বিতর্কিতভাবে চাকরি হারানো সিমন্স পেলেন লম্বা সময়ের দায়িত্ব

ফিল সিমন্স
Vinkmag ad

সদ্য সমাপ্ত ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) শিরোপা জয়ী কোচ ফিল সিমন্সের কাঁধেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দলের দায়িত্ব অর্পণ করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। অন্তবর্তীকালীন কোচ ফ্লয়েড রেইফার ও ডেসমন্ড হেইন্সকে পেছনে ফেলে কোচের হট সিট দখলে নেন সিমন্স।

ফিল সিমন্স খেলোয়াড় হিসেবে যতটা সফল তার চাইতে কোচ হিসেবেই বেশি সফল। ২০০২ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার পর কোচিং ক্যারিয়ারে দায়িত্ব পালন করেছেন জিম্বাবুয়ে, আয়ারল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানের মত দলের। ২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে তার অধীনেই।  কাজ করেছেন কানাডা ভিত্তিক গ্লোবাল টি-টোয়েন্টির দল ব্রাম্পটন ওলভসের কোচ হিসেবে। কোচ হিসেবে দিন দুয়েক আগেই জিতলেন ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ।

২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের কয়েক মাস পরই বিতর্কিতভাবে বাদ দেওয়া হয় তখনকার কোচ সিমন্সকে। এরপর দীর্ঘদিন গেইল-রাসেলদের কোচের ভূমিকা পালন করেছেন রিচার্ড পাইবাস।  গত এপ্রিলে রিচার্ড পাইবাসকে সরিয়ে অন্তবর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিজেদের সাবেক ক্রিকেটার ফ্লয়েড রেইফারকে নিয়োগ দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড।

ফিল সিমন্সের সাথে এবারের চুক্তিটি চার বছরের জন্য। সিমন্সকে নিয়োগের প্রসঙ্গে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রেসিডেন্ট রিকি স্কেরিট বলেন, ‘সিমন্সকে ফেরানোর মানে এই নয় যে আগের ভুল শুধরানো। আমি মনে করি ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ সঠিক কাজের জন্য যোগ্য ব্যক্তিকেই নিয়োগ দিয়েছে। ধন্যবাদ দিতে চাই অন্তবর্তীকালীন কোচ হিসেবে ফ্লয়েড রেইফারের কঠিন পরিশ্রমের জন্য।’

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ নিয়োগের সাথে সাথে নারী, পুরুষ ও যুবাদের জন্য আলাদা আলাদা নির্বাচকও নিয়োগ দেয়। পুরুষদের নির্বাচক হিসেবে  রজার হামপার, নারীদের ব্রাউন জন ও যুবাদের দায়িত্ব পান রবার্ট হেইন্স।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নারীদের নতুন বিশ্বকাপের প্রথম আয়োজক বাংলাদেশ

Read Next

এসেক্সের রবিন দাস খেলতে চান বাংলাদেশের হয়ে

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
5
Share