‘পদত্যাগ তো চাইলেই করা যাবে না’

খালেদ মাহমুদ সুজন নাইমুর রহমান দুর্জয় দেবব্রত পাল
Vinkmag ad

ধর্মঘটে যাওয়া ক্রিকেটারদের অভিযোগ, খেলোয়াড়দের সংস্থা কোয়াবের (ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) সমর্থন কখনোই পান না তাঁরা। যদিও পাল্টা অভিযোগ ঠুকেছেন এই সংস্থার নেতারা। গতকাল কোয়াবের নেতারা পদত্যাগ করার কথা ইঙ্গিত দিয়ে বললেও আজ জানালেন তারা পদত্যাগ করবেন না।

ক্রিকেটারের প্রথম দফাটাই ছিল ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের (কোয়াব) বর্তমান কমিটি ভেঙে দেওয়া। গতকাল মিরপুরে ১১ দফা দাবির মধ্যে কোয়াব বিলুপ্তির ব্যাপারে প্রথম দাবি পেশ করেছেন নাঈম ইসলাম।

‘আমাদের প্রথম দাবি, কোয়াব (ক্রিকেটার ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) বিলুপ্ত করতে হবে। বর্তমানে এর কোনও কার্যক্রম চোখে পড়ে না। কোয়াব ক্রিকেটারদের প্রতিনিধি হলেও তাদের কখনোই আমরা পাশে পাই না। কোয়াবের প্রেসিডেন্ট এবং সেক্রেটারিকে পদত্যাগ করতে হবে। কোয়াবের প্রেসিডেন্ট এবং সেক্রেটারি কে হবেন তা ক্রিকেটাররা নির্বাচন করবে।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি জানানোর পর আজ বিসিবি সভাপতির মিরপুরে সংবাদ সম্মেলন করেন। এরপর আবার কোয়াবের সভাপতি নাঈমুর রহমান দুর্জয়, সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত পাল, সহ-সভাপতি খালেদ মাহমুদ সুজন উপস্থিত ছিলেন।

খেলোয়াড়দের দাবি অনুযায়ী কোয়াব সভাপতি পদত্যাগ করবে কি না জানতে চাইলে সভাপতি নাইমুর রহমান দুর্জয় বলেন,

‘পদত্যাগ তো চাইলেই করা যাবে না। কোয়াবের সংবিধান আছে, নিয়ম আছে। নিয়মের বাইরে তো কিছুই করা যাবে না। আমরা নিয়মতান্ত্রিকভাবে অবশ্যই সরে যাব। এ খেলোয়াড়রা যদি নতুন নেতৃত্ব চায়, তাহলে তাকে আনা হবে। আবার যদি আমাদের চায়, সেটাও হবে। কারণ এই কয়জনই তো খেলোয়াড় নয়, আরো খেলোয়াড় আছে। আমাদের সাবেক খেলোয়াড়রাও আছে। সবাইকে নিয়েই তো সংগঠন। তাই সংগঠন যাকে নেতৃত্ব দিতে চাইবে তাকেই রাখা হবে। এই ব্যাপারে আমাদের কোন প্রশ্ন নেই। আমরা এটা আঁকড়ে ধরে রাখতেও চাই না। আমরাও চাই নতুন কেউ আসুক। নতুন কেউ চাইলে আসতে পারবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সাকিবদের দাবির পক্ষে ‘ফিকা’, কোয়াবের সদস্যপদ বাতিলের চিন্তা

Read Next

আজ পাকিস্তান সফরে গেল বাংলাদেশের মেয়েরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
9
Share