বিশেষ বিবেচনায় খেলার সুযোগ পাচ্ছেন আশরাফুল-রাজ্জাকরা!

মোহাম্মদ আশরাফুল আব্দুর রাজ্জাক

জাতীয় লিগ সামনে রেখে বেশ শক্ত অবস্থানে বিসিবি। বিসিবির বেঁধে দেওয়া মানদন্ড অনুসারে বিপ টেস্টে ১১ পেলেই কেবল খেলা যাবে জাতীয় লিগ। প্রথমবার পরীক্ষা দিয়ে ব্যর্থ হওয়া আশরাফুল, রাজ্জাক, শরীফরা আজ (৬ অক্টোবর) বিপ টেস্টের পর প্রকাশ করেছেন উচ্ছ্বাস। মূলত আগেরবারের চেয়ে উন্নতি হওয়াতেই খুশি তারা, বাকিটা ছেড়ে দিয়েছেন নির্বাচকদের উপর।

বিপ টেস্ট
ছবিঃ ক্রিকেট৯৭

বিপ টেস্ট দিয়েই জাতীয় লিগ খেলার ছাড়পত্র নেওয়ার রীতি শুরু হয়েছে গতবছর থেকেই। গতবার নূন্যতম ৯ পেলেই হত, এবার যেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ১১।

ফিটনেস কাঠামো উন্নত করার তাগিদে বিসিবির এ পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছে প্রায় সব ক্রিকেটারই। তবে ত্রিশোর্ধ্ব অনেক সিনিয়র ক্রিকেটার পড়ে গিয়েছিলেন শঙ্কায়। অফ সিজনে পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা পান না বলে বিসিবির নির্ধারিত বিপ টেস্টের নূন্যতম স্কোর উঠাতে পারবেন কিনা তা নিয়ে ছিল দ্বিধা।

গত ১ অক্টোবর মিরপুর ইনডোরে বিপ টেস্টে অংশ নেয় ঢাকা মেট্রো, ঢাকা বিভাগ ও রংপুর বিভাগ। এছাড়া বাকি দলগুলো বিপ টেস্ট দেয় নিজ নিজ বিভাগে। বেশিরভাগ ক্রিকেটার উতরে গেলেও আঁটকা পড়েন আশরাফুল, রাজ্জাক, শরীফ, ইলিয়াস সানি, তুষার ইমরান, নাসির হোসেনসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার।

আজ (৬ অক্টোবর) মিরপুরে দ্বিতীয় দফায় আবার পরীক্ষা দেন আশরাফুল, রাজ্জাক, শরীফ, সানিরা। বিপ টেস্ট শেষে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আগেরবার ব্যর্থ হওয়া প্রায় সবাই । কিন্তু এখনই খেলার জন্য বিবেচিত হয়েছেন কিনা বলা মুশকিল। সূত্র বলছে সিনিয়র এসব ক্রিকেটারদের জন্য নতুন মানদণ্ড দিয়েছে বোর্ড। আর আজ (৬ অক্টোবর) সে মানদন্ড উতরেছেন প্রায় সবাই। কিন্তু নূন্যতম কত স্কোর পেয়ে জাতীয় লিগ খেলার ছাড়পত্র পাচ্ছেন আশরাফুল, শরীফ, সানিরা তা নিয়ে গোপনীয়তা বজায় রেখেছেন ট্রেইনার তুষার কান্তি হাওলাদার।

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

‘ম্যাক্স বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড নাইট’ এ যারা জিতলেন পুরস্কার

Read Next

বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও উজ্জ্বল মিরাজ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
0
Share