টস করতে নেমেই রেকর্ড গড়লেন রাশিদ খান

রাশিদ খান

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ (৫ সেপ্টেম্বর) একমাত্র টেস্টে মুখোমুখি হল বাংলাদেশ -আফগানিস্তান। এই ম্যাচে আফগান অধিনায়ক রাশিদ খান ছুঁয়ে ফেললেন অনন্য এক রেকর্ড। সাকিবের সাথে টস করতে নামার সময় আফগান কাপ্তান রাশিদ খানের বয়স ২০ বছর ৩৫০ দিন। যা টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার বিশ্বরেকর্ড।

রাশিদ খান
ছবিঃ সংগ্রহীত

বিশ্বরেকর্ড গড়ার পথে রাশিদ খান পেছনে ফেললেন সাবেক জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক টাটেন্ডা টাইবুকে। ২০০৪ সালে হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক মারভান আত্তাপাতুর সাথে টস করতে নামার দিন টাইবুর বয়স ছিল মাত্র ২০ বছর ৩৫৮ দিন। আর এতেই তিনি ভেঙেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক নবাব মনসুর আলি খান পতৌদির প্রায় ৪২ বছর ধরে টিকে থাকা অনন্য রেকর্ড।

১৯৬২ সালে (২১ বছর ৭৭ দিন বয়সে) টেস্টে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন নবাব মনসুর আলি খান পতৌদি। তার কনিষ্ঠ অধিনায়কের রের্কড অক্ষুন্ন ছিল ২০০৪ সালে জিম্বাবুয়ের টাটেন্ডা টাইবু (২০ বছরে ৩৫৮ দিন বয়সে) অধিনায়ক হওয়ার আগ পর্যন্ত। পাতৌদির আগে রেকর্ডটি ছিল পাকিস্তানি কিংবদন্তি ওয়াকার ইউনুসের।

কিন্তু এবার সবাইকে ছাপিয়ে গিয়ে ২০ বছর ৩৫০ দিন বয়সে আফগানিস্তান টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব সামলানো আফগান তরুণ অলরাউন্ডার রাশিদ খান। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়ক তত্ব থেকে বেরিয়ে আফগান ক্রিকেট বোর্ড সব ফরম্যাটের দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক রাশিদ খানকে। ওয়ানডে ফরম্যাটেও কনিষ্ঠতম অধিনায়কের নাম রাশিদ খান (১৯ বছর ১৬৫ দিন)।

টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে কম বয়সে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার তালিকায় প্রথম দশে আছেন বাংলাদেশের দুই টেস্ট অধিনায়ক। ২০০৯ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে নিয়মিত মাশরাফি বিন মর্তুজা হঠাৎ চোটে পড়লে টাইগারদের অধিনায়কের দায়িত্ব পান সাকিব আল হাসান। টেস্ট ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেকের সময় সাকিবের বয়স ছিল ২২ বছর ১১৫ দিন। আর ২০০৭ সালে মোহাম্মদ আশরাফুল কলম্বো টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেন ২২ বছর ৩৫৩ দিন বয়সে।

সবচেয়ে কম বয়সে টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক যাঁদের:

অধিনায়ক বয়স দল প্রতিপক্ষ মাঠ সাল
রাশিদ খান ২০ বছর ৩৫০ দিন আফগানিস্তান বাংলাদেশ চট্টগ্রাম ২০১৯
টাটেন্ডা টাইবু ২০ বছর ৩৫৮ দিন জিম্বাবুয়ে শ্রীলঙ্কা হারারে ২০০৪
এম এ কে পতৌদি ২১ বছর ৭৭ দিন ভারত উইন্ডিজ বার্বাডোজ ১৯৬২
ওয়াকার ইউনিস ২২ বছর ১৫ দিন পাকিস্তান জিম্বাবুয়ে করাচি ১৯৯৩
গ্রায়েম স্মিথ ২২ বছর ৮২ দিন দ. আফ্রিকা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম ২০০৩
সাকিব আল হাসান ২২ বছর ১১৫ দিন বাংলাদেশ উইন্ডিজ গ্রেনাডা ২০০৯
ইয়ান ক্রেগ ২২ বছর ১৯৪ দিন অস্ট্রেরিয়া দ. আফ্রিকা জোহানসবার্গ ১৯৫৭
জাভেদ মিয়াঁদাদ ২২ বছর ২৬০ দিন পাকিস্তান অস্ট্রেলিয়া করাচি ১৯৮০
মারে বিসেট ২২ বছর ৩০৬ দিন দ. আফ্রিকা ইংল্যান্ড জোহানসবার্গ ১৮৯৯
মোহাম্মদ আশরাফুল ২২ বছর ৩৫৩ দিন বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা কলম্বো ২০০৭

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

লাইভ রিপোর্টঃ চট্টগ্রামে ১ম দিন আফগানিস্তানের

Read Next

রফিক-সাকিবকে টপকে দ্রুততম তাইজুল

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
4
Share