‘৮ জনের মতো ক্রিকেটারকে ডেকে পাঠিয়েছি’

নাজমুল হাসান পাপন
Vinkmag ad

বাংলাদেশের স্পিন কোচ হিসেবে নিয়োগ পাওয়া ড্যানিয়েল ভেট্টোরি প্রথমবারের মত বাংলাদেশে আসেন গতকাল (২৫ অক্টোবর)। ভারত সফরের অনুশীলন ক্যাম্পের শুরুর দিন থেকেই কাজ শুরু করেন। তবে স্কোয়াডে খুব বেশি স্পিনার না থাকায় এখনও পুরোদমে দীক্ষা দিতে পারছেন না বলে জানান বিসিবি সভাপতি। আর সেজন্যই দল ভারতে যাওয়ার আগেই জাতীয় লিগ থেকে ডেকে পাঠানো হচ্ছে ৮ স্পিনারকে।

ভেট্টোরির সাথে দেখা করা ও দল নিয়ে কোচের সাথে কথা বলতে আজ (২৬ অক্টোবর) বিকালে অনুশীলন শুরুর আগেই বিসিবিতে আসেন নাজমুল হাসান পাপন। ক্রিকেটারদের অনুশীলন দেখার পাশাপাশি ইনডোরের উন্নয়ন কার্যক্রম দেখভাল করে যান বিসিবি বস। আর সেখানেই কোচিং স্টাফদের সাথে আধঘন্টার বৈঠকে বসেন।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘ভেট্টোরির সঙ্গে আমার দেখা হয়নি। এমনকি ওকে নেয়ার ব্যাপারে যে কথাবার্তা হচ্ছিলো তখনও আমার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ হয়নি। একটা কারণ ছিল এখানে আসার- ভেট্টোরির সঙ্গে দেখা করা। দ্বিতীয়ত হচ্ছে এই যে দল ভারতে যাবে সেই কারণে কোচের সঙ্গে এখন পর্যন্ত স্কোয়াড নিয়ে আলাপ হয়নি। একটা দল তো আমরা দিয়েছি, কিন্তু এটা নিয়ে তাঁর পরিকল্পনা কি সেটা জানা হয়নি, চেষ্টা করলাম ওর কাছ থেকে জানার।’

ভেট্টোরি দলের সাথে এমন সময়টায় কাজ করছেন যখন চলছে জাতীয় লিগের তৃতীয় রাউন্ড। ফলে স্কোয়াডে ডাক পাওয়াদের ছাড়া অন্য স্পিনারদের কাজ করার সুযোগ হচ্ছেনা ভেট্টোরি। এ প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আরেকটি জিনিস যেটা বলেছি যে আমাদের কাল এবং পরশু দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ আছে এখানে। সমস্যা হচ্ছে ভেট্টোরির মতো কোচ এখানে এসেছে, কিন্তু আপনি যদি দেখেন আমাদের এই মুহূর্তে এখানে কোনো স্পিনার নেই। অথচ দল যাচ্ছে ভারতের মতো শক্তিশালি একটি দলের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি এবং টেস্ট খেলতে, সে তো দেখার সুযোগ পাচ্ছে না তাদেরকে।’

 

View this post on Instagram

 

Reaction after seeing Shakib for the first time in practice? 🤔

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

‘কারণ আমরা স্পিনার বলতে যাদেরকে বুঝি, উদারহণ হিসেবে ধরেন মেহেদী হাসান মিরাজ আছে, তাইজুল আছে এরপর নতুনদের মধ্যে রিশাদ আছে, এরপর নাইম আছে। এছাড়াও আমাদের আফ্রিদি আছে। আমাদের অনেক স্পিনার আছে, অপু আছে। স্পিনার বলতে আমরা যাদেরকে বুঝি আরকি। যেহেতু ওরা কেউ এখানে নেই তাহলে কোচের তো কোনো অপশন নেই। কোচ শুধু আমার জানামতে দুইজন স্পিনারকে দেখেছে, এক আরাফাত সানি আরেকজন হলো বিপ্লব। তাঁরা ভালো, তবে আমার কথা হচ্ছে টেস্টের জন্য যেহেতু আমাদের স্পিনার লাগবে তাদেরকেও যদি ভেট্টোরি একটু দেখতে পারতো তাহলে আমার মনে হয় ভালো হতো।’

আর এ কারণেই জাতীয় লিগের মাঝপথেই ডাকা হচ্ছে ৮ ক্রিকেটারকে। বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমরা ঠিক করেছি কিছু খেলোয়াড়, যদিও খেলা শুরু হয়ে গেছে, আমাদের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট। যেটা শুরু হয়নি সেখানে অতটা অসুবিধা হবে না। ওখান থেকে একজন একজন করে লাগছে। কাল, পরশু ম্যাচের জন্য কিছু খেলোয়াড়কে আমাদের রাখতে হচ্ছে। এটা কিভাবে করা যায়, এই জিনিসগুলো নিয়ে আলাপ করতে এসেছিলাম। আমরা ৮ জনের মতো (আসলে ৯ জন) খেলোয়াড়কে ডাক দিতে বলেছি কাল আর পরশুর ম্যাচের জন্য।’

নাজমুল হোসেন শান্ত, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন, মেহেদী হাসান মিরাজ, রিশাদ হোসেন, ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি, নাইম হাসান, এবাদত হোসেন ও আবু হায়দার রনি- এই ৯ জনকে ডেকে পাঠানো হয়েছে জাতীয় লিগ থেকে।

মিরপুরের ইনডোরের সুযোগ সুবিধা নিয়ে অভিযোগ বেশ পুরোনো, সাকিব আল হাসান তো বলেই দিয়েছেন বার বার বলার পরও গত ১০ বছরেও একটা এসি লাগানো সম্ভব হয়নি। ক্রিকেটারদের ধর্মঘটের পর বিসিবিও কিছুটা নড়েচড়ে বসেছে কিন্তু গঠনের কারণেই খুব বেশি উন্নতি সম্ভব নয় আগেই জানিয়েছেন পাপন। আজ (২৬ অক্টোবর) আবারও একই সুরেই কথা বললেন, ‘ইনডোরটা দেখলাম এবং জিজ্ঞেস করলাম যে কি করছে এটার জন্য। কারণ আমরা বলেছি চেষ্টা করবো, এটাকে খুব একটা কিছু করা যাবে না, তবে কি করা যায় দেখা যাক। ওরা বললো কে কি করছে, এখন দেখা যাক। মুখের কথা শুনে তো লাভ নেই। আগে দেখে নেই কি করছে এরপর বলা যাবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

ইমার্জিং এশিয়া কাপে বাঘিনীদের বড় জয়

Read Next

বাংলাদেশের সঙ্গে ‘দিবা-রাত্রি’ টেস্ট খেলতে রাজি কোহলিও

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share