‘এখন ১০০তেও মন ভরে না, ২০০/৩০০ রান করতে চায়’

রাজ্জাক
Vinkmag ad

বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের মান নিয়ে কম প্রশ্ন ওঠেনা। বিশেষ করে ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশ ভালো পারফর্মাররাও যখন আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় মুখ থুবড়ে পড়ে তখন প্রশ্ন ওঠাটা অস্বাভাবিক নয়। কিন্তু গত কয়েকবছরে ঘরোয়া ক্রিকেটের মান বেশ উন্নত হয়েছে বলে মনে করেন অভিজ্ঞ আব্দুর রাজ্জাক।

আব্দুর রাজ্জাক

দিন কয়েক আগে ঢাকা মেট্রোর কোচ তালহা জুবায়ের জানিয়েছেন ঘরোয়া লিগকে পিকনিক লিগ বলা ঠিক না। এরপর ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত পারফর্মার ও অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মার্শাল আইয়ুব জানিয়েছেন সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেট হয়েছে প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ন। আজ (৬ অক্টোবর) মিরপুরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে রাজ্জাকও বলেছেন একই কথা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,

‘গত পাঁচবছর যাবত আমি রেগুলার খেলি। আমার কাছে মনে হয়েছে তার আগে যা খেলেছি আমার কাছে এখন বেশি কম্পিটিটিভ মনে হয়। কারণ প্রত্যেকে যার যার জায়গা থেকে সে চায় পারফর্ম করতে। বোলার চায় পাঁচ উইকেটে নিতে, ব্যাটসম্যান চায় ১০০ করতে, এখন ১০০তেও মন ভরে না, ২০০/২৫০ কিংবা ৩০০ রান করতে চায়। তার মানে প্রতিযোগিতামূলক হচ্ছে।’

abdur razzak 20180128171015

মিরপুর ইনডোরে দ্বিতীয় দফায় বিপ টেস্ট দিয়েও বোর্ড নির্ধারিত ১১ স্কোর তুলতে পারেননি আব্দুর রাজ্জাক। ৩৭ বছর বয়সী এই বাঁহাতি স্পিনার অবশ্য বিশেষ বিবেচনায় বিপ টেস্ট বাঁধা উতরে গেছেন। নিজে ব্যর্থ হলেও বিষয়টিকে নিয়েছেন ইতিবাচকভাবে। তবে আরেকটু পরিকল্পনা করে আয়োজন করলে ফল হতে পারে আরও ভালো। ভবিষ্যতে সেটা হবে বলেও আশাবাদী রাজ্জাক।

বিপ টেস্ট নিয়ে পুর্ব পরিকল্পনার ব্যাপারে বলতে গিয়ে রাজ্জাক যোগ করেন,

‘আমার কাছে মনে হয় আগে থেকে প্ল্যান করলে আসলে বিপ টেস্টের স্কোর আরও ভালো হতো। এগুলা আগে থেকে জানিয়ে করলে ডেফিনিটলি হয়ে যাবে। গত বছর থেকে এবছর আরেকটু অর্গানাইজড। এটা জাস্ট একটা ডিসিসনের ব্যাপার। কখনো কখনো মাথায় থাকে না। একটু আগে নিলেই হয়ে যায়। ‘

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সর্বোচ্চ স্কোরেও সন্তুষ্ট নন আল আমিন

Read Next

উইকেট নিয়ে মার্শালের যত কথা 

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
3
Share