ব্যাটিং বান্ধব উইকেটের জন্য বিপিএলে খরুচে তাসকিন

তাসকিন আহমেদ রংপুর রেঞ্জার্স
Vinkmag ad

আগের বিপিএলে ছিলেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি, ১২ ম্যাচে ২২ উইকেট নেওয়া তাসকিনের চাইতে বেশি উইকেট নিয়েছিলেন কেবল সাকিব আল হাসান (২৩)। বিপিএলের দুর্দান্ত ওই পারফরম্যান্স দিয়ে জায়গা করে নেন নিউজিল্যান্ড সফরে। যদিও চোটের কারণে যাওয়া হয়নি নিউজিল্যান্ড সফরে। অথচ এবারের বিপিএলে বিবর্ণ তাসকিন আহমেদ, রংপুর রেঞ্জার্সের হয়ে তিন ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়ে পাননি কোন উইকেট। বিশেষ করে রান দেওয়াতে ছিলেন বেশ উদার। তাসকিন বলছেন ব্যাটিং বান্ধব উইকেটই এমন পরিণতির কারণ।

এবারের বিপিএলে ব্যাটিং বান্ধবে রাজত্ব করছে পেসারর। এখনো পর্যন্ত চলতি বিপিএলের সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় সেরা দশের ৯ জনই পেসার। এমনকি ব্যাটিং অলরাউন্ডার সৌম্য সরকারও ৭ ম্যাচে বল হাতে নিয়ে উইকেট নিয়েছেন ৯ টি। সেখানে তিন ম্যাচে ৬ ওভার বল করে ওভারপ্রতি প্রায় ১৩ করে রান দিয়েছেন তাসকিন।

বাজে পারফরম্যান্সের কারণে বাদ পড়েছেন পরের তিন ম্যাচে। ব্যাপারটিকে দুঃখজনক উল্লেখ করে তাসকিন বলেন, ‘আসলে কিছুটা দুঃখজনক, লাস্ট তিনটা ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়নি। এটা আসলে ক্যারিয়ারের অংশই। সামনে সুযোগ পেলে নিজের সেরাটা দিতে চেষ্টা করবো। এছাড়া যে তিনটা ম্যাচ খেলেছি কোন উইকেট পাইনি এটা নিয়ে আসলে মন খারাপ করে বসে থাকলে হবেনা। ট্রেনিংয়ে চেষ্টা করছি উন্নতির। সামনে সুযোগ পেলে কাজে লাগাতে পারবো আশা করছি।’

নিজের বাজে পারফরম্যান্সের জন্য কোন অজুহাত দাঁড় করাতে চান না বললেও রান খরচের কারণ হিসেবে টেনেছেন ব্যাটিং বান্ধব উইকেটকে, ‘সত্যি কথা বলতে দুই একটা লুজ বল হয়েছে ওগুলোতে বাউন্ডারি হয়েছে। চট্টগ্রামে উইকেট এমন যে ভালো বলেও বাউন্ডারি এসেছে ওভারঅল সবমিলিয়ে ব্যাটিং বান্ধব উইকেট এবারের বিপিএল, সব বোলারই মোটামুটি খরুচে। আমি চেষ্টা করবো সামনে সুযোগ পেলে যদিও এটা অজুহাত হতে পারেনা উইকেট ব্যাটিং বান্ধব। আমি আসলে নিজে ভালো করতে পারিনি এটা আমারই ব্যর্থতা।’

তাসকিনের মত বাজে অবস্থা তার দল রংপুর রেঞ্জার্সেরও। ৬ ম্যাচে জয় মাত্র একটি, পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান তলানিতে। পরবর্তী ম্যাচগুলোতে নিজেদের লক্ষ্যের কথা জানাতে গিয়ে ডানহাতি এই পেসার যোগ করেন, ‘টপ ফোরে খেলতে হলে আমাদের সব ম্যাচই জিততে হবে। পরের ম্যাচগুলোতে নিজদের সব ঢেলে দিয়ে, আক্রমণাত্মক খেলতে হবে।’

‘প্রতিটি ম্যাচই আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সেই সাথে ওয়াটসন আছে এখন তাকেও আমরা সমর্থন দিয়ে যাচ্ছি জুনিয়র যারা আছি। সেও আমাদের ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে উৎসাহ দিচ্ছে। আসলে আমরা আমাদের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করবো ভালো খেলতে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

ফিরে যাচ্ছেন কেসরিক, সিমন্স

Read Next

‘নাসুম আহমেদ নতুন ইমাদ ওয়াসিম’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
5
Share