হার দিয়ে শুরু হলো অনূর্ধ্ব-২৩ দলের ভারত মিশন

জাকির হাসান

পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে মঙ্গলবার ভারতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ে সাইফ হাসানের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। আজ প্রথম ওয়ানডেতে ভারতীয় অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলো সফরকারীরা। যেখানে ৩৪ রানে হেরেছে তাঁরা।

১৯৩ রানের সহজ লক্ষ্য মাথায় রেখে সাব্বির হোসেনকে নিয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন সাইফ হাসান। দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলেই কোন রান না করা সাব্বির হোসেন বোল্ড হয়ে ফেরেন সাজঘরে। তিনে নামা ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বিকে নিয়ে সাবধানী এক জুটি গড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন সাইফ। তবে শেঠের করা প্রথম (৯ম ওভারের ১ম বল) বলেই বোল্ড হন ২২ বলে ২ চারে ১২ রান করা সাইফ।

সাইফ হাসান
ফাইল ছবি

খোলস বন্দী হয়ে ব্যাট করছিলেন ইয়াসির রাব্বি। তবে খোলস থেকে বের হতে চেয়েই বাধে বিপত্তি। শুভাং হেগড়েকে তেড়েফুঁড়ে মারতে যেয়ে স্টাম্পিং হন রাব্বি (২৬ বলে ৬)। দলের রান যখন ৪০ তখন চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসাবে আউট হন আল আমিন জুনিয়র (১৯ বলে ৪)। দলের রান ৫০ ছোঁয়ার আগে (৪৬ রান এর মাথায়) পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসাবে আউট হন জাকের আলী অনিক (৩)।

৪৬ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে আশা দেখাচ্ছিলেন জাকির হাসান। আরিফুল হককে সাথে নিয়ে গড়েন ৬৩ রানের জুটি। ৬৭ বলে ২ চার ও ১ ছয়ে ৪৮ রান করা জাকির অবশ্য আউট হননি। চোটে পড়ে ব্যাট করার অবস্থা না থাকায় মাঠ ছেড়েছেন তিনি।

জাকির হাসান পরে আর ব্যাট করতে নামতে পারেননি। ৪৮.৪ ওভারে ৯ উইকেটে ১৫৮ রান তোলার পর তাই হার নিশ্চিত হয় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের। ৩৪ রানে হারে সফরকারীরা। ৭২ বল খেলে ৩৮ রান করেন আরিফুল হক, ২৪ বলে ২০ রান করেন মেহেদী, রবিউল হক করেন ২১ রান।

এর আগে লখনৌ এর ভারতরত্ন শ্রী অটল বিহারি বাজপায়ি একানা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান।

প্রথম ওভারেই সাফল্যের মুখ দেখেন পেসার আবু হায়দার রনি। ইনিংসের তৃতীয় বলেই ওপেনার ইয়াশাভি ভূপেন্দ্র জাইসাওয়ালকে বোল্ড করে সাজঘরে পাঠান রনি।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে বি আর শরৎ ও মাধব কৌশিক গড়েন ৬৪ রানের জুটি। শরৎকে আল আমিনের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান শফিকুল ইসলাম।

এরপর নতুন বোলিংয়ে আসা মেহেদী হাসান টাইগার শিবিরে আনন্দের উপলক্ষ এনে দেন দুই বার। টানা দুই ওভারে ফেরান মাধব কৌশিক (২০) ও অধিনায়ক প্রিয়ম পরাগকে (৪)। স্বাগতিকদের রান ১০০ হবার আগে ৫ম ব্যাটসম্যান হিসাবে ফেরেন ঋত্বিক রয় চৌধুরী। ২৯ বলে ১ চারে ১৮ রান করা ঋত্বিককে জাকের আলী অনিকের ক্যাচ বানিয়ে নিজের তৃতীয় শিকারের দেখা পান মেহেদী।

শেঠ ও আরিয়ান জুয়েলের ৬ষ্ঠ উইকেট জুটি জমতে শুরু করেছিলো। জুটিতে ৩৪ রান ওঠার পর শেঠকে আরিফুল হকের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান অধিনায়ক সাইফ হাসান। দারুণ বল করা মেহেদী হাসান ২৯ রান খরচে ৩ উইকেট নিয়ে ১০ ওভারের কোটা পূর্ণ করেন।

অধিনায়ক সাইফ দ্বিতীয় উইকেটের দেখা পান শুভাং হেগড়েকে (৯) সাব্বিরের ক্যাচ বানিয়ে ফিরিয়ে। ঋত্বিক শকিনকে বোল্ড করে নিজের দ্বিতীয় উইকেট পান আবু হায়দার রনি। ইনিংসের শেষ ওভারে এসে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ রান (৬৯) করা আরিয়ান জুলেলকে ফেরান রবিউল হক। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯২ রান স্কোরবোর্ডে জমা করতে পারে স্বাগতিকরা।

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer of Cricket97 & en.Cricket97

Read Previous

মাসাকাদজাকে বিদায়ী সম্মাননা জানাচ্ছে বিসিবি

Read Next

ব্যর্থ কোহলিতেই আস্থা ব্যাঙ্গালোরের

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share