ইয়ো ইয়ো টেস্টকে ক্যারিয়ারের ইউটার্ন বলছেন যুবরাজ!

যুবরাজ সিং

ভারতের জার্সিতে খেলেছেন প্রায় দেড় যুগ, অথচ বিদায়টা হয়নি রঙিন। অনেকটা অভিমানেই অবসরের ঘোষণা দেন মাস কয়েক আগে। নিজের অবসর প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে আবারও ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টকে দুষলেন ভারতীয় সাবেক তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং।

যুবরাজ সিং

সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের এক অনুষ্ঠানে কথা বলতে গিয়ে বোর্ডের কাছ থেকে পাওয়া কষ্টটাকে সামনে আনলেন যুবরাজ। গত জুনে অবসরে যাওয়া যুবরাজ বোর্ডের তরফ থেকে কোন যোগ সামঞ্জস্য না থাকাতেও বেশ কষ্ট পেয়েছেন উল্লেখ করতেও দ্বিধা করেননি এদিন।

ইয়ো ইয়ো টেস্টের ফাঁদে পেলে তাকে বাদ দেওয়ার রনকৌশল আগেই সাজিয়ে রেখেছিল ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট, এমনটাই ধারণা যুবরাজের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পর ৮-৯ ম্যাচ খেলেই ২ টা ম্যাচসেরার পুরষ্কার পেয়েছি, তখনো ভাবিনি এভাবে দল থেকে বাদ পড়বো। শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি, তখনই আসে ইয়ো ইয়ো টেস্ট (বিপ টেস্টও বলা হয়)। ৩৬ বছর বয়সে প্রস্তুতি নিয়ে ইয়ো ইয়ো টেস্ট উতরানোর পরেও আমাকে ঘরোয়া ক্রিকেটে পাঠানো হয়। দলে সুযোগ পাওয়ার ব্যাপারটা ইউ টার্নের মত মোড় নেয়।’

তখন ইয়ো ইয়ো টেস্টটা মূলত তাকে বাদ দেওয়ার কৌশল হিসেবেই সামনে আনা হয় যোগ করে ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে জেতা যুবরাজ বলেন, ‘ওরা ধারণা করেছিল ওই বয়সে আমার জন্য ইয়ো ইয়ো টেস্ট পার হওয়া সম্ভব হবে না। সেক্ষেত্রে আমাকে বাদ দিতে জটিলতা থাকবেনা, বলা যায় ইয়ো ইয়ো টেস্ট আমার ক্ষেত্রে অজুহাত তৈরির একটা ইস্যু ছিল মাত্র।’

বোর্ড তরুণদের সুযোগ দিতে সিনিয়র ও বয়স্কদের বাদ দিতেই পারে। তবে যুবরাজের কষ্টের জায়গাটা কোন আলোচনা ছাড়াই এমন কিছু করাতেই, ‘আমি মনে করি ১৫-১৭ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা একজনের জন্য এটা দূর্ভাগ্যজনক যে বোর্ড তাদের সাথে বসবেনা। কেউ শেবাগ, জহির খান কিংবা আমাকে কিছুই বলেনি। যে-ধরনের ক্রিকেটারই হোক তার সাথে বোর্ডের বসা উচিত ছিল, বলা উচিত ছিল আমরা তরুণদের সুযোগ দিতে যাচ্ছি তাই এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বিশাল জয় দিয়ে নিউজিল্যান্ড সফর শুরু করলো টাইগার যুবারা

Read Next

বাংলাদেশ সফর নিশ্চিত করলো অস্ট্রেলিয়া

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Total
0
Share