অলিখিত পরীক্ষার সামনে দাঁড়িয়ে মুস্তাফিজ

মুস্তাফিজুর রহমান
Vinkmag ad

বাংলাদেশের পেসারদের নিয়ে বেশ বিপাকেই আছে টিম ম্যানেজম্যান্ট। জাতীয় দল কিংবা এর আশেপাশে নজর দিলে দেখা যাচ্ছে বেশিরভাগ পেসারই আছেন কোন না কোন চোটে। দলের স্ট্রাইক বোলার মুস্তাফিজুর রহমানও আছেন সেই তালিকায়, গোড়ালির চোট কাটিয়ে মুস্তাফিজ অবশ্য ফিরছেন জাতীয় লিগের দ্বিতীয় রাউন্ড দিয়ে। আর জাতীয় লিগের এই ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে মুস্তাফিজের জন্য ভারত সফরের আগে নিজেকে ফিট প্রমাণের মঞ্চ।

সবশেষ আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ছিলেন বিশ্রামে, ত্রিদেশীয় সিরিজের পরই গোড়ালি ও কোমরে চোট নিয়ে ভুগছিলেন বেশ। ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতোর নির্দেশনা মেনে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় কাজও করছিলেন কয়েকদিন ধরে। জাতীয় লিগের প্রথম রাউন্ড থেকেই খুলনার হয়ে মাঠে নামার কথা ছিল, যদিও শেষ মুহুর্তে ফিজিওর পরামর্শেই দেওয়া হয় বিশ্রাম।

দলের সাথে যোগ দিতে ইতোমধ্যে খুলনা পৌঁছে গেলেও চোটের জায়গায় ঠিকমত ভার নিতে না পারলে দ্বিতীয় ম্যাচেও খেলা অনিশ্চিত। যদিও সবমিলিয়ে পরিস্থিতি ইতিবাচক দেখেই তাকে ঢাকা ছাড়ার সবুজ সংকেত দিয়েছিলেন ফিজিও ক্যালেফাতো। শেষ পর্যন্ত মাঠে নামলে তার জন্য আলাদা গাইডলাইনও দিয়ে দিয়েছেন জাতীয় দলের এই ফিজিও, ভারত সফরের আগে মুস্তাফিজকে পুরোনো অবস্থায় আনতে এই নির্দেশনা মানতে হবে নিখুঁতভাবে।

আজ (১৫ অক্টোবর) মিরপুরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন মুস্তাফিজ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ফিজিও আমাকে একটি গাইডলাইন দিয়েছে। ওর প্রথম ম্যাচ থেকে খেলার কথা ছিল। যেহেতু ওর গোড়ালিতে একটু সমস্যা আছে, এই কারণে পুরোপুরি লোড সে নিতে পারছে না। পুরোপুরি লোড না নিতে পারলে দ্বিতীয় ম্যাচেও খেলতে পারবে না। এখন সে রিকভার করেছে।’

ভারত সফরের আগে জাতীয় লিগ দিয়ে বোঝা যাবে মুস্তাফিজ টেস্টের জন্য প্রস্তুত কিনা উল্লেখ করে প্রধান নির্বাচক যোগ করেন, ‘দেখার বিষয় যে সে কত ওভার বল করতে পারে। একটা গাইডলাইন দিয়েছে যে ১৫ ওভারের বেশি বল করতে পারবে না দ্বিতীয় ম্যাচটিতে (দিনে সর্বোচ্চ ১৫ ওভার)। সেই হিসেবে আমরা এটি দেখবো এবং ওর ফিটনেসের ব্যাপারে চিন্তা করবো।’

আক্ষরিক অর্থে এটি যে মুস্তাফিজের  ভারত সফরের টেস্ট দলে থাকার পরীক্ষা সেটা পরের কথায় আরও স্পষ্ট করলেন, ‘অবশ্যই (মুস্তাফিজকে ফিট প্রমাণ করতে হবে)। এটা পুরোপুরি টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত। মাঠে আমরা কাজ করি না। ফিটনেস ট্রেইনার, বোলিং কোচ আছে, এরাই কিন্তু আপডেট দিবে। ও কতটুকু বোলিং করতে পারবে, পরপর দুটো টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারবে কিনা।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

ভারত সফরের দল ঘোষণা হচ্ছে কবে জানালেন প্রধান নির্বাচক

Read Next

এবেলায়ও নিশ্চিত নন ইমরুল কায়েস!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
5
Share