ভারতের কোচ হতে শেওয়াগের আগ্রহ প্রকাশ

featured photo1 1 5
Vinkmag ad

শেওয়াগ এর চিত্র ফলাফল

ভারতীয় বর্তমান কোচ অনিল কুম্বলের থাকছেন চলমান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পর্যন্ত। মেয়াদ বাড়ার কথা থাকলেও স্বয়ং ভারতীয় কাপ্তান ভিরাট কোহলি অভিযোগ তুলেছেন কুম্বলের কোচিং কৌশল নিয়ে। যার ফলে বিসিসিআই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোচ বদলানোর, ছেড়েছে আবেদনপত্র। আর জমা পড়া আবেদনপত্রে নাম দেখা গিয়েছে সাবেক ভারতীয় উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ভিরেন্দর শেওয়াগেরও। 

৩১মে ছিল আবেদনপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। বিজ্ঞপ্তি ছাড়ার পর নির্ধারিত সময়ে ভারতীয় বোর্ড পেয়েছে বেশ কয়েকটি বিখ্যাত নাম। যার মধ্যে রয়েছেন ভিরেন্দর শেওয়াগ, সাবেক শ্রীলঙ্কান কোচ টম মুডি, সাবেক পাকিস্তান কোচ রিচার্ড পাইবাস, ভারতীয় সাবেক মিডিয়াম পেসার দড্ডা গনেশ এবং সাবেক ভারতীয় ‘এ’ দলের দায়িত্ব পালন করা লালচাঁদ রাজপুত।

এর মধ্যে একমাত্র শেওয়াগেরই নেই কোন ধরনের কোচিং অভিজ্ঞতা। ২০১৩ সালে শেষবার ভারতের জার্সিতে মাঠে নামা শেওয়াগ ২০১৫ সালে বিদায় জানান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে। কিংস ইলাভেন পাঞ্জাবের হয়ে আইপিএলে টিম ম্যানেজমেন্টে ভূমিকা রাখার সুযোগ হলেও প্রশিক্ষক হিসেবে এখনও খাতা খোলেননি এক সময়কার মারকুটে এই ওপেনার।

সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার টম মুডি লম্বা একটা সময় ধরে কোচিং করিয়েছেন টিম শ্রীলঙ্কাকে। পাশাপাশি আইপিএল ফ্রাঞ্জাইজি দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে শিরোপার মালিক বানিয়েছেন একবার। এছাড়া বিগব্যাশ দল মেলবোর্ন রেনেগেডস এবং ইংলিশ কাউন্টি দল ওরচেস্টারশায়্যারের কোচ হিসেবেও কাজ করেছেন মুডি।

রিচার্ড পাইবাসের অভিজ্ঞতা আছে দু’বার পাকিস্তান দলের সঙ্গে কাজ করার। গনেশ ভারতীয় ঘরোয়া দল গোয়ার কোচ হিসেবে কাজ করেছেন চার বছরের মত আর লালচাঁদ রাজপুত বর্তমানে আফগানিস্থানের কোচের দায়িত্বে আছেন।

এ পাঁচজন থেকে সবচেয়ে যোগ্য ব্যক্তিকেই টিম ইন্ডিয়ার দায়িত্ব বুঝিয়ে দিবেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের উপদেষ্টা কমিটি। যার সদস্যরা হলেন তিন ভারতীয় কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলী এবং ভিভিএস লক্ষণ।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দেশের বাইরে মাশরাফির একশ উইকেট

Read Next

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মঞ্চে মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share