বিপ টেস্ট দিতে হচ্ছেনা মুশফিক, ফরহাদ রেজাদের

featured photo1 15

জাতীয় লিগের এবারে আসর শুরু হতে যাচ্ছে ১০ অক্টোবর থেকে। এর আগে আজ (১ অক্টোবর) মিরপুরের ইনডোরসহ, নিজ নিজ বিভাগে হয়েছে ক্রিকেটারদের বিপ টেস্ট। মিরপুরে বেশিরভাগ ক্রিকেটার উতরে গেলেও ব্যর্থ হয়েছেন আশরাফুল, রাজ্জাকসহ কয়েকজন। যার অধীনে মিরপুরে বিপ টেস্ট হয়েছে সেই তুষার কান্তি হাওলাদার বলছেন বিপ টেস্টের ফলাফল নিয়ে তারা সন্তুষ্ট।

নাজমুল আবেদীন ফাহিম মুশফিকুর রহিম
সংগ্রহীত ছবি

এ প্রসঙ্গে হাই পারফরম্যান্স দলের এই ট্রেইনার বলেন, ‘আমরা সন্তুষ্ট, বেশিরভাগই আমাদের প্রত্যাশার চাইতে ভালো করেছে। কয়েকজন হয়তো খারাপ করেছে এটা স্বাভাবিক কারণ জন্মগতভাবেই সবার দৌড়ের ধরন এক হয়না।’

ভবিষ্যতে বিপ টেস্টের মানদণ্ড বাড়বে উল্লেখ করে তুষার যোগ করেন, ‘এটা সম্পূর্ণ নির্বাচকদের এখতিয়ার। যারা ওরকম বয়স কিংবা ফিটনেস লেভেল একটু কম সেক্ষেত্রে নির্বাচকরাই সিদ্ধান্ত নিবেন। তবে যেটা ১১ ধরা হয়েছে এর থেকে সরে আসার সম্ভাবনা নেই বরং সামনে এটা আরও বাড়ানো হবে।’

বিপ টেস্টে দিতে জাতীয় দলের অনেক তারকাকেই দেখা যায়নি। এর পেছনে কারণ কি জানতে চাইলে হাই পারফরম্যান্স ট্রেইনার বলেন, ‘সবশেষ জাতীয় দলের ক্যাম্পের জন্য যারা বিপ টেস্ট দিয়েছে এবং ১১.৬ এর বেশি পেয়েছে তাদের বিপ টেস্ট দিতে হচ্ছেনা। যেমন মুশফিক ১২ দিয়েছিল, মিরাজ, ফরহাদ রেজা, শান্তও। মূলকথা যারাই সেবার ১১.৬ এর বেশি দিয়েছে তাদের দিতে হচ্ছেনা। তবে এর নিচে পাওয়ারা বিপ টেস্টে পাশ করেই খেলতে হবে এবার তারা জাতীয় দলের হোক কিংবা অনূর্ধ্ব ১৯ কিংবা হাই পারফরম্যান্স দলেরই হোক।’

বিপ টেস্ট নিয়ে যে বিসিবির অবস্থান বেশ শক্ত সেটা গত কয়েকদিন নির্বাচক, প্রধান নির্বাহীর কথাতেই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। আজ (১ অক্টোবর) বিপ টেস্ট পরিচালনাকারী ট্রেইনারও জানালেন সেটা। তবে থাকছে যেকোন সময় পরীক্ষা দিয়ে পাশ করার সুযোগ, ‘যারা ১১ পায়নি তাদের এটা পার করেই খেলতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত পাশ করবেনা ততক্ষণ পর্যন্ত খেলতে পারবে। তাদের সুযোগ দিতে কয়েকদিন গ্যাপ দিয়ে দিয়ে আমরা আবার টেস্ট নিবো, কেউ ব্যক্তিগতভাবে এসে দিতে চাইলেও আমরা নিবো।’

নাজমুল হাসান তারেক

Read Previous

বিপ টেস্টে ৯৬ ভাগই পাশ, খুশি হাবিবুল বাশার

Read Next

বিপিএল পেছানোর শঙ্কায় খোদ বিসিবি!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
0
Share