‘ফেরা’ নাটকের পর ডি ভিলিয়ার্সের টুইট

Vinkmag ad

গত বছরের মাঝের দিকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে আচমকা অবসরের ঘোষণা দিয়ে বসেন দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার ও বিশ্ব ক্রিকেটের তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের উপর তার এতোটাই বিতৃষ্ণা এসে গেছিলো যে কিছুদিন আগে মন্তব্য করে বসেন বিশ্বকাপ থেকে আইপিএলের মঞ্চই সেরা! সেই ঘটার পর গতকাল আবার নতুন করে আলোচনা উঠে এসেছেন মিস্টার থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় সংবাদ সংস্থা এসপিন ক্রিকইনফো তাদের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে এবি ডি ভিলিয়ার্স কড়া নেড়েছিলেন প্রোটিয়া কাপ্তান ফাফ ডু প্লেসিস, প্রধান কোচ ওটিস গিবসন ও নির্বাচকদের কনভেইনার লিন্ডা জোন্ডির দরজাতে। তাদেরকে এবি ডি ভিলিয়ার্স চলমান বিশ্বকাপে নিজের খেলার আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছিলেন। তবে বিবেচনা করা তো দূরে থাক, ডি ভিলিয়ার্সের কথা কানেও তোলেননি তাঁরা।

এবি ডি ভিলিয়ার্সের বিশ্বকাপ দলে না নিতে চাওয়ার পেছনে দুইটি কারণের কথা বলেছে ক্রিকইনফো। প্রথমত ২০১৮ সালের মে মাসে অবসর নেওয়ার পর এবি ডি ভিলিয়ার্স কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচে খেলেননি স্বভাবতই। দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া ক্রিকেটেও খেলেননি সাবেক এই প্রোটিয়া অধিনায়ক।

তার ফিরতে চাওয়ার খবর রটার পর সকর্থকেরা কৌতূহলী হয়ে ছিলেন ডি ভিলিয়ার্স কি বলে তা শুনতে। সেই ঘটনার পর নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি টুইটও করেছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। যেখানে বিষদ কিছু উল্লেখ না করে দলের কঠিন সময়ে ক্রিকেটারদের ওপর বিশ্বাস রেখে তাদের সমর্থন দিয়ে যাওয়াটাকেই জরুরি বলে জানিয়েছেন তিনি।

যেখানে ডি ভিলিয়ার্স লিখেছেন, ‘এখন আমাদের সবার বিশ্বকাপে দলকে সমর্থন দেওয়াটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এখনো অনেকটা পথ যাওয়া বাকি। আমার বিশ্বাস ক্রিকেটাররা দলকে শেষ পর্যন্ত টেনে নিয়ে যাওয়ার সামর্থ্য রাখে।’

প্রসঙ্গত, চলমান বিশ্বকাপে নিজেদের সময়টা একেবারেই সুখকর যাচ্ছে না ফাফ ডু প্লেসিসের দলের। এখন পর্যন্ত স্বাগতিক ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ আর ভারতের বিপক্ষে মাঠে নেমে প্রোটিয়াদের হারতে হয়েছে তিন ম্যাচেই।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলেন মোহাম্মদ শেহজাদ

Read Next

নিউজিল্যান্ডের মিডিয়াতেও ‘কিপার’ মুশফিকের সমালোচনা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share