সাকিবের না থাকাটা মুশফিকের কাছে যেকারণে ইতিবাচক

সাকিব আল হাসান মুশফিকুর রহিম
Vinkmag ad

প্রথমবারের মত ভারতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে আজ (৩০ অক্টোবর) দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় পড়ে নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই বিমানে চড়েছেন মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা। সাকিবকে ছাড়া এমন গুরুত্বপূর্ণ সিরিজে যাওয়া হতাশার তবে তরুণদের জন্য ভালো সুযোগ বলেও মনে করেন মুশফিকুর রহিম।

আজ (৩০ অক্টোবর) বিকাল তিনটার একটি ফ্লাইটে ভারতের রাজধানী দিল্লীর উদ্দেশ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন ক্রিকেটাররা। ৩ নভেম্বর দিল্লীতেই ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকাল উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিক জানান সাকিবকে তারা কতটা মিস করবেন।

এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে মি. ডিপেন্ডেবল খ্যাত এই ব্যাটসম্যান জানান, ‘সাকিবের বিকল্প আসলে সম্ভব নয়। সে আমাদের মূল খেলোয়াড়, অনেক মিস করবো তাকে। ইতিবাচকভাবে দেখলে বলতে হয় দলে নতুন যারা আসছে তাদের জন্য এটা বড় একটা সুযোগ। সাকিব ইনজুরিতে পড়েও এক বছরের জন্য মাঠের বাইরে থাকতে পারতো।’

একজন সাকিব আল হাসান না থাকা দলের মনোবলে কতটা ভাঙতে পারে তা আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখেনা। সাকিব খেলা মানেই একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান ও বোলার একাদশে নেওয়ার সুযোগ থাকে। দলের সেরা পারফর্মারকে ছাড়াই আগামী এক বছরে ৩০ এর বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে হবে টাইগারদের। কিন্তু তথ্য গোপনের অভিযোগে আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় পড়ে সাকিবকে ছাড়াই সব পরিকল্পনা সাজাতে হচ্ছে বাংলাদেশকে।

দলের অভিজ্ঞ সেনানি মুশফিকুর রহিম মাঠের ক্রিকেটে মনযোগ দেওয়াতে জোর দিচ্ছেন। মাঠের ভালো ফলই পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পারে বলে মনে করেন তিনি, ‘জিনিসটাকে এভাবে দেখে আমাদের অন্তত ভালো ক্রিকেট খেলায় মনযোগ দেওয়া উচিত। একমাত্র ভালো ক্রিকেট খেলে রেজাল্ট আনাটাই আমাদের সঠিক পথে রাখতে পারে। চ্যালেঞ্জটা সবার মধ্যেই আছে বিশ্বাস করি সবাই নিজের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করবে ভালো কিছু করার।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

মাহমুদউল্লাহর মতে মুমিনুলের অধিনায়কত্ব প্রাপ্য ছিলো

Read Next

সাকিবের সাথে চুক্তি নিয়ে বিসিবির সিদ্ধান্ত ২-৩ দিন পর

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
7
Share