রোমাঞ্চ নয় অধিনায়কত্বে সম্মান খুঁজে পান মুমিনুল হক

মুমিনুল হক
Vinkmag ad

২০১২ সালে সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশের প্রথমবার বাংলাদেশের জার্সি গায়ে চাপান মুমিনুল হক। ওই বছর নভেম্বরের ৩০ তারিখ খুলনায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় পা রাখেন বাংলার লিটল মাস্টার খ্যাত মুমিনুল হক। আরও একটি নভেম্বর মাস, আরও একটি সিরিজ, এবার মুমিনুল ভারত সফরে যাচ্ছেন টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে। সাকিবের বদলি হিসেবে আন্তর্জাতিক অভিষেক, সাকিবের বদলি হিসেবেই টেস্ট অধিনায়ক।

আসন্ন ভারত সফরের টেস্ট সিরিজ দিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অভিষেক ঘটছে বাংলাদেশের, আর সেটার নেতৃত্ব দিবেন দেশের সেরা টেস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে ইতোমধ্যে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা মুমিনুল হক। তবে টেস্ট অধিনায়কত্বটাকে আলাদা রোমাঞ্চের কিছু মনে করছেন না মুমিনুল, তার কাছে এটা একটি দায়িত্ব। টেস্টের অধিনায়ক হলেও দীর্ঘদিন ধরেই সীমিত ওভারে অনিয়মিত মুমিনুল। সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২০১৪ সালে, ফলে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে তার না থাকাটা অনুমেয়ই।

ভারত সফরের টেস্ট সিরিজ শুরু হবে ১৪ নভেম্বর থেকে, এর আগে জাতীয় লিগের আরও একটি রাউন্ড খেলার সুযোগ পাচ্ছেন মুমিনুল হক। টেস্ট অধিনায়কত্ব নিয়ে কথা বলেছেন ভারতীয় দৈনিক এই সময়ের সাথে, অধিনায়কত্ব অনেক সম্মানের উল্লেখ করে মুমিনুল বলেন,  ‘দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করাটাই খুব সম্মানের। ক্যাপ্টেন হওয়া নিশ্চিত ভাবেই আরও বড় সম্মান।’

তবে এই সম্মানের দায়িত্বটা পেয়েই খুব উচ্ছ্বাসে হারিয়ে যাচ্ছেন না ২৮ বছর বয়সী এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান, ‘কিন্তু ক্যাপ্টেন হয়ে আলাদা করে দারুণ কিছু এক্সাইটমেন্ট হচ্ছে বললে বাড়িয়ে বলা হবে। আসলে দেশের জন্য খেলাটা কর্তব্য বলে মনে করি। নিজের কাজটা ঠিক করে করাই লক্ষ্য। তার বেশি কিছু নয়।’

ভারত সফরে টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে যাচ্ছেন সাকিবের পরিবর্তে, সেক্ষেত্রে সাকিব ইস্যুতে ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রশ্নের তীর ছুটে আসবে মুমিনুলের দিকে নিশ্চিতই। মুমিনুল বলছেন তিনি প্রস্তুত, ‘আমি জানি, ভারতে গেলে এটা নিয়ে প্রশ্ন আসবে এখানেও আসবে। দেখুন, এগুলো থাকবেই এসব নিয়েই চলতে হবে, চলতে হয়। অবশ্যই এটা চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি, আমাদের চ্যালেঞ্জটা নিয়েই খেলতে হবে, আমরা তৈরি।’

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পাশাপাশি ইডেন টেস্ট দিয়ে তার অধীনেই প্রথমবার গোলাপি বল ও দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। যদিও ভারতের জন্যও এটি প্রথম, অধিনায়ক হিসেবে মুমিনুল বলছেন মানিয়ে নেওয়া সম্ভব, ‘ভারতও তো প্রথম খেলছে। আমার মনে হয় না, দিন-রাতের পিঙ্ক বলে খুব সমস্যা হবে। আমার মনে হয়, মাইন্ডসেটটাই আসল। যদি মাইন্ডসেট ঠিক থাকে, চার-পাঁচ দিন প্র্যাক্টিস করলে কোনও সমস্যা হবে বলে মনে হয় না।’

ভিরাট কোহলির মত আক্রমণাত্মক অধিনায়কের সাথে প্রথমবার অধিনায়ক হিসেবে টস, মাঠের ক্রিকেটে পাল্লা দেওয়া চুপচাপ আর শান্ত স্বভাবের মুমিনুলের জন্য কঠিন হবে কিনা? জানতে চাইলে বাংলার লিটল মাস্টার বলেন, ‘আমি চাইলেও ভিরাটের মতো আক্রমণাত্মক হতে পারব না, ও চাইলেও আমার মতো নয়। আসলে দুজনের স্বভাবটাই আলাদা। শুধু ভিরাটের কথা বলছেন কেন? ধোনির কথাও বলুন। তিনি তো খুবই চুপচাপ। তারপরও তো কত সফল।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

দ্বিতীয়বারের মতো সমন পেলেন দ্রাবিড়

Read Next

কোলকাতা টেস্টে- ‘প্যারাট্রুপার, সোনার কয়েনে টস, ৬ ডজন বল, বিশেষ টিকিট’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share