বৈধ প্রমাণিত হলেন কেন উইলিয়ামসন

কেন উইলিয়ামসন বোলিং
Vinkmag ad

এমনিতেই বল করেন কালে ভদ্রে। কিন্তু এই কালে ভদ্রে বল হাতে নিয়েও ক্যারিয়ারে দুইবার সন্দেহের তালিকায় পড়েছেন, ভাগ্যিস পুরো দস্তুর বোলার নন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন! চলতি বছরের আগস্টে গল টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বল হাতে নিয়েই পড়েছিলেন আম্পায়ারের সন্দেহে। তবে পরীক্ষা দিয়ে বোলিং অ্যাকশন ত্রুটিপূর্ণ প্রমাণ করেন উইলিয়ামসন।

গল টেস্টে উইলিয়ামসনের সাথে সন্দেহের তালিকায় পড়েন লঙ্কান স্পিনার আকিলা ধনঞ্জয়াও। কিন্তু নিজেকে বৈধ প্রমাণ করতে পারেননি ধনঞ্জয়া, এক বছরের মধ্যে দুইবার বোলিং অ্যাকশন ত্রুটিপূর্ণ হওয়ায় নিষিদ্ধ হয়েছেন এক বছরের জন্য। ধনঞ্জয়া দলের গুরুত্বপুর্ণ বোলার বলে লঙ্কানদের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে চাইলেই এখন বল হাতে দলের প্রয়োজনে ভূমিকা রাখতে পারবেন উইলিয়ামসন। এর আগে ২০১৪ সালেও অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের জন্য নিষিদ্ধ হন কিউই দলপতি, পরে অ্যাকশন শুধরে অনুমতি পান বোলিংয়ের। কিন্তু এবার পরীক্ষায় কোন ত্রুটি ধরা পড়েনি ২৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের বোলিংয়ে।

১১ অক্টোবর লফবারোতে উইলিয়ামসনের বোলিং মূল্যায়নের পর আইসিসি তার বোলিং অ্যাকশন বৈধ ঘোষণা করে। আইসিসির অবৈধ বোলিং রেগুলেশনের অধীনে মূল্যায়নের সময় উইলিয়ামসনের ডেলিভারি ১৫ ডিগ্রি সহনশীলতার মধ্যে ছিল।

নিউজিল্যান্ডের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান পার্টটাইম বোলার হিসেবে টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে অফস্পিনে উইকেট নিয়েছেন ৭২ টি। যদিও গল টেস্টে মাত্র তিন ওভার বল করেই আম্পায়ারের চোখে সন্দেহের তালিকায় আসেন।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সাকিবের নিষেধাজ্ঞাকে পাশ কাটিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নজর ডোমিঙ্গোর

Read Next

দিল্লির বায়ু দূষণে বিরক্ত টাইগার কোচ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
5
Share