বিশ্বকাপের জন্য বিপিএলকেই টার্গেট করছেন হাবিবুল বাশার

হাবিবুল বাশার সুমন

বিসিবির নিজস্ব অর্থায়ন ও ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আসন্ন বঙ্গবন্ধু বিপিএল। বেশ আগে থেকেই বিসিবির তরফ থেকে বলা হচ্ছে দেশি ক্রিকেটারদের প্রাপ্য সুযোগটা দিতেই এবার তারা এবার বদ্ধ পরিকর। মূলত ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য স্কোয়াড তৈরিতে বিপিএলকে পাখির চোখ করছেন আজ (৩০ নভেম্বর) জানালেন জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনও।

দুয়ারে কড়া নাড়ছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল, ১১ ডিসেম্বর মাঠে গড়াচ্ছে বিপিএলের বিশেষ এই আসর। পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে চুক্তি নবায়ন না হওয়ায় নিজেদের মত করেই বিপিএল আইয়োজন করছে বিসিবি, দলগুলোর পরিচালক হিসেবে থাকছে একজন করে বিসিবির পরিচালক। পরামর্শকের ভুমিকায় আছেন নির্বাচকরাও, রংপুর রেঞ্জার্সের পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার।

আজ (৩০ নভেম্বর) মিরপুরে হাবিবুল বাশার সাংবাদিকদের জানান নির্বাচক হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে বিপিএলে বেশ নজর দিচ্ছেন তারা, ‘এই বিপিএলের দিকে আমরা আসলে তাকিয়ে আছি সেটা হল ২০২০ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। টি-টোয়েন্টির জন্য কোন স্পেশালিষ্ট তৈরি করা যায় কিনা, এই বিপিএলে সেদিকেই তাকিয়ে আছি। কিছু ইয়াং স্টারেরকে আমরা ফলো করবো, কিছু সিনিয়র প্লেয়ারকেও দেখতে পারি।’

‘মূল উদ্দেশ্য কিন্তু এখনো আমাদের টি-টোয়েন্টি দলটাতে সেরকম টি-টোয়েন্টি স্পেশালিষ্ট নাই যারা স্ট্রাইক রেট ১৩০ বা ১৪০ প্লাসে রান করতে পারে। এ কারণেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মাথায় রেখে বিপিএলের দিকে থাকিয়ে থাকবো। যে সমস্ত তরুণ ক্রিকেটার আছে তারা কেমন করছে খুব ক্লোজলি ফলো করব। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমি দেখতে চাচ্ছি টি-টোয়েন্টি বিশেষজ্ঞ কাউকে খুঁজে পাওয়া যায় কিনা যেটা আমাদের দলের জন্য খুব দরকার।’

প্রতি বিপিএলেই কেউ না কেউ পাদপ্রদীপের আলোয় আসেন, এবারও এমন কিছুর আশায় জাতীয় দলের এই নির্বাচক, ‘বিশেষ করে ৫,৬ কিংবা ৭ নম্বরে কিছু ব্যাটসম্যান দরকার যারা বড় স্ট্রাইক রেটে রান করতে পারে। দেখি এই বিপিএলে কিছু পাই কিনা, প্রতি বিপিএলই আমাদের কিছু না কিছু খেলোয়াড় তো দেয়। আশা করছি এই বিপিএলেও কাউকে না কাউকে খুঁজে পাবো আমাদের পরবর্তী বিশ্বকাপের জন্য।’

দলগুলোর ক্ষতি করে পর্যবেক্ষণ করতে অবশ্য রাজি নন হাবিবুল, ‘যেহেতু সুযোগ আছে আমাদের হাতে এবার কিছু খেলোয়াড়তো দেখতে পারবো অবশ্যই। কিন্তু খুব বেশি সেক্রিফাইজ করে নয় টিমের যে ব্যাটসম্যানকে দরকার অবশ্যই সে খেলবে। এই খেলার মধ্যে সুযোগ থাকে তবে নজরতো অবশ্যই থাকবে সেদিকে। ক্যালকুলেটিভ এক্সপেরিমেন্ট হবে, এমন না যে যাই হোক সে খেলবে। এক্সপেরিমেন্ট হবে তবে ক্যালকুলেটিভ, খেলার গতি প্রকৃতি বুঝেই হবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

অনুশীলনে ‘মোটিভেটেড’ মাশরাফিকে দেখে কোচের মূল্যায়ন

Read Next

তামিম-মাশরাফিকে নিয়ে ভাবছেন না কোচ সালাউদ্দিন

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share