এবেলায়ও নিশ্চিত নন ইমরুল কায়েস!

ইমরুল কায়েস
Vinkmag ad

বাংলাদেশ ক্রিকেটে তামিমের যোগ্য সঙ্গী হিসেবে সবচেয়ে সফল ইমরুল কায়েস। অথচ ক্যারিয়ারের এতবছর পরেও নিজের জায়গাটা পাকা করতে পারেননি ইমরুল, পাকা করতে পারেননি বলার চাইতে অবশ্য পাকা হয়নি বলাই শ্রেয়। দলের প্রয়োজনেই ডাক পড়ে ইমরুলের আবার হারিয়েও যান পরের সিরিজে। বিশেষ করে টেস্টে তামিমের সাথে ইমরুলের রসায়নকে পেছনে ফেলতে পারেননি অন্য কোন ওপেনার। জাতীয় লিগের প্রথম ম্যাচেই হাঁকিয়েছেন ডাবল সেঞ্চুরি, তবে এখনই ভারত সিরিজের দলে জায়গা পাচ্ছেন কিনা বলা যাচ্ছেনা জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক।

সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজে ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও ছেলের শারীরিক অসুস্থতায় শেষ মুহুর্তে ছুটোছুটি করেছেন হাসপাতাল থেকে হাসপাতাল। ছেলের অসুস্থতার জন্য ব্যস্ত সময় কাটিয়ে ফিরেছেন দিন কয়েক আগে। দীর্ঘ সময় পর ক্রিকেটে ফিরেছেন জাতীয় লিগে প্রথম ম্যাচ দিয়ে। ফিরেই দুর্দান্ত এক ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকালেন রংপুর বিভাগের বিপক্ষে।

 

View this post on Instagram

 

👏👏👏

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

৩০৯ বলে ১৯ চার ও ৬ ছক্কায় ২০২ রানে ছিলেন অপরাজিত। সন্তানের অসুস্থতা নিয়ে সংগ্রামের পর ২২ গজে ফিরে এসেই এমন দুর্দান্ত ইনিংসকে ইমরুল নিজেও জায়গা দিয়েছেন আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া মিলিয়ে দ্বিতীয় সেরা ইনিংসে। এমন ইনিংসের পর স্বাভাবিকভাবেই ভারত সিরিজের টেস্ট দলে ইমরুলের থাকার সম্ভাবনা বেড়েছে বেশ। কিন্তু প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন এখনই ইমরুলকে নিয়ে কিছু বলতে রাজি নন, দেখতে চান পরের ম্যাচের পারফরম্যান্সও।

আজ (১৫ অক্টোবর) মিরপুরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মিনহাজুল আবেদিন বলেন, ‘ইমরুল কায়েস ডাবল সেঞ্চুরি করেছে। এখন মাত্র একটি রাউন্ড গিয়েছে। বলা মুশকিল। আরেকটি রাউন্ড গেলে তারপর বোঝা যাবে অনেক। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্স কিন্তু একটু অন্যরকম। এখানে কিন্তু নিজের সক্ষমতা এবং নিজেকে মানিয়ে নেয়া সহজ নয়।’

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দলের সাথে স্বল্প সময় থাকা হয় বলে এখানে পারফরম্যান্স করা সহজ নয়। এ প্রসঙ্গে ইমরুলের প্রশংসা করে প্রধান নির্বাচক আরও যোগ করেন, ‘ওরা ক্লাবে খেলে বা অন্য জায়গায় খেলে, তারপর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ওরা খুব অল্প সময়ের জন্য এক সাথে হয়। তো সে হিসেবে এভাবে পারফরম্যান্স করাটা ক্রিকেটারের জন্য অনেক ভালো। ইমরুল কায়েস গত দুই মাস খুব কঠিন সময়ে ছিল ওর পরিবার নিয়ে। তারপর এভাবে ফিরে ডাবল সেঞ্চুরি করা কিন্তু দারুণ।’

ক্যারিয়ারের এই সময়ে এসেও ইমরুলকে সামর্থ্যের প্রমাণ দিতে হবে কিনা জানতে চাইলে মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানান, ‘এখানে দেখার কোনও শেষ নাই। যারা পারফর্ম করবে ওদের সবসময় আমাদের নজরে রাখতে হবে। এখানে এমন না যে নির্দিষ্ট কাউকে আমাদের ভালো করে দেখতে হবে। ও কঠিন সময়ে ছিল। এখন সেটা পার করে ভালো ফর্মে এসেছে, তো সামনের সিলেকশান মিটিংয়ে অবশ্যই এটা নিয়ে আলোচনা হবে।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

অলিখিত পরীক্ষার সামনে দাঁড়িয়ে মুস্তাফিজ

Read Next

জিম্বাবুয়ের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে জেনেই জানানো হয়েছে আমন্ত্রণ!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
3
Share