বঙ্গবন্ধু বিপিএল খেলতে আসছেন আরো ‘৩’ পাকিস্তানি

ফাহিম আশরাফ আমির ইয়ামিন আহমেদ শেহজাদ
Vinkmag ad

বিপিএলের বিশেষ আসর বঙ্গবন্ধু বিপিএলের গ্রুপ পর্বের একটা বড় অংশ শেষ হয়েছে। দলগুলো যদিও এখনো নিজেদের শিবির গোছাতে পারেনি। অনেক বিদেশি ক্রিকেটারই বিপিএলের মাঝপথে ফিরে গেছেন। আবার তাদের জায়গা পূরণে নতুন করে উড়ে আসছেন অন্যরা। বিপিএলের এবারের আসরের অংশ হতে আসছেন আরো তিন পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

২৬ বছর বয়সী আমির ইয়ামিনকে দলে টেনেছে খুলনা টাইগার্স। পেস বোলিং অলরাউন্ডার আমির ইয়ামিন পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন ৪ ওয়ানডে ও ২ টি-টোয়েন্টি। টি-টোয়েন্টিতে মোট ৭০ টি ম্যাচ খেলা আমির ইয়ামিন ১৩০.০৮ স্ট্রাইক রেটে রান করেছেন ৬২৭। ৩১.০৭ বোলিং গড়ে উইকেট পেয়েছেন ৫৪ টি।

এদিকে খুলনা টাইগার্সের হয়ে বিপিএলে অভিষেক হতে যাচ্ছে হাশিম আমলারও। চলতি বছরের আগস্টে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছেন এই প্রোটিয়া ওপেনার। দক্ষিণ আফ্রিকার ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটারদের একজন তিনি।

এর আগে বহুবার হাশিম আমলা বাংলাদেশে এসেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার জার্সি গায়ে মাঠ মাতিয়েছেন মিরপুরের হোম অফ ক্রিকেট কিংবা বন্দর নগরী চট্টগ্রামে। এবার আমলা বাংলাদেশে আসছেন বিপিএল মাতাতে। খুলনা টাইগার্স শিবিরে যুক্ত হচ্ছেন তিনি। সিলেটে খুলনা টাইগার্সের পরবর্তী ম্যাচেই (ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে) খেলার জন্য এভেইলেবল থাকবেন তিনি।

হাঁটুর চোটে পাকিস্তানে ফিরে গেছেন শহীদ আফ্রিদি। লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরাও প্লাটুন শিবির ছেড়ে ফিরেছেন শ্রীলঙ্কায়। এই দুইজনের জায়গা পূরণ করতে ঢাকা প্লাটুন দলে নিয়েছে দুই পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে। আহমেদ শেহজাদ ও ফাহিম আশরাফকে দলে ভিড়িয়েছে তারা। সিলেট পর্বের আগে পাকিস্তানে ফিরে যাবেন ওয়াহাব রিয়াজ, সিলেটে দলের সঙ্গে পুনরায় যোগ দেবেন থিসারা পেরেরা। আফ্রিদিরও ফেরার কথা রয়েছে ৬ জানুয়ারি।

এমনিতে বিপিএলে পরিচিত এক নাম পাকিস্তানের আহমেদ শেহজাদ। এর আগে বরিশাল বার্নার্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে খেলেছেন তিনি। ৭ ফিফটি ও ১ সেঞ্চুরিতে ৯৩৭ রান করা আহমেদ শেহজাদ বিপিএলের ১৭ তম সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

বিপিএলে ২৭ ম্যাচে ১৩২.৫৩ গড়ে ৯৩৭ রান করা আহমেদ শেহজাদ চার মেরেছেন ৯০ টি, ছক্কা হাঁকিয়েছেন ৩৩ টি। তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১১৩* রানের ইনিংস (২০১২ সালে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের বিপক্ষে) টুর্নামেন্টে ৭ম সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংস।

বোলিং অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফ পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন ৪ টেস্ট, ২৩ ওয়ানডে ও ২৭ টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। ২৬ ছুঁইছুঁই এই অলরাউন্ডার টি-টোয়েন্টি খেলেছেন মোট ৮৩ টি। সেখানে তার রান ৫৫৮, স্ট্রাইক রেট ১৩৫.৪৩। বল হাতে ফাহিম আশরাফের আছে ৯৩ উইকেট।

ঢাকা প্লাটুন স্কোয়াড-

দেশি- তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয়, হাসান মাহমুদ, মেহেদী হাসান, আরিফুল হক, মুমিনুল হক, শুভাগত হোম, মাশরাফি বিন মর্তুজা, রাকিবুল হাসান, জাকের আলি অনিক ও মোহাম্মদ শহীদ।

বিদেশি- থিসারা পেরেরা, লরি ইভান্স, ওয়াহাব রিয়াজ, আসিফ আলি, লুইস রিস, শহীদ আফ্রিদি, শাদাব খান আহমেদ শেহজাদ ও ফাহিম আশরাফ।

খুলনা টাইগার্স স্কোয়াড-

দেশি- মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), শফিউল ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শামসুর রহমান শুভ, মোহাম্মদ সাইফ হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, শহিদুল ইসলাম, আলিস আল ইসলাম, তানভির ইসলাম।

বিদেশি- রাইলি রুশো, রবি ফ্রাইলিঙ্ক, মোহাম্মদ আমির, নাজিবউল্লাহ জাদরান, রহমানউল্লাহ গুরবাজ, হাশিম আমলা, আমির ইয়ামিন।

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

অ্যাবটের চোটে কপাল খুললো শর্টের

Read Next

বিপিএলের ব্যাটিংবান্ধব উইকেট যেকারণে শফিউলের কাছে আশীর্বাদ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
46
Share