শুরুর আগেই সমালোচনার মুখে পড়েছে ‘দ্যা হান্ড্রেড’

দ্যা হান্ড্রেড

আগামী বছর জুলাইয়ে ইংলিশ গ্রীষ্মে শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের নতুন সংস্করণ ‘দ্যা হান্ড্রেড’। ইংল্যান্ড ও ওয়েলশ ক্রিকেট বোর্ড ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টের ফরম্যাট, প্লেয়ারস ড্রাফটের জন্য নির্বাচিত ক্রিকেটারদের তালিকাসহ দিক নির্দেশনা প্রকাশ করেছে। কিন্তু স্পনসর পার্টনার হিসেবে একটি ফাস্টফুড কোম্পানির সাথে যুক্ত হয়েই পড়েছে সমালোচনার মুখে।

দ্যা হান্ড্রেড
ছবিঃ ইংল্যান্ড ক্রিকেট (টুইটার)

১০০ বলের নতুন ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টের স্পনসর তালিকায় আছে ‘কেপি স্ন্যাকস’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির মূল পন্য হল জাঙ্ক ফুড, আর এতেই স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা চটেছেন ইংলিশ বোর্ডের উপর। খেলাধুলা মত একটি গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্টে জাঙ্কফুড কোম্পানিকে যুক্ত করে মানুষকে স্বাস্থ্য সচেতনতা বিমুখ করা হচ্ছে বলে তাদের মত। বিশেষ করে শিশুদের নিয়ে বেশ চিন্তিত বিশ্লেষকরা।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ক্যারোলিন সেনরি এমন পদক্ষেপ শিশুদের নেতিবাচক করবে উল্লেখ করে বলেন, ‘জনপ্রিয় খেলাধুলার আসরে জাঙ্ক ফুড প্রতিষ্ঠান স্পন্সর হওয়া মানে প্রতিষ্ঠানটি শিশুদের মস্তিষ্কে তাদের অস্বাস্থ্যকর খাবারগুলোর ধারণা দিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা।’

ন্যাশনাল অবেসিটি ফোরামের চেয়ারম্যান ট্যাম ফ্রাই মনে করেন যুক্তরাজ্যের উচিত আমাস্টারডাম শহরের নীতি অনুসরণ করা যেখানে কেবল স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করে এমন প্রতিষ্ঠানই স্পন্সর হিসেবে যুক্ত হয়। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ইসিবি তাদের আর্থিক তহবিল সংগ্রহের জন্য বড় বড় সমাসসেবা সংস্থা গুলোর দারস্থ হতে পারতো।’

সমালোচনার পর নিজেদের পন্যকে যতটুক সম্ভব স্বাস্থ্যকর করেই বাজারজাত করার আশ্বাস দিয়েছে ‘কেপি স্ন্যাকস’। এদিকে ইংলিশ বোর্ডও স্বীকার করেছে এ ব্যাপারে তাদের আরও সচেতন হওয়া উচিত ছিল। এছাড়া স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধিতে ইংলিশ বোর্ড নিজেদের নিয়ম নীত মেনে চলার ব্যাপারেও বেশ শক্ত অবস্থান নিবে বলেও সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আগামীকাল শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছেন পাঁচ ক্রিকেটার

Read Next

নিজেকে প্রমাণের কিছু দেখছেন না আফিফ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
0
Share