তামিমের পথ অনুসরণে বাঁচলেন আফিফ হোসেনও

আফিফ হোসেন ধ্রুব
Vinkmag ad

তথ্য গোপনের অপরাধে আগামী এক বছর মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে সাকিব আল হাসানকে। সাকিব ছাড়াও ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন তামিম ইকবাল, বিসিবিকে জানিয়েছেন সাথে সাথেই।  এবার নিশ্চিত হওয়া গেল বড় তারকার পাশাপাশি উঠতি তারকাদের উপরও নজর থাকে জুয়াড়িদের, ছিল বাংলাদেশের তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেনের উপরও। তবে সাকিব নয় এক্ষেত্রে আফিফ হেঁটেছেন তামিমের পথে।

সাকিবের মত আফিফ হোসেনও ফিক্সিংয়ের ঈঙ্গিত পান ২০১৮ সালের শুরুর দিকেই। ১৩ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলা নিয়ে ব্যস্ত তখনো আন্তর্জাতিক অভিষেক না হওয়া আফিফ। ওই টুর্নামেন্ট চলাকালীনই সন্দেহজনক কিছুর আভাস পান তরুণ এই ক্রিকেটার।

তবে সাকিব তামিমের মত হোয়াটস অ্যাপ নয় তাকে ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করা হয় ই-মেইলের মাধ্যমে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ চলাকালীন কোন একসময় আফিফ তার মেইলের ইনবক্সে একটি অজ্ঞাতনামা মেইল পান। যেখানে মেইল দাতা ব্যক্তি নিজেকে আফিফের ভক্ত বলে পরিচয় দেন, কোন রেস্টুরেন্টে দেখা করার নিমন্ত্রণও ছিল মেইলে।

১৯ না পেরোনো যুবা আফিফ বিষয়টি সাথে সাথে জানান দলের ম্যানেজমেন্টকে। তারাও বিসিবির দুর্নীতি দমন ইউনিটকে জানাতে করেনি দেরি। ফিক্সিং প্রস্তাব সন্দেহে বিসিবিও দ্রুতই আইসিসির কাছে পৌঁছে দেয় বার্তা। বিষয়টি দ্রুত বিসিবিকে জানানোয় বোর্ড কর্তাদের বেশ প্রশংসাও সেসময় কুড়িয়েছেন পরের মাসে আন্তর্জাতিক জার্সি গায়ে চাপানো আফিফ।

২০১৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক। নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হওয়া তরুণ এই তুর্কি পুনরায় জাতীয় দলে ফিরেছেন সবশেষ ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে। আছেন ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডেও। আফিফের ফিক্সিং প্রস্তাব পাওয়ার সন্দেহটি নিশ্চিত করেছেন সেসময় দলের (অনূর্ধ্ব-১৯) ম্যানেজার থাকা দেবব্রত পাল ও বিসিবির দুর্নীতি দমন ইউনিটের প্রধান মেজর (অবঃ) হুমায়ুন মোর্শেদ।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কাঁদলেন মৌসুমী, ‘সাকিবের এই কষ্টটা মেনে নিতে পারছি না’

Read Next

মানসিক অবসাদে ক্রিকেট থেকে ম্যাক্সওয়েলের বিরতি

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
13
Share