মুশফিকে মুগ্ধ ফস্টারের কণ্ঠে আক্ষেপ

জেমস ফস্টার খুলনা টাইগার্স
Vinkmag ad

আজ (৩ জানুয়ারি) সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ঢাকা প্লাটুনের দেওয়া ১৭৩ রানের লক্ষ্য অনেকটা একা হাতেই তাড়া করে ফেলছিলেন মুশফিকুর রহিম। তার ৩৩ বলে ৬৪ রানের ইনিংসে ভর করে খুলনাকে শেষ পর্যন্ত থামতে হয় ১৬০ রানে। দুর্দান্ত ইনিংস খেলা মুশফিককে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন দলের কোচ জেমস ফস্টার, কণ্ঠে ঝরেছে মুশফিকের জন্য আক্ষেপও।

লক্ষ্য তাড়ায় ৪৪ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসে খুলনা। সেখান থেকে দলের বিপর্যয় কাটানোর পাশাপাশি বলের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়া প্রয়োজনীয় রানের ব্যবধানও কমান। মুশফিককে প্রশংসায় ভাসিয়ে কোচ ফস্টার বলেন, ‘বেশ দুর্দান্ত ইনিংস ছিল। অবশ্যই মুশফিককে কৃতিত্ব দিতে হয়। এমন ইনিংস টুর্নামেন্টে সে আরও খেলেছে। এমন ইনিংস ক্যারিয়ারেও সে খেলেছে অনেকবার।’

 

View this post on Instagram

 

How good was Mushfiqur Rahim today? #BPLT20 #BBPLT20 #BangabandhuBPL #BBPL #bplseason7 #DPvKT #KTvDP

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

এমন ইনিংস খেলেও পরাজিত দলে থাকা মুশফিকের জন্য লজ্জাবোধ করেন ফস্টার, ‘এটা সত্যি লজ্জাজনক এমন ইনিংস খেলেও তাকে পরাজিত দলে থাকতে হয়েছে। দেখুন সে বেশ দ্রুত গতিতে রান তুলেছে। আর এটা এত সহজও ছিলনা। ব্যতিক্রমী ব্যাটিং প্রদর্শনী ছিল। ক্রিজে সে ব্যস্ত সময় পার করেছে, প্রথম বল থেকেই রিভার্স সুইপ খেলেছে। সে বেশ ভালো টাচে আছে।’

‘খেলার ধরণ সম্পর্কে তার ভালো ধারণা আছে, স্ট্রাইক রোটেট করেছেন সাবলীলভাবে। বোলারকে দারুণভাবে পড়তে পারে আমি মনে করি টি-টোয়েন্টিতে যেটা খুব জরুরী।’

দলের সাথে হাশিম আমলা যোগ দিয়েছেন সিলেট পর্ব থেকেই। নিয়মিত দেখা গেছে অনুশীলনেও। কিন্তু একাদশে না থাকায় অনেকেই হয়েছে অবাক। কি কারণে মূলত আমলার না থাকা জানিয়েছে কোচ, ‘আমাদের কাছে মনে হয়েছে এটাই আমাদের ভারসাম্যপূর্ণ একাদশ। আর এটাই সেরা বিকল্প যে তাকে এই ম্যাচ গুলোতে খেলতে হচ্ছেনা।’

আগে ব্যাট করা ঢাকা প্লাটুনের শুরুটাও ভালো ছিলনা। ১৭ ওভার শেষে ১২০ রান করা প্লাতুন আসিফ আলির আরও একটি ঝড়ো ইনিংসে শেষ তিন ওভারে তোলে ৫২ রান। আসিফের ব্যাট থেকে আসে ১৩ বলে ৩৯। ফস্টারের চোখে ওখানেই পিছিয়ে পড়ে খুলনা, ‘আমি মনে করি আসিফ আলির ওই ইনিংসটিই ম্যাচের মূল পয়েন্ট। ওই ইনিংস দিইয়েই আপনি ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিতে পারেন। আমাদের জেতার ভালো সুযোগ তৈরি হচ্ছিল কিন্তু তার মত একজন সেটা থামিয়ে দিল। তাকে এবং ঢাকা প্লাটুনকে কৃতিত্ব দিতেই হয়।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

জোরে বল করা যাদের অনুসরণ করেন হাসান মাহমুদ

Read Next

সিলেটকে হারিয়ে প্লে-অফ স্বপ্ন টিকিয়ে রাখলো রংপুর

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share