অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে যা বলে পাঠালেন পাপন

নাজমুল হাসান পাপন বিসিবি
Vinkmag ad

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২০ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলতে আকবর আলির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ যুব দল দেশ ছাড়বে আগামী ৩ জানুয়ারি। তবে এর আগে আজ (২৬ ডিসেম্বর) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের উপস্থিতিতে আয়োজন করা হয় আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনের। ফটোসেশন শেষে বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন যুব দলকে অনুপ্রাণিত করতে কি টোটকা দিয়েছেন।

১৮ জানুয়ারি জিম্বাবুয়ে যুবাদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করবে তৌহিদ হৃদয়, তানজিদ হাসান, শরিফুল ইসলাম, মৃত্যুঞ্জয়রা। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে-বিদেশে দুর্দান্ত সাফল্য পাচ্ছে বাংলাদেশ যুবারা। নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ডের মত কন্ডিশনে দাপটের সঙ্গে খেলে আসায় আসন্ন বিশ্বকাপে তাদের নিয়ে স্বপ্নের পরিধিটাও বেশ বড় ভক্ত-সমর্থকদের মত বিসিবি সভাপতিরও।

 

View this post on Instagram

 

Bangladesh U-19 squad with BCB president at Sher-E-Bangla national cricket stadium. #u19 #u19worldcup #Bangladesh

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সাথে আলাপে কি কথা বার্তা হয়েছে আর কি ধরণের পরামর্শই আকবর আলির দলকে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি জানতে চাইলে বলেন, ‘ওদের এটাই বলেছি আগে কি হয়েছে সেটা মানুষ মনে রাখে না। এখন কি হচ্ছে সেটাই বড় কথা। তারা কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বেশ ভালো ক্রিকেট খেলছে। তারা অনেক ভালো ফলাফলও পেয়েছে। এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।’

সেমি ফাইনালে উঠলে প্রথমবারের মত দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন নাজমুল হাসান পাপন, ‘আমার দৃঢ় বিশ্বাস দক্ষিণ আফ্রিকাতেও ওরা ভালো করবে ওদের এই ক্ষমতা আছে। কয়েকটা ছেলে তো অসাধারণ খেলা খেলছে এবং অনেক বেশি পোটেনশিয়াল। ওদের বলেছি আজ পর্যন্ত আমি দক্ষিণ আফ্রিকা যাইনি। এমনকি জাতীয় দলের জন্যও না। কিন্তু ওরা সেমিফাইনালে উঠলে যাবো।’

২০১৯ বছরটি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং ও কঠিন গেলেও অনূর্ধ্ব-১৯ দল ছিল ফর্মের তুঙ্গে। যুবাদের প্রশংসায় ভাসাতে গিয়ে বিসিবি সভাপতি যোগ করেন, ‘২০২০ তো আমি আগেই বলেছি অসম্ভব কঠিন। সবচেয়ে কঠিন। গত চার পাঁচ বছরে যা সফলতা এসেছে সেটা যদি আপনারা দেখেন এর বেশীরভাগই কিন্তু দেশে। এখন তো বেশিরভাগ খেলাই হচ্ছে বাইরে। এটা একটা বিরাট চ্যালেঞ্জ। যেখানে আমাদের পারফরম্যান্স সবচেয়ে খারাপ হয় বাইরে গেলে।’

‘আমি একটা জিনিস নিয়ে বড় আশাবাদী যে এই জায়গাটা বদলাবে এবং বদলাচ্ছে। এটা হচ্ছে আমাদের অনূর্ধ্ব-১৯ দল যারা বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে। এর আগে আমরা যতগুলো দল পাঠিয়েছি, প্রস্তুতির বিচারে এর চেয়ে ভালো দল আগে পাঠাতে পারিনি আমরা। ওদের বিদেশে অনেক অভিজ্ঞতা আছে। ওরা ইংল্যান্ডে তাদের বিপক্ষে ২-০ তে জিতেছে, নিউজিল্যান্ডে ৪-১ এ জিতেছে। ওসব কন্ডিশনে ওরা খেলেছে। সেদিক দিয়ে যদি আমরা বলি ওরা ভালো করছে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

এখনো প্লে-অফ খেলার স্বপ্ন দেলপোর্তের

Read Next

যে কারণে এশিয়া একাদশের হয়ে খেলবেনা পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share