সিলেটের উইকেট যেমন দেখলেন বোপারা

রবি বোপারা রাজশাহী রয়্যালস
Vinkmag ad

দু’দল টুর্নামেন্টে প্রথম মুখোমুখি হয় ঢাকায় দ্বিতীয় পর্বে, সিলেট পর্বের শুরুটাও তাদের ম্যাচ দিয়ে। প্রথম দেখায় রাজশাহীকে হারিয়ে প্লে-অফ স্বপ্ন বড় করা রংপুর আজ (২ জানুয়ারি) হেরেছে রবি বোপারার ব্যাটিং নৈপুন্যে। এই জয়ের ফলে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে টপকে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে উঠে এলো পদ্মাপাড়ের দলটি। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বোপারা জানিয়েছেন সিলেটের উইকেটের ধরণ ও জয়ের ধারায় ফিরে আসার অনুভূতি।

প্রথম ৬ ম্যাচে ৫ জয় পাওয়া রাজশাহী পরের দুই ম্যাচ হারে টানা। সবশেষ ম্যাচে রংপুরের কাছে হারের শোধ নিতে অবশ্য বেশি সময় নেয়নি রাজশাহী। সিলেট পর্বের প্রথম ম্যাচেই হারিয়ে দেয় ৩০ রানে। যেখানে ব্যাট হাতে অপরাজিত ৫০ রান করে অনবদ্য ভূমিকা রাখেন ইংলিশ অলরাউন্ডার রবি বোপারা, ফিল্ডিং করতে যেয়ে ধরেন দুইটি ক্যাচও।

জয়ের ধারায় ফেরার অনুভূতি জানাতে গিয়ে বোপারা বলেন, ‘এটা ভালো, আপনাকে মাথায় রাখতে হবে এটি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। এখানে আপনি প্রতি ম্যাচ জিতবেন না। আমি এমন কোন টুর্নামেন্ট খেলিনি যেখানে দল সব ম্যাচ জিতেছে। এভাবেই এগোতে হবে।’

ঢাকার প্রথম পর্বের পর চট্টগ্রামের উইকেটে হয়েছে রান বন্যা। ঢাকার দ্বিতীয় পর্বে কিছুটা পেস বান্ধব হলেও রান হয়েছে ভালোই। সিলেটে প্রথম ম্যাচে বোপারার রাজশাহী রংপুরকে ছুঁড়ে দেয় ১৮০ রানের লক্ষ্য। ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৫০ রান করা বোপারার ভালোই জানার কথা উইকেটের ধরণ সম্পর্কে, ‘উইকেট বেশ কঠিন ছিল, কিছু বল লাফাচ্ছিল আবার কিছু এদিক সেদিকও যাচ্ছে।’

‘প্রথম ১০-১৫ বল খেলা বেশ কঠিন ছিল। নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করে টিকে থাকলেই ফল আসবে। যদিও পরিকল্পনা মাঝেমাঝে ভেস্তেও যায়। আজ অবশ্য ইতিবাচকটাই ঘটেছে। আমি মনে করি শোয়েব মালিক দারুণ একটা ভীত গড়ে দিয়ে গেছে। সে সামলে নিয়েছে দারুণভাবে।’

আগের ম্যাচে বল করতে এসেই নিজের তৃতীয় বলের পর চোট নিয়ে ছিটকে যান নিয়মিত অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। আজ (২ জানুয়ারি) রংপুরের বিপক্ষে ম্যাচে ছিলেন বিশ্রামেও। রাসেলের চোটের সবশেষ পরিস্থিতি জানাতে গিয়ে বোপারা যোগ করেন, ‘মিঃ রাসেল ভালোর পথে। তার ছোটখাটো চোট সবসময়ই থাকে। তার হাঁটুতে কিছুটা সমস্যা ছিল তবে আমি নিশ্চিত সে পরের ম্যাচেই ফিরছে, হাতে দুইদিন সময়ও আছে।’

মুস্তাফিজের করা শেষ ওভার থেকে ২২ রান নিয়ে দলের মাঝারি পুজিকেই বড় পুজিতে রুপান্তরিত করেন মোহাম্মদ নওয়াজ ও রবি বোপারা। ওই ওভারকেই দলের টার্নিং পয়েন্ট মনে করছেন রাজশাহী অলরাউন্ডার, ‘হ্যা অবশ্যই (টার্নিং পয়েন্ট)। এটা দ্বিতীয় ইনিংসে আমাদের মোমেন্টাম টেনে নিতে সাহায্য করেছে।’

টুর্নামেন্টে ধারাবাহিকভাবে জমছে লিটন-আফিফের জুটি। দুজনের জুটি নিয়ে বলতে গিয়ে বোপারা যোগ করেন, ‘প্রথম ৬ ওভারে লিটন-আফিফ বেশ দুর্দান্ত করছে। বেশিরভাগ ম্যাচেই তারা শুরুতেই ৪০-৫০ রান এনে দিচ্ছে। তাদের জুটি বেশ দারুণ, আমার মনে হয় চলতি বিপিএলে অনুপাত হিসেব করলে তাদের মত জুটি কারও হয়নি। আমাদের ওপেনাররা স্বাধীনভাবে খেলার সুযোগ করে দিচ্ছে পরের ব্যাটসম্যানদের।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

বিসিবি সভাপতিকে নিয়ে যেতে পারবেন আকবর আলিরা

Read Next

রান নয়, দলের চাপ বাড়াচ্ছেন ওয়াটসন!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share