোচ ক্যারিবিয়ান সাবেক পেসার ওটিস গিবসনকে। তবে নিজের ভাবনার জগতটা পরিষ্কার নয় বলে সাফল্য পাচ্ছেনা বলেও মন্তব্য করেন। এদিকে অধিনায়ক মালানের কাছ সাব্বির কুড়িয়েছেন প্রশংসা, ‘আমি তার বিপক্ষে ও তার দলের হয়েও খেলেছি। আমি মনে করি সে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ক্রিকেটারদের একজন। এটা সত্যি দারুণ ব্যাপার হবে তাকে যদি আমরা আবার দলে ফিরে পাই। এমন টুর্নামেন্টগুলো সত্যিকার অর্থেই আপনি যেভাবে চাচ্ছেন সেভাবে যাবেনা, এটা কঠিন।’

‘আমরা বিদেশি ক্রিকেটার, ফলে চার ম্যাচ খেলে আবার দুই-তিন ম্যাচ বসে থেকে আবার তিনটা ম্যাচ খেলা এসব ব্যাপারে আমরা অভ্যস্ত। কিন্তু একজন স্থানীয় ক্রিকেটারের জন্য এটা বেশ কঠিন কারণ সে একজন ভালো ক্রিকেটার।’

বাদ পড়াকে শিক্ষা হিসেবে নিয়ে সাব্বির ফিরবেন আরও দুর্দান্ত হয়ে বিশ্বাস কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স দলপতির, ‘আশা করি সে এখান থেকে আরও ভালো ক্রিকেটারে পরিণত হবে এবং সে ভুল থেকে শিখবে। এমন নয় যে সে বাজে খেল, ব্যাপারটা হল সে রান করাতে একটু সংগ্রাম করছে। এটা হতেই পারে, আপনারা জানেন গত বছর এই সময়ে আমিও রান করতে পারছিলাম না। এটাই আসলে ক্রিকেট।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

যেখানে সালাউদ্দিনের বিপরীত অবস্থানে ফস্টার

Read Next

রোমাঞ্চ ছড়ানো টেস্টে শেষ রক্ষা হলো না দক্ষিণ আফ্রিকার

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
10
Share