টি-টোয়েন্টিতে পরশ খাড়কার দাপুটে সেঞ্চুরি

পরশ খাড়কা

বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষে জিম্বাবুয়ে স্বাগতিক সিঙ্গাপুর ও নেপালকে নিয়ে খেলছে আরও একটি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মুখোমুখি হয়েছিলো স্বাগতিক সিঙ্গাপুর ও নেপাল। জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথম ম্যাচে হারা নেপাল পরশ খাড়কার বিধ্বংসী এক ইনিংসে পায় সহজ জয়, পরশ খেলেন ৫২ বলে অপরাজিত ১০৬ রানের ইনিংস।

পরশ খাড়কা

লড়াইটা হয় মূলত দুই দলের অধিনায়কের। টস জিতে ব্যাট করা সিঙ্গাপুর তিন উইকেটে সংগ্রহ দাঁড় করায় ১৫১। নিজের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ফিফটিতে অধিনায়ক টিম ডেভিড দলকে দেন সামনে থেকে নেতৃত্ব।

৪৪ বলে ৩ চার ও ৪ ছক্কায় ৬৪ রানের ইনিংস খেলে থাকেন অপরাজিত। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন ওপেনার সুরেন্দ্রন চন্দ্রমহন ও জনক প্রকাশ। ২৬ বলে ৩৫ রান করে চন্দ্রমহন আউট হলেও অপরাজিত ছিলেন জনক প্রকাশ, ১৮ বলে করেন ২৫ রান। নেপালের তারকা বোলার স্বন্দীপ লামিচানে ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান দিলেও ছিলেন উইকেট শূন্য।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৯ রানে ওপেনার ইশান পান্ডেকে হারানোর পর ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন গ্রাউন্ড মাঠে রাতটা নিজের করে নেন নেপাল অধিনায়ক পরশ খাড়কা। আর কোন উইকেট হারাতে না দিয়ে আরেক ওপেনার আরিফ শেখকে নিয়ে রীতিমতো ঝড় তোলেন পরশ। ১৪৫ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটিতে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছান মাত্র ১৬ ওভারে।

৪৯ বলে সেঞ্চুরিতে পৌঁছানো পরশ খাড়কা শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৫২ বলে ১০৬ রানে। ৭ চারের বিপরীতে হাঁকান ৯ ছক্কা, তিন ওভারে মাত্র ১০ রান খরচ করা জনক প্রকাশ ছাড়া পিটুনি খেয়েছেন বাকি সবাই। সবচেয়ে বেশি ঝড় সহ্য করেছেন অনন্ত কৃষ্ণ, ২ ওভারেই খরচ করেন ৩৫ রান। পরশ খাড়কাকে সঙ্গ দেওয়া আরিফ শেখের ব্যাট থেকে আসে ৩৯ বলে ৩৮ রান।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বল হাতে সাকিবের নজরকাড়া পারফরম্যান্স

Read Next

বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও উজ্জ্বল সাকিব

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
0
Share